“শিমুলিয়া-কাঠাঁলবাড়ী রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ”

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ

শফিকুল ইসলাম শামীম, রাজবাড়ী:

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ। এতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বাড়তি চাপ থাকায় ফেরি পারের অপেক্ষায় বিভিন্ন প্রকার যানবাহনের দীর্ঘ সারি। দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যানবাহন চালক ও সাধারণ যাত্রীদের। লোকসান গুনতে হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। 

দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের রাজধানীর সাথে যোগাযোগের প্রধান নৌরুট দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া। এই নৌরুট দিয়ে ২১ জেলার যানবাহন রাজধানীর সাথে যোগাযোগের প্রধান রুট। এই রুট ব্যবহার করে ২৪ ঘণ্টা ২ হাজার গণপরিবহন, ১৮শত পন্যবাহী ট্রাক ও প্রায় ৩হাজার প্রাইভেটকার ও মাক্রোবাস নদী পার হয়ে থাকে। তবে নদীতে তীব্র স্রোত থাকার কারণে প্রতিটি ফেরি দ্বিগুন সময় ব্যয় হচ্ছে। ফলে যানবাহন নদী পার হচ্ছে কম। 

এদিকে ঈদের ছুটি শেষে বাড়তি চাপ ও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুট বন্ধ থাকায় অতিরিক্ত চাপ থাকায় দৌলতদিয়া ঘাটে পারের অপেক্ষায় বিভিন্ন প্রকার যানবাহন রয়েছে। দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের প্রায় ৪কিঃমিঃ যানবাহনের একটি সারি রয়েছে। তবে প্রাইভেটকার ও মাক্রোবাস চলমান অন্য একটি সারি রয়েছে।  

এদিকে দীর্ঘ সময় পারের অপেক্ষায় থেকে গরমের মধ্যে যানবাহনের চালক ও যাত্রীদেও চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। শিশু বাচ্চা ও বয়স্ক মানুষের জন্য দুর্ভোগ বেশি হচ্ছে। এর মধ্যে কোন যানবাহনেই সামাজিক দুরত্ব বজাই রাখার বালাই নেই। মাস্ক ব্যবহার করতেও অনিহা দেখা যায় যাত্রীদের। 

চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকাগামি (ঢাকা মেট্রো-ড-১৪-৭২৮৪) ট্রাক চালক ইকরাম হোসেন বলেন, মিষ্টি কুমড়া নিয়ে ঢাকায় যাচ্ছি। কিন্ত দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে যানবাহনের দীর্ঘ সারি হওয়ার কারণে বসে আছি। কখন ফেরি পার হতে পারব বলতে পারছি না। তিনি আরো বলেন, ঘাটে দীর্ঘ সময় বসে থাকায় অতিরিক্ত টাকা ব্যয় হচ্ছে। অনেক পচনশীল মালগুলো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এতে মালের পার্টি আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
 
বেনাপোল থেকে ঢাকাগামি একটি কাভারভ্যান (ঢাকা মেট্ট্রো ন-১৩-২৪২১) চালক বিকাশ শাহা বলেন, জরুরী ওষুধ লোড। তারপরও দীর্ঘ সময় দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে। তিনি বলেন, ফেরি ঘাটে যদি প্রতিনিয়ত ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হয় তাহলে আমরা চলবো কিভাবে। 

গোল্ডেন লাইন যাত্রীবাহি পরিবহনের এক যাত্রী বলেন, দৌলতদিয়া ঘাটে ২ঘণ্টা ফেরি অপেক্ষায় রয়েছি। আরো কত সময় লাগবে ঠিক নিশ্চিত বলতে পারবো না। কেউ বলতে পারবে না। তিনি বলেন, একটি জায়গা যদি ২/৩ ঘণ্টা অপেক্ষা থাকতে হয় তাহলে অন্য কাজ করবো কখন।
 
বাংলাদেশ অভ্যান্তরীন নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহ ব্যবস্থাপক মো. মাহাবুব হোসেন জানান, অতিরিক্ত যানবাহনের কারণে দৌলতদিয়া ঘাটে কিছু গাড়ি ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। তিনি আরো জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বর্তমান ১৬টি ছোট বড় ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। দৌলতদিয়া পারে ৪টি ঘাট সচল রয়েছে। 

রাজবাড়ী এডিশনাল এসপি মোহাম্মদ সালাউদ্দিন জানান, ঈদের ছুটি শেষে বাড়তি চাপ ও নদীতে তীব্র স্রোত। এদিকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ। উভয় সমস্যার কারণে দৌলতদিয়া ঘাটে অতিরিক্ত গাড়ি। যে কারণে ফেরি পারের অপেক্ষায় কিছু যানবাহনের সারি রয়েছে। কোন ঘাট কোন যানজট নেই। গাড়িগুলো চলমান রয়েছে। 

 

 

মন্তব্য