সাংবাদিক তাপস জুবায়েরের মরদেহ ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায়, দাফন পারিবারিক কবরস্থানে

অনলাইন ডেস্ক

সাংবাদিক তাপস জুবায়েরের মরদেহ ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায়, দাফন পারিবারিক কবরস্থানে

নিউজ টোয়েন্টিফোরের স্টাফ রিপোর্টার তাপস জুবায়ের আর নেই, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।  তার এই অকাল মৃত্যুতে নিউজ টোয়েন্টিফোর পরিবার শোকাহত। এদিকে, তাপসের মৃত্যুতে রাজধানীর ভাটারা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তার বড় ভাই। পোস্টমর্টেমের পর তার মরদেহ নেওয়া হচ্ছে ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায়।

সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও বসুন্ধরা কিংস।

তাপস জুবায়ের। ২০০৯ সালে স্নাতক শেষে একুশে টেলিভিশনে ক্রীড়া সাংবাদিকতা হিসেবে নাম লেখান এই পেশায়। একে একে, আরটিভি ও চ্যানেল নাইনের পর নিজের সুনাম ধরে রেখেই ২০১৬ সালে যোগ দেন, নিউজটোয়েন্টিফোরে।

মিষ্টভাষীতা ও বন্ধুত্বপূর্ণ স্বাভাবের কারণে, দ্রুতই প্রিয় হয়ে উঠেছিলেন সবার কাছে। দেশে-বিদেশের বিভিন্ন স্পোর্টস ইভেন্ট দক্ষতার সাথে কাভারের পাশাপাশি, খবর পরিবেশন ও অনুষ্ঠান উপস্থাপনায়ও সামনভাবেই পারদর্শি ছিলেন তাপস।

হঠাৎ করেই যেন সাজানো জীবনে নেমে এলো ঘোর অন্ধকার। সম্পুর্ণ সুস্থ মানুষটি হঠাৎই অসুস্থ্য হয়ে পড়েন শুক্রবার রাতে। স্ত্রী দ্রুতই নিয়ে যান এভারকেয়ার হাসপাতালে। সেখানে আইসিইউ না থাকায় তাকে, রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেমোরিয়াল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

চিকিৎসকরা বলছেন, সেই হাসপতালে পৌঁছানোর আগেই পৃথীবির মায়া ত্যাগ করে, অজানার উদ্যেশ্যে পাড়ি জমান, তাপস জুবায়ের।

হঠাৎই তার এমন বিদায়ে শোকের ছায়া নামে নিউজ টোয়েন্টিফোরে। উৎসবের দিনে প্রিয় সহকর্মী হারানোর বেদনা, মেনে নিতে পারছে না কেউই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার এমন অকাল মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন, তার বর্তমান ও সাবেক সহকর্মীরা।

মন্তব্য