মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০ | আপডেট ০৬ মিনিট আগে

খালেদা জিয়ার বাসায় যেতে প্রধানমন্ত্রীকে জাফরুল্লাহ’র খোলা চিঠি

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার বাসায় যেতে প্রধানমন্ত্রীকে জাফরুল্লাহ’র খোলা চিঠি

আর কদিন পরেই ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা। এদিনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসায় যেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

সোমবার (২৭ জুলাই) ‘প্রিয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে একজন নাগরিকের খোলা চিঠি’ শীর্ষক বার্তায় তিনি এ আহ্বান জানান। 

গণমাধ্যমকে এই চিঠির বিষয়টি জানান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গণমাধ্যম বিষয়ক উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু।

চিঠিতে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘ঈদের দিন সময় করে খালেদা জিয়ার বাসস্থানে যান। এতে দেশবাসী খুশি হবেন এবং বঙ্গবন্ধু হেসে বলবেন, ‘ভালো করেছিস’ মা।’

প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য কামনা করে চিঠিতে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আমলা ও গোয়েন্দাদের থেকে সাবধানে থাকুন। রাজনৈতিক সহকর্মীদের কাছে ডেকে নিন।’

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অতীতে আপনার সঙ্গে সাক্ষাতের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে এই খোলা চিঠি লিখছি।

আশা করি, প্রধানমন্ত্রীর দফতরের কেউ না কেউ আমার এই চিঠি আপনার নজরে আনবেন এবং আমি একটি প্রাপ্তি স্বীকার পত্র পাবো। প্রধানমন্ত্রীর কাছে এটাই একজন নাগরিকের আকাঙ্ক্ষা।’

আগামী মাসে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের সুবিধা নিয়ে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ও কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সুবিধাসহকারে করোনা সাধারণ ওয়ার্ড চালু করবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘এতে রোগীদের দৈনিক তিন হাজার টাকার মতো খরচ পড়বে। প্রধানমন্ত্রী আপনি কি তার উদ্বোধন করবেন?’ 

রোগীরা হাসপাতালে ভর্তির জন্য কোনও দেশে প্রধানমন্ত্রী, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বা স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনুমোদন লাগে না বলে দাবি করে চিঠিতে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন,  ‘কোভিড-১৯ আক্রান্ত হোক বা অন্য কোনও রোগে আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালে ভর্তির সিদ্ধান্ত নেন ওই হাসপাতালে পরিচালক। কিংবা কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হতে পারবে কিনা তার সিদ্ধান্ত দেয় স্বাস্থ্য অধিদফতর। এই রকম সিদ্ধান্ত পৃথিবীর অন্য কোনও দেশে নেই। অপূর্ব সিদ্ধান্ত। কেন্দ্রিকতা দুর্নীতির সহজ বাহন।’

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য