বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০ | আপডেট ০৭ মিনিট আগে

বৃটেনে অবৈধভাবে প্রবেশের চেষ্টা ১৪০ জনের বেশী অভিবাসীর

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি :

বৃটেনে অবৈধভাবে প্রবেশের চেষ্টা ১৪০ জনের বেশী অভিবাসীর

যুক্তরাজ্যে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল সাড়ে ৪ টায় কমপক্ষে পাঁচটি নৌকা এবং প্রায় ৭০ জন অভিবাসী দেশটির বর্ডার ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করে বৃটেনে প্রবেশের চেষ্টা চালায়। ১৪০ জনেরও বেশি লোককে ডোভারের উপকূলে নিয়ে আসা হয়েছিল বলে সীমান্তরক্ষি কর্মকর্তা মনে করেন। ছোট নৌকা করে বৃটেনের প্রবেশের চেষ্টা এটি রেকর্ড সংখ্যাক অভিবাসী। 

ব্রিটেন এবং ফ্রান্সের সীমান্ত কর্মকর্তা জানিয়েছে যে, কয়েক মাস যাব্ এশিয়া ও আফ্রিকা থেকে আসা অভিবাসীগন বার বার ব্রিটেনে ভ্রমনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্চেছ এবং প্রতিনিয়ত তারা বাধাও পাচ্চেছ। উভয় দেশ ছোট নৌকায় চ্যানেল পেরিয়ে আসা অভিবাসীদের থামানোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। 

চলতি সপ্তাহের শুরুতে স্বরাষ্ট্রসচিব প্রীতি প্যাটেল এবং ফরাসি ক্রিস্টোফ কাস্তারারের সাথে টেলিফোনে জানিয়েছেন যে, এভাবে যুক্তরাজ্যের উপকূল দিয়ে প্রায় ১২০০ অভিবাসী যুক্তরাজ্যের ভূখন্ডে প্রবেশকালে বাঁধার সমুক্ষিন হচ্চেছ। ২০১৯ সালে মোট ১৯০০ অভিবাসী ছোট নৌকায় করে যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন। 

২৩ শে মার্চ করোনা ভাইরাস লকডাউন শুরু হওয়ার পরে প্রায় ৭০০ পুরুষ ও মহিলা এবং শিশু ব্রিটিশ জালে এবং দক্ষিণ উপকূলের সৈকতে ছোট নৌকায় আটকা পড়েছে। গত বছর পৃথক ঘটনায় দুই অভিবাসী ডুবে যাওয়ার ফলে ব্রিটিশ সরকার বারবার তাদের ছোট নৌকা দিয়ে বিপজ্জনক পারাপারের চেষ্টা না করার জন্য সতর্ক করে দিয়েছে। তবে চ্যানেলের দু পাশে অতিরিক্ত সংস্থান থাকা সত্ত্বেও ক্রসিয়ের চেষ্টা করার সংখ্যাটি ক্রমবর্ধমান অব্যাহত রয়েছে। প্রায় প্রতিদিন ডজন খানেক অভিবাসী সীমান্তরক্ষির কাছে আটকা পড়েন। 

কেরো ক্যালাইস চ্যারিটির প্রতিষ্ঠাতা ক্লেয়ার মোসেলি বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনাক কিছু জায়গা থেকে পরিস্থিতির স্বীকার হয়ে পালিয়ে বৃটেনের এসে আশ্রয় নিতে চান তারা। ইংলিশ চ্যানেলটি বিশ্বের ব্যস্ততম শিপিং লেন, প্রতিদিন ৫০০ থেকে ৬০০ জাহাজ এ পথ দিয়ে যাতায়াত করে।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল 

মন্তব্য