মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০ | আপডেট ০১ মিনিট আগে

করোনায় আক্রান্ত ৩৩ জনের বেশিরভাগের বয়স ২১ থেকে ৪০

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় আক্রান্ত ৩৩ জনের বেশিরভাগের বয়স ২১ থেকে ৪০

দেশে করোনায় আক্রান্ত মোট ৩৩ জনের বয়স প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর)। যাদের বেশির ভাগের বয়স ২১ থেকে ৪০।

সোমবার (২৩ মার্চ) বিকেলে চারটায় রাজধানীর বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান্স অ্যান্ড সার্জন্স (বিসিপিএস) মিলনায়তনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ড. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, দেশে করোনায় আক্রান্ত ৩৩ জনের দুই তৃতীয়াংশ পুরুষ ও এক তৃতীয়াংশ নারী। যাদের দুইজনের বয়স ১০ এর নীচে। একজনের বয়স ১০ থেকে ২০। ১৮ জনের বয়স ২১ থেকে ৪০। পাঁচজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০। একজনের বয়স ৫১ থেকে ৬০। বাকি ছয়জনের বয়স ষাটোর্ধ্ব।

ফ্লোরা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছয়জনের বয়স সম্পর্কে বলেন, নুতন আক্রান্তের তিনজন পুরুষ, তিনজন নারী। এদের একজনের বয়স ২০ থেকে ৩০। দুইজনের বয়স ৩০ থেকে ৪০। আরেকজনের বয়স ৪০ থেকে ৫০। বাকি দুজনের বয়স  
ষাটোর্ধ্ব।

তিনি আরও জানান, দেশে মোট আক্রান্ত ৩৩ জনের মধ্যে ১৩ জনই বিদেশ থেকে এসেছেন। বাকিরা সংস্পর্শে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। বিদেশফেরতদের মধ্যে ইতালির ছয়জন, যুক্তরাষ্ট্রের দুজন, ইউরোপের অন্যান্য দেশে থেকে দুজন, বাহরাইন থেকে একজন, ভারত থেকে একজন এবং কুয়েত থেকে একজন এসেছেন।

এদিকে করোনা ভাইরাসের কারণে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি ছুটি থাকবে। এর মধ্য ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি থাকবে। এর আগে ও পরে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ছুটি। ২৭ ও ২৮ মার্চের সাপ্তাহিক ছুটিও যোগ হবে। এ ছাড়া ৩ ও ৪ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটি এ ছুটির সঙ্গে যোগ হবে।

তবে এ ছুটি কাঁচাবাজার, খাবার, ওষুধের দোকান, হাপসাতাল এবং জরুরি সেবার জন্য প্রযোজ্য হবে না। এছাড়া আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে বিভাগীয় ও জেলাশহরগুলোতে সামাজিক দূরত্ব এবং সতর্কতামূলক ব্যবস্তার জন্য বেসরকারি প্রশাসনকে সহায়তা দিতে সেনাবাহিনী নিয়োজিত হবে।

সচিবালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে আজ সোমবার এ ধরণের মোট ১০টি সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানান মন্ত্রীপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। সংবাদ সম্মেলনে প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ের মূখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিবেরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রীপরিষদ সচিব ও মূখ্য সচিব জানান, এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে তাদের পৃথকভাবে বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ১০ দফার ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

১০ সিদ্ধান্তের মধ্য রয়েছে গণপরিবহন চলাচল সীমিত রাখা, সবরকম সামাজিক রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রী পরিষদ সচিব বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে নিম্ন আয়ের কোনো ব্যক্তি শহরে জীবন যাপনে অক্ষম হলে সরকার তাঁকে ঘরে ফেরা কর্মসূচির অধীনে নিজ গ্রাম বা ঘরে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেবে। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকেরা ব্যবস্থা নেবে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য