শনিবার, ২৮ মার্চ, ২০২০ | আপডেট ২০ মিনিট আগে

মাদারীপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীর হাত-পায়ের রগ কর্তন’

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীর হাত-পায়ের রগ কর্তন’

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মাদারীপুরের কালকিনিতে তারেক সরদার (১৬) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর বাম হাত-পায়ের রগ কেটে দিয়েছে অপর পরীক্ষার্থীরা।

রোববার দুপুরে পরীক্ষা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। আহত পরীক্ষার্থীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন রয়েছে। ওই আহত পরীক্ষার্থী বড়চর লক্ষিপুর গ্রামের জাকির সরদারের ছেলে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাশঁগাড়ি এলাকার খাশেরহাট সৈয়দ আবুল হোসেন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পরীক্ষায় সকালে অংশ গ্রহণ করেন তারেক সরদার। পরীক্ষা শেষে দুপুরে তারেক রুম থেকে বের হয়। এসময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে অপর পরীক্ষার্থী ইরান ও ফুয়াদের নেতৃত্বে কয়েকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তারেক সরদারের বাম পাঁ ও হাতের রগ কেটে দেয়।

বিষয়টি দেখে স্থানীয় লোকজন তারেককে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আহত পরীক্ষার্থীর বাবা জাকির সরদার বলেন, প্রভাবশালী বাবুল আকনের নির্দেশে তার ভাতিজা ইরান ও ফুয়াদ মিলে বিনা কারণে আমার ছেলের হাত-পায়ের রগ কেটে দিয়েছে। আমি তাদের বিচার চাই।

অভিযুক্ত বাবুল আকন বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে ছাত্ররা-ছাত্ররা মারামারি করেছে। আমার নির্দেশে করা হয়েছে এ কথা মিথ্যা।

খাসেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের (আইসি) মো. আল আমিন বলেন, স্কুল কর্তৃপক্ষ আমাদের কোনো প্রকার অবহিত না করে এসএসসি পরীক্ষা নিয়েছেন। তাই এই ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনা আসলে অনাকাঙ্খিত।

কালকিনি থানার ওসি মো. নাসিরউদ্দিন মৃধা বলেন, আমরা থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পরিস্থিতি শান্ত আছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য