বুধবার, ৫ আগস্ট, ২০২০ | আপডেট ৫৬ মিনিট আগে

ব্রিটেনে বিদেশী ডাক্তার, নার্স ও কেয়ারার কর্মীদের এনএইচএস ফি বাতিল

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি :

ব্রিটেনে বিদেশী ডাক্তার, নার্স ও কেয়ারার কর্মীদের এনএইচএস ফি বাতিল

ব্রিটেনে নন ইউরোপিয়ান নাগরিকদের স্বাস্থ্য অভিবাসন সারচার্জ প্রতি বছর ৪০০ পাউন্ড থেকে বাড়িয়ে ৬২৪ পাউন্ড করা হচ্ছে আগামী অক্টোবর থেকে। 

এই সারচার্জ বিদেশী এনএইচএস কর্মীদেরও দিতে হতো। তবে এবার করোনাভাইরাসের মহামারিকালিন সময়ে তাদের অসামান্য অবদানের জন্য ইউরোপের বাইরে থেকে আসা বিদেশী ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীসহ কেয়ারার কর্মীদের বার্ষিক এনএইচএস ফি বাতিল করতে যাচ্ছে সরকার। 

ব্রিটিশ এমপিদের চাপের মুখে এনএইচএস ফি নেয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে বরিস জনসনের সরকার। 

গত বুধবার প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এনএইচএস কর্মীদের কাছ থেকে ফি নেয়া সঠিক বলে মত দিয়েছিলেন। 

তবে বিরোধী দলীয় নেতা স্যার কেয়ার স্টারমারসহ এমপিদের প্রবল বিরোধীতায় বরিস জনসন তার আগের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন।
তার এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসাকে সাম্প্রতিক সময়ের একটি বিজয় হিসেবে দেখছেন লেবার পার্টি নতুন এই নেতা। 

এদিকে ডাউনিং স্ট্রিটের একজন মুখপাত্র বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নিজেও সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হলে বিদেশী স্বাস্থ্যকর্মীদের সেবায় সুস্থ্য হয়েছেন। আর তাই প্রধানমন্ত্রী তার পূর্বের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন। 

তবে ডাউনিং স্ট্রিট বলছে, অভিবাসন সারচার্জ ব্রিটেনের এনএইচএস উপকৃত হচ্ছে। তারা অসুস্থদের যত্ন নিতে পারছে এবং জীবন বাঁচানো যাচ্ছে।
বিবৃতিতে বলা হয বিদেশ থেকে সেসকল এনএইচএস এবং কেয়ারার কর্মী ভিসা পেয়ে এসেছেন তারা ইতিমধ্যে দুর্দান্ত অবদান রেখেছেন। 

সরকারি সূত্র জানিয়েছে বিষয়টি নিয়ে তারা কাজ করছেন, সরকারী সিদ্ধান্তের গাইড লাইন দ্রুত জানানো হবে। এনএইচএস কর্মীদের পাশাপাশি কেয়ারার, পোর্টার, ক্লিনার, স্যোশাল কেয়ার ওয়ার্কারদের অন্তুভুক্ত করা হবে।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল 

মন্তব্য