মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ১২ মিনিট আগে

অস্ট্রেলিয়ায় ঈদ উদযাপন হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা

মাসুম বিল্লাহ অস্ট্রেলিয়া

অস্ট্রেলিয়ায় ঈদ উদযাপন হচ্ছে,  প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা

পবিত্র মাহে রমজান শেষে আজ রোববার অস্ট্রেলিয়ায় পবিত্র ঈদুল উল ফিতর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এদিকে অস্ট্রেলিয়ান মুসলিমদের আরেক সংগঠন ঘোষণা করেছে আগামী সোমবার ঈদ। যেহেতু অস্ট্রেলিয়াতে চাঁদ দেখা যায়নি।

পবিত্র ঈদুল উল ফিতর উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় প্রধান, গভর্নর জেনারেল এবং বিভিন্ন রাজ্যের প্রিমিয়ার।

অস্ট্রেলিয়ায় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন তার ভিডিও বার্তাতে বলেন, সকল ধর্মেই পবিত্র উৎসবগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, ব্যক্তিগতভাবে এবং কমিউনিটির দিক দিয়েও। আর মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতরের জন্য এটি সুনিশ্চিতভাবেই সত্য। এটি একটি পূত-পবিত্র সময়ের প্রতিনিধিত্ব করে, রোযা শেষ হওয়ার সময়, পরিবার এবং কমিউনিটি হিসেবে একত্রিত হওয়ার সময় এবং ইবাদত করার ও চিন্তা-ভাবনা করার সময়
এটি। তবে অস্ট্রেলিয়ার অন্যান্য ট্রাডিশনের মতো এ বছর ঈদেও বাধা পড়েছে।

এখন, সকল অস্ট্রেলিয়ানের মতো আমি অস্ট্রেলিয়ার মুসলমানদেরকে জানি। তারা সাম্প্রতি অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছে। মন্দির ও গির্জাগুলোর মতো মসজিদগুলোও বন্ধ করা হয়েছে, প্রার্থনার উদ্দেশ্যে হওয়া জমায়েতগুলো বন্ধ করা হয়েছে এবং অন্ত্যেষ্টিক্রিয়াও লোকজনের উপস্থিতি সীমিত করা হয়েছে। সত্যিকারেই কঠিন সময়। বিয়েশাদীর আয়োজনও এগিয়ে নেওয়া যাচ্ছে না। আর, অস্ট্রেলিয়ানদের জন্য এ বছর হজ্ব করার কোনো সুযোগ নেই। আপনারা এর সবই করেছেন স্বেচ্ছায় এবং নিজেদের সুরক্ষার জন্য। ত্যাগ স্বীকারের মধ্যে দিয়ে বিশ্বাসের প্রতি ভালবাসা প্রদর্শন করেছেন।

তাই, এ বছরের ঈদ ভিন্ন রকম। তবে, ঈদের বাণী এবং আপনাদের প্রতি আমার বার্তা নিঃসন্দেহে পরিবর্তিত হয়নি। এটি একটি আশার বাণী। অস্ট্রেলিয়ায় আমাদের আশাবাদী হওয়ার মতো অনেক কিছু আছে। বিশ্বের অন্যান্য বহু দেশের তুলনায় আমরা বলতে পারি, আমরা এই ভয়ানক ভাইরাসের বিরুদ্ধে বিজয়ী হচ্ছি। তবে আমরা জানি এখনও আমাদেরকে বহুদূর যেতে হবে। সকল অস্ট্রেলিয়ান, এদেশের সমস্ত কমিউনিটি, যাদের মধ্যে মুসলমানরাও রয়েছে, আমি চাই তারা সবাই একত্রে কাজ করুক। কারণ, এ বিষয়টিই কাজ করছে। যেমন, দৈহিক দূরত্ব বজায় রাখা, হাত ধোওয়া এবং অবশ্যই সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ কোভিডসেফ অ্যাপ ডাউনলোড করা। আপনি যদি এসব না করে থাকেন, তাহলে অনুগ্রহ করে এই ঈদেই এগুলো করুন।

আমাদেরকে আরও বহুদূর যেতে হবে। তবে আমি আপনাদেরকে আশ্বস্ত করতে চাই যে, এমন দিন আসবে, একটি চমৎকার দিন, একটি আনন্দময় দিন যেদিন সকল ধর্মের অনুসারীরা একত্রিত হতে পারবে এবং আবারও একত্রিত হয়ে প্রার্থনা করতে পারবে। আমি সেই দিনটির প্রতীক্ষায় রয়েছি।

তাই আমি আপনাদের ত্যাগের জন্য ধন্যবাদ দিতে চাই। আগামী সপ্তাহ ও মাসগুলোতেও আমরা এই ধারা বজায় রাখতে চাই।

আমি আপনাদেরকে ধন্যবাদ দিতে চাই আপনারা যে মহান উদাহরণ তৈরি করেছেন তার জন্য এবং আপনাদের কমিউনিটির নেতৃত্বের জন্য। আপনারা সাহায্য করেছেন, এখনও করে যাচ্ছেন এবং আমি জানি, আপনারা তা চালিয়ে যাবেন। আপনারা একটি পার্থ্যক্য তৈরি করে দেখিয়েছেন।

তাই আপনারা যে পবিত্র সময়টির সূচনা করছেন, আমি আশা করি ঈদ উৎসব হবে পরিবার ও কমিউনিটির মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধের গুণাবলী এবং উদারতা প্রকাশ। আপনাদেরকে, আপনাদের পরিবারকে এবং কমিউনিটিকে এটি ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করার উৎসাহ যোগাবে।

অস্ট্রেলিয়ার জন্য প্রতিদিন আপনারা সকলে যে অবদান রেখেছেন তার জন্য অস্ট্রেলিয়ার মুসলমান কমিউনিটির সকলের প্রতি আমি আমার অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আমরা কামনা করছি এই ঈদ আপনাদের জন্য কল্যাণ বয়ে নিয়ে আসুক। ঈদ মোবারক।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য