শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০ | আপডেট ৩০ মিনিট আগে

‘যুবরাজের পিঠে ছুরি মেরেছে ধোনি-কোহলি’

অনলাইন ডেস্ক

‘যুবরাজের পিঠে ছুরি মেরেছে ধোনি-কোহলি’

ভারতীয় সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির ওপর বিষোদগার করাটা এখন যোগরাজ সিংয়ের স্বভাবে পরিণত হয়ে গিয়েছে। ভারতের প্রাক্তন এই ক্রিকেটারের ধারনা যে, ধোনির সমর্থনহীনতাই যুবরাজ সিংয়ের ক্যারিয়ার দীর্ঘায়িত হতে দেয়নি।

যোগরাজ সম্প্রতি বোমা ফাটিয়েছেন। জানিয়েছেন যে, শুধু ধোনিই নন, বিরাট কোহলি ও নির্বাচকরাও তার যুবরাজের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। যুবরাজের পিঠে ছুরি মারা হয়েছে। কিন্তু যোগরাজের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন যুবির দীর্ঘদিনের সতীর্থ মোহাম্মদ কাইফ।

যোগরাজ বলেছিলেন, “শুধু নির্বাচকরাই নন, ধোনি ও কোহলিও আমার ছেলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। পিঠে ছুরি মেরেছে। সম্প্রতি আমি রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলাম। ও আমার সঙ্গে একটা ছবি তুলতে চেয়েছিল। আমি তখন ওকে বলি মহান ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে বিদায় জানানো উচিত। আমি ওকে বলি ধোনি-কোহলি-রোহিত ওদেরকেও যেন বোর্ড সঠিক ফেয়ারওয়েল জানায়। ওরা ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য অনেক কিছু করেছে।”

কাইফ বলছেন, “আমার মনে হয় না যুবির বাবার অভিযোগ ঠিক। কিন্তু যুবি ছোট ফর্ম্যাটের ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন। ওর আরও সুযোগ পাওয়া উচিত ছিল। কিন্তু এটা ভারত। এখানে যদি প্লেয়ার কয়েকটা ম্যাচে ফর্মে না-থাকে তাহলে দলে তার জায়গা সুরক্ষিত নয়।কারণ অনেক প্রতিভাবান প্লেয়ার দলে সুযোগ পাওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকে।”

ধোনির ক্যাপ্টেনসির ভূয়সী প্রশংসা করে যোগরাজের কথা উড়িয়ে দিয়েছেন কাইফ। ন্যাটওয়েস্ট ট্রফির নায়ক বলছেন, ধোনি সাদা বলের ক্রিকেটে সফলতম অধিনায়ক। নিজের মতো দল বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা আছে ওর। ও যদি ব্যর্থ হতো, তখন প্রশ্ন উঠত। কিন্তু ওর অসামান্য রেকর্ড। দেশকে প্রচুর ট্রফি দিয়েছে। ফলে নির্বাচকরা ওকে স্বাধীনতা দেবে এবং ওর মতামত শুনবে। এটাই স্বাভাবিক। এখানে কোনও ফেভারিট তত্ত্ব কাজ করে না।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য