নোয়াখালীতে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীতে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

পূর্ব শুত্রুতার জের ধরে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজব্বার ইউনিয়নে আবদুল মান্নান (৫৫) নামে এক কৃষককে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় অরো তিনজন গুরতর আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় একই উপি সদস্য সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে উপজেলার চর জব্বার ইউনিয়নের কাঞ্চন বাজারে এ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত কৃষক আবুদল মান্নান উপজেলার পশ্চিম চরজব্বার গ্রামের মজিবুল হকের ছেলে।

নিহত কৃষক আবদুল মান্নানের ছোট ভাই আওয়ামী লীগ নেতা সফিকুর রহমান জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রাককালে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাহারউদ্দিন বৃদ্ধ মফিজুর রহমানকে বয়স্ক ভাতা প্রদানের জন্য তার কাছ থেকে এক হাজার টাকা ঘুষ নেয়। এর কিছুদিন পর ওই বৃদ্ধা ইউপি সদস্য বাহারউদ্দিন কে ভাতা অথবা ঘুষের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে বাহার বৃদ্ধাকে মারধর করে। ওই ঘটনায় আমার চাচাত ভাই যুবলীগ কর্মী মঞ্জু প্রতিবাদ করলে বাহারের ছেলে বেন্ডা ও স্থানীয় মজিবুল হক মাঝির ছেলেই সমাঈলের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী তাকে পিটিয়ে আহত করে। ওই ঘটনায় গত ১০ এপ্রিল মঞ্জু বাদী হয়ে চরজব্বার থানায় মামলা দায়ের করেন।

এর জের ধরে বুধবার রাতে স্থানীয় কাঞ্চনবাজারে ইউপি সদস্য বাহারউদ্দিন ও মজিবুল হক মাঝির ছেলে ফজলুল হক ফজলুর নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়।

পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় গুরতর আহত আবদুল মান্নান, আবুল কাশেম, মো. রাসেল ও হেলাল উদ্দিনকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবদুল মান্নানকে মৃত ঘোষণা করেন।

কৃষক আবদুল মান্নানের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য