শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০ | আপডেট ০৬ মিনিট আগে

স্পীড বোট ও ট্রলারে পদ্মার চরে নিয়ে নারীকে গণধর্ষণ

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

স্পীড বোট ও ট্রলারে পদ্মার চরে নিয়ে নারীকে গণধর্ষণ

মাদারীপুরের শিবচরে এক গৃহবধূকে আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে স্পীড বোটে দ্রুত পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। মাঝ পদ্মায় গিয়ে একটি ট্রালারে তুলে নারীকে নিয়ে যাওয়া হয় চরের মধ্যে। সেখানেই পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়।

গত মঙ্গলবার রাতে মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ী এলাকায় চরের মধ্যে ওই গৃহবধূকে নিয়ে দলবেধে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। মেয়েটির চিৎকারে চরের পাশের বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে। বুধবার বিকেল পর্যন্ত ধর্ষিতার আত্মীয় স্বজন এলাকাবাসী ধর্ষণের ঘটনা আপোষ রফার চেষ্টা চালায়। পরে জানাজানি হলে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়।

পুলিশ জানতে পেরে বুধবার রাতে এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করেছে। এ রিপোর্ট লেখা (রাত সাড়ে ৯টা) পর্যন্ত শিবচর থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন।

ধর্ষিতা মেয়েটির বাড়ি যশোর জেলায় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শিবচর থানা-পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মঙ্গলবার রাতে কাঁঠালবাড়ি থেকে শিমুলিয়া যাওয়ার সময় তিন যুবক মাসুদ মোল্লা, মাহবুব মৃধা, নুর মোহাম্মদ হাওলাদার মেয়েটিকে স্পিডবোটে করে নিয়ে যায়। পরে চরের উপর নিয়ে তিন যুবক দলবেধে ধর্ষণের করে। এ সময় মেয়েটি শারিরীক অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। গত প্রায় ২ সপ্তাহ আগে চাঁদপুর এলাকার এক যুবকের সাথে মেয়েটির সাথে বিয়ে হয়।

মেয়েটির স্বামী কেরানীগঞ্জ এলাকায় একটি প্রজেক্ট এ শ্রমিকের চাকুরি করে। ওই সময় শিমুলিয়া ঘাটে স্ত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন স্বামী। শিবচর থানার উপ-পরিদর্শক বিষ্ণপদ হীরা জানান,ধর্ষিতা মেয়েটিকেসহ ধর্ষণকারী তিন যুবক মাসুদ মোল্লা (২৫) মাহবুল মৃধা (৩০) নুর মোহাম্মদ হাওলাদারকে (২৪) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার মাসুদ শিবচরের কাঁঠালবাড়ী এলাকার ফকির কান্দি গ্রামের তনু মোল্লার ছেলে। মাহাবুল মৃধা একই এলাকার রশিদ মৃধার ছেলে এবং আটক নুর মোহাম্মদ হাওলাদার একই এলাকার সামাদ হাওলাদারের ছেলে।

শিবচর থানা অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানান, ধর্ষণের ঘটনায় ৩ যুবককে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য