সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০ | আপডেট ০২ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট আগে

‘দেশকে বিপদে ফেলেছে সরকার’

অনলাইন ডেস্ক

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিস্তারের মধ্যেও লকডাউন শিথিল করে সরকার দেশকে ভয়ংকর বিপদের দিকে ঠেলে দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশ ঘোষণা দিয়ে দোকান, রেস্তোরাঁ খুলে দিয়েছে। এটা সামাজিক দূরত্বের বিধির সঙ্গে সম্পূর্ণ সাংঘর্ষিক। লকডাউন শিথিলের ঘোষণার পর  হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নামছে।

‘এভাবে চলতে থাকলে করোনা মোকাবিলা দূরে থাক, সারাদেশ ভয়াবহ পরিণতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এই মুহূর্তে যথাযথ তদারকি না করে লকডাউন শিথিল করে দিয়ে সরকার ভয়ংকর বিপদজ্জনক অবস্থায় ফেলে দিয়েছে।’

‘দাম্ভিকতা ছাড়া তাদের আর কিছুই নেই। প্রতিটি ক্ষেত্রে অদূরদর্শিতা, সমন্বয়হীনতা, উদাসীনতা ও একগুয়েমি মনোভাব প্রকাশ পেয়েছে। করোনায় মৃত্যুর দায় সরকারকে নিতে হবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার মানুষকে ঘরে রাখতে সাধারণ ছুটি ঘোষণার করেছে। কিন্তু মানুষকে ঘরে আটকে রাখতে সাধারণ ছুটির আইনগত ক্ষমতা নেই। সরকার এজন্য যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা না নিয়ে নিজেদের অযোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছে।

করোনা ভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষায় হাসপাতালে দীর্ঘ লাইনের কথা তুলে ধরে দেশের স্বাস্থ্যখাতের চরম অব্যবস্থাপনা ও সরকারের ব্যর্থতার কঠোর সমালোচনা করে তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার যতটুকু ত্রাণ দিয়েছে তা সব দলীয় নেতা-কর্মীদের তালিকা করে দিয়েছে, শুধু দলীয় লোকদের ত্রাণ দেওয়া হয়েছে, সাধারণ মানুষ বা অন্য দলের লোকদেরকে ত্রাণ দেওয়া হয়নি।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য