মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৮ মিনিট আগে

হতাশায় শেষ টাইগারদের সিরিজ

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

হতাশায় শেষ টাইগারদের সিরিজ

ফেবারিট হিসেবে শুরু করেও ত্রিদেশীয় সিরিজে শিরোপা হাতছাড়া হয় টাইগারদের। এরপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১-০ তে হাতছাড়া টেস্ট সিরিজ। শেষ ভরসা ছিল টি-টোয়েন্টি সিরিজটি। সেখানে  আরও বড় লজ্জায় পড়তে হলো বাংলাদেশকে। শ্রীলঙ্কার কাছে ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হয়েই দুঃস্বপ্নের সিরিজের ইতি টেনেছে টাইগাররা।
 
লঙ্কানদের বিপক্ষে এভাবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হওয়ার কথা ছিল না বাংলাদেশের! লম্বা একটা সিরিজ। প্রথমে ত্রিদেশীয়, এরপর টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি। ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে তুঙ্গে থাকা বাংলাদেশ এভাবে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি শেষ করবে কে ভেবেছিল! 

তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের শুরু থেকেই ইঙ্গিতও পাওয়া যাচ্ছিল। একদিকে দলে ইনজুরি, অন্যদিকে বোলার এবং ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা। 

রবিবারের ম্যাচে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপকে চুরমার করে দেয় লঙ্কানরা। এতে ৭৫ রানের পরাজয় বরণ করতে হয় টাইগারদের। 

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে কুশল মেন্ডিসের অর্ধশতকের ওপর ভর করে ২১০ রান সংগ্রহ করে সফরকারীরা। ফলে জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার ২১১ রান। শুরু থেকেই বাংলাদেশি বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালিয়ে ব্যাট করতে থাকে লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। তবে অনিয়মিত বোলার সৌম্য সরকারের বলে তুলে মারতে গিয়ে তামিম ইকবালের ক্যাচ হয়ে ফেরেন দানুসকা গুনাথিলাকা। 

দলীয় ৯৮ রানে ব্যক্তিগত ৪২ রানে থামেন গুনাথিলাকা। ১৬তম ওভারের তৃতীয় বলে ভয়ঙ্কর থিসারা পেরেরাকে ব্যক্তিগত ৩১ রানে ফেরান আবু জায়েদ রাহি।

এরপর ৪২ বলে ৬টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৭০ করা মেন্ডিসকে ফেরান মুস্তাফিজ। শেষে দিকে উপুল থারাঙ্গা ও দাসুন শানাকাও ব্যাট হাতে ঝড় তুললে ২১০ রানে থামে শ্রীলঙ্কা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারতে থাকে বাংলাদেশ। দলীয় অধিনায়ক রিয়াদ ৪১, তামিম ২৯ এবং ২০ রান করেন সাইফউদ্দিন। এছাড়া অন্য কোনো ব্যাটসম্যান নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। শেষে ৭৫ রানের পরাজয় মেনে নিতে হয় টাইগারদের।

মন্তব্য