সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৪

অনলাইন ডেস্ক

সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৪

সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে হবিগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ জন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় গাছের সঙ্গে মাইক্রোবাসের ধাক্কা লেগে আটজন নিহত হয়েছেন। আর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন ছয়জন।

এছাড়া দুই ঘটনায় আরও আটজন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে এদের মধ্যে আবার আশঙ্কজনক অবস্থায় আছেন কয়েকজন।

শুক্রবার (০৬ মার্চ) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বিজয়নগর উপজেলার ভাটি কালিসীমা এলাকায় এক ঘটনা ঘটে। আরেকটি ভোর ৬টার দিকে নবীগঞ্জের কান্দিগাঁও এলাকায় ঘটে।

শেরপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল হক জানান, শুক্রবার সকালে ঢাকা থেকে সিলেটগামী একটি  মাইক্রোবাসটি নবীগঞ্জ উপজেলার কান্দিগাও এলাকায় এলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ধুমড়েমুছড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই আটজন নিহত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে তিনি জানান।

বিজয়নগরের দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে চারজনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলেন- সোহান (২০), সাগর (২২), রিফাত (১৬) ও ইমন (১৯)। আর আহতরা হলেন- শাহিন (৩০), বিজয় (১৯), আবীর (১৯) ও জিসান (২৪)। তাদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহতরা নারায়ণগঞ্জ থেকে মাজার জিয়ারতের উদ্দেশে সিলেট যাচ্ছিলেন।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল ইসলাম বলেন, মাইক্রোবাসে করে ১০ জন যাত্রী নারায়ণগঞ্জ থেকে সিলেট মাজার জিয়ারতের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পথে মহাসড়কের রামপুর এলাকায় সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকার দিকে আসা লিমন পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসের ছয় যাত্রী নিহত হন।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল 

পরবর্তী খবর

মেঘনায় নিখোঁজের ৩ দিন পর লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

মেঘনায় নিখোঁজের ৩ দিন পর লাশ উদ্ধার

চাঁদপুরে মেঘনা নদীতে নিখোঁজ হওয়ার তিনদিন পর রফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির লাশের সন্ধান মিলেছে। বৃহস্পতিবার (১৩ মে) সদর উপজেলার হরিণাঘাট এলাকায় নদীতে ভাসমান অবস্থায় এ লাশটি দেখতে পায় কোস্ট গার্ডের ডুবুরি দল।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে চাঁদপুর শহরের তিন নদীর মোহনায় আল্লাহর রহমত নামে বালুবাহী বাল্কহেডের ধাক্কায় স্টিল বডি কার্গোর এই আরোহী নদীতে ছিটকে পড়ে নিখোঁজ হন।

চাঁদপুরে কোস্ট গার্ডের স্টেশন কমান্ডার লে. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনার পর থেকেই কোস্ট গার্ডের ডুবুরি দল নদীতে অভিযান শুরু করে। পরে তিনদিনের মাথায় বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থলের ৬ কিলোমিটার দূরে হরিণাঘাট এলাকায় হতভাগ্য ব্যক্তির লাশের সন্ধান মেলে।

এদিকে, দুপুরে কোস্ট গার্ডের সদস্যরা রফিকুল ইসলামের লাশটি নৌ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

নৌ পুলিশ চাঁদপুর থানার ওসি মুজাহিদুল ইসলাম জানান, রফিকুল ইসলামের লাশটি তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার কুলকড়ি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন প্রবাসী রফিকুল ইসলাম। গত মঙ্গলবার বিকেলে চাঁদপুর শহরের পুরানবাজার থেকে স্টিল বডি কার্গোতে করে বাড়ি যাওয়ার পথে বালুবাহী বাল্কহেডের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন তিনি। দুর্ঘটনার পর স্বজনরা তার ফিরে আসার অপেক্ষায় ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ফিরলেন ঠিকই। তবে লাশ হয়ে।

পরবর্তী খবর

ঈদের মাংস কাটতে গিয়ে পিছলে পড়ে ধারাল চাকু ঢুকে গেল পেটে

অনলাইন ডেস্ক

ঈদের মাংস কাটতে গিয়ে পিছলে পড়ে ধারাল চাকু ঢুকে গেল পেটে

গাজীপুরের কাশিমপুরে ঈদ উপলক্ষে গরু জবাই করতে গিয়ে নিজের শরীরে অস্ত্র ঢুকে আছিম উদ্দিন (৪৫) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ মে) সকালে কাশিমপুরের এনায়েতপুর স্কুল মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবে খোকা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, গরুর মাংস বিক্রির উদ্দেশে কসাই আছিম উদ্দিন গরু জবাই করে। জবাই করা গরুর মাংস কাটতে গিয়ে টোল থেকে পিছলে পড়ে নিজের হাতে থাকা গরু কাটার ধারাল অস্ত্র তার নিজের পেটের ডান পাশে ঢুকে যায়। প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকে, তাৎক্ষণিক আছিম উদ্দিনকে কোনাবাড়ী পপুলার হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আজিমউদ্দিন কসাই তার পরিবার নিয়ে পূর্বা এনাতপুরে মোস্তফা কামালের বাড়িতে দীর্ঘদিন যাবত বসবাস করতেন। মৃত আজিমউদ্দিনের লাশ তার গ্রামের বাড়ি পঞ্চগড় জেলার দেবিগঞ্জ থানার সলিম নগরে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন মাহবুবে খোকা।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

নওগাঁয় বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

নওগাঁয় বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

নওগাঁর ধামইরহাটে বজ্রপাতে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। মাঠ থেকে গরু নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কৃষক রেজাউল করিম ইজাবুল (৬৩) বজ্রপাতের শিকার হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়নের বৈদ্যবাটি গ্রামের মাঠে।

ইসবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েশ বাদল ও ইউপি সদস্য রেজাউল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন দেখালে কৃষক ইজাবুল গরু নেয়ার জন্য পূর্ব মাঠে যায়। গরু নিয়ে রওনা দেয়ার মুহূর্তে সে বজ্রপাতের শিকার হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যায়। তবে গরুগুলো ভয়ে দৌড়ে পালিয়ে বাড়িতে গিয়ে রক্ষা পায়। এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের জনক ইজাবুল বৈদ্যবাটি হটাৎপাড়া গ্রামের মৃত গিয়াশ উদ্দিনের ছেলে।

ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মমিন বলেন, খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল তৈরি করে দাফনের জন্য লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

দেবীগঞ্জে বজ্রপাতে গেল দুই প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক

দেবীগঞ্জে বজ্রপাতে গেল দুই প্রাণ

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে পৃথক স্থানে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল হোসেন জানান, মৃতরা হলেন- দেবীগঞ্জ উপজেলার আরাজি সুন্দরদিঘী এলাকার আব্দুস সামাদের ছেলে হামিদুল ইসলাম (৩৮) ও দারার হাট ডাক্তারপাড়া এলাকার ফজল হকের ছেলে সলেমান আলী (৩৫)।

সোমবার (১০ মে) বিকেলে দেবীগঞ্জ উপজেলার চরব ডাঙ্গা এলাকায় ও তেলিপাড়া করতোয়া নদীপাড়ে বজ্রপাতে তারা মারা যান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, হামিদুল চরব ডাঙ্গায় মাঠে ধানক্ষেতের কাজ করার সময় বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এদিকে সলেমান তেলিপাড়া করতোয়া নদী খননে নদীতে বালু উত্তোলনের কাজ করছিলেন। এসময় বৃষ্টি শুরু হলে হঠাৎ তাদর ওপর বজ্রপাত হলে তারা গুরুতর আহত হন।

পরে তাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে দেবীগঞ্জ  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেল কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

পরবর্তী খবর

দিনাজপুরে ট্রাক-ট্রাক্টর সংঘষে চালক নিহত

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরে ট্রাক-ট্রাক্টর সংঘষে চালক নিহত

দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের রাণীরবন্দরে ট্রাকের সাথে ট্রাক্টরের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাদল ইসলাম (৩৫) নামের ট্রাক চালক নিহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ১০ই মে সোমবার সকাল ৭ টার দিকে দিনাজপুর-রংপুর সড়কের ইছামতি ডিগ্রি কলেজ গেটের সামনে। 

ঘটনাটি ঘটেছে আজ সোমবার সকাল ৭ টার দিকে দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের ইছামতি ডিগ্রি কলেজ গেটের সামনে। নিহত বাদল ইসলাম পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলার বাসিন্দা।

ওই এলাকার স্থানীয়রা জানান, কলেজমোড় এলাকায় ইছামতি ডিগ্রি কলেজ গেটের সামনে গাছের গুড়ি বহনকারী একটি ট্রাক্টেরের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা মালবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই ট্রাক ড্রাইভারের মৃত্যু হয়। আহত হয় একজন।

এ বিষয়ে দিনাজপুর দশমাইল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কেরামত আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর