শুক্রবার, ১০ জুলাই, ২০২০ | আপডেট ২৬ মিনিট আগে

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অধিকাংশ ঘটনা ভারত সংশ্লিষ্ট : আইসিসি

অনলাইন ডেস্ক

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অধিকাংশ ঘটনা ভারত সংশ্লিষ্ট : আইসিসি

পাকিস্তানকে বলা হয় ফিক্সারদের পূণ্যভূমি। সাধারণ জুয়াড়ি থেকে ক্রিকেটার-অফিসিয়াল সবাই এই কাজে জড়িত। কিন্তু পাকিস্তানের চিরশত্রু ভারতও কম যায় না। সম্প্রতি আইসিসির এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে ভয়ংকর তথ্য। বিশ্ব ক্রিকেটের প্রধান নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির মতে, অধিকাংশ ম্যাচ ফিক্সিং ভারত সংশ্লিষ্ট।

আইসিসির চলমান ৫০টি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের তদন্তে দেখা যাচ্ছে, এর অধিকাংশই ভারত সংশ্লিষ্ট। ক্রিকেট বিশ্বের বৃহত্তম দেশটি নিয়ে এমনই এক বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ করেছে আকসু। গতকাল শনিবার স্পোর্টস ল অ্যান্ড পলিসি বিষয়ক এক অনলাইন সেমিনারে আইসিসির দুর্নীতি বিরোধী ইউনিটের (আকসু) তদন্ত সমন্বয়ক স্টিভ রিচার্ডসন বলেন, 'আমরা ৫০টি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ঘটনা তদন্ত করছি। এর বেশির ভাগই ভারত সংশ্লিষ্ট।

২০১৩ সালে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) বড় ধরনের ফিক্সিং কেলেঙ্কারি ফাঁস হওয়ার পর আইসিসি ধারণা করেছিল, এর ফলে ভারতীয় ক্রিকেটে দুর্নীতি কমে আসতে পারে। কিন্তু সেটা হয়নি। এখনেও দেদারসে ফিক্সিং হয় সেখানে। তদন্তে জড়িত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জুয়াড়িদের লক্ষ্য এখন রাজ্যভিত্তিক লিগ ও নিচের সারির সরাসরি সম্প্রচারিত লিগগুলো। সম্প্রতি কর্নাটক প্রিমিয়ার লিগ (কেপিএল) বাতিল করা হয়েছে।

স্টিভ রিচার্ডসন আরও বলেন, 'খেলোয়াড়েরা হলো এই চেইনের শেষ গন্তব্য। মূল সমস্যা হলো যারা এই অপরাধের আয়োজক, খেলোয়াড়দের টাকা দিচ্ছে। যারা খেলার বাইরে। আমি এই মুহূর্তে এমন আটজনের নাম ভারতের পরিচালনা সংস্থার কাছে দিতে পারি যারা নিয়মিত খেলোয়াড়দের এভাবে বিপথে টেনে নিচ্ছে।'

এ ব্যাপারে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের আকসু প্রধান অজিত সিং বলেন, 'কেপিএলের ঘটনা নিয়ে পুলিশ আংশিক তদন্ত প্রতিবেদন নিয়েছে। প্রমাণগুলো আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছি। দুর্নীতি দমন প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাইরের অংশগ্রহণকারীদের আটক করার ব্যাপারে আমাদের খুব বেশি কিছু করার নেই।'

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল

মন্তব্য