বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০ | আপডেট ৩২ মিনিট আগে

নাটোরে দিনমজুরদের মাঝে সম্প্রীতির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে দিনমজুরদের মাঝে সম্প্রীতির খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সারাদেশের ন্যায় নাটোরেও বন্ধ হতে শুরু করেছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ হোটেল-রেস্তোরাঁ। এতে কর্মহীন হয়ে পড়ছেন নিম্ন আয়ের দিনমজুর ও শ্রমিকরা। অসহায় মানুষকে সরকারি নির্দেশনা মেনে ঘরে থাকতে উদ্বুদ্ধ করাসহ ১০ দিনের প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী দিয়েছেন সম্প্রীতি সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতির কর্তৃপক্ষ।

সমিতির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান টুটুল এবং নাটোর জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাগর ইসলামের উদ্যোগে বুধবার সকালে এক শতাধিক হতদরিদ্র-দিনমজুরের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এ সময় গণমাধ্যমকর্মী নাসিম উদ্দীন নাসিম এবং খান মামুনের নেতৃত্বে দুই সদস্যের ৫ টি গ্রুপে ভাগ হয়ে শহরের স্টেশন বাজার, আলাইপুর, কান্দিভিটুয়া, কানাইখালী এলাকার দিনমজুদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়া হয় খাদ্য সামগ্রী। 

জানা যায়, বিতরণ করা খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল ৫ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু, ২ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি সয়াবিন তেল, ১ কেজি মসুরের ডাল, একটি কাপড় কাচা সাবান, একটি ডেটল সাবান, একটি সায়েন্টিফিক মাস্ক, একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও সচেতনতামূলক লিফলেট। 

সম্প্রীতির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান টুটুল বলেন, বিশ্বে করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করেছে। সরকার ইতোমধ্যে মানুষকে ঘরে থাকার নির্দেশ দিয়েছে। এতে করে খেটে খাওয়া মানুষেরা বিপাকে পড়বেন। তাদের মাঝে খাদ্য সংকট দেখা দেবে। হতদরিদ্র মানুষের কথা চিন্তা করে আমার প্রতিষ্ঠান সম্প্রীতির উদ্যোগে ১০০ দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছি।

নাটোর জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাগর ইসলাম বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকার ১০ দিন ঘর থেকে বের না হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। কারণ অবাধে চলাফেরার কারণে করোনার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যেতে পারে। অসহায় মানুষরা এই ১০ দিনের খাদ্য মজুদ করতে পারেনি। এমন সময় ১০০ হতদরিদ্রদের পাশে আমরা দাঁড়িয়েছি।

 

মন্তব্য