মেসি নৈপুণ্যে কোয়ার্টারে বার্সা

অনলাইন ডেস্ক

মেসি নৈপুণ্যে কোয়ার্টারে বার্সা

নাপোলিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শীর্ষ আটে পৌঁছালো বার্সেলোনা। দ্বিতীয় পর্বে নাপোলিকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছে কাতালানরা। ফলে হোম ও অ্যাওয়ে ম্যাচ মিলিয়ে ৪-২ ব্যবধানের জয় নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলো কিকে সেতিয়েনের দল। ম্যাচে একটি করে গোল করেছেন মেসি, সুয়ারেজ ও লংলে।  

আলাভেসের বিপক্ষে লা লিগায় ৫-০ গোলের জয় এনে দেয়া দলটার উপর বোধহয় আস্থা রাখতে পারেননি বার্সেলোনা কোচ সেতিয়েন। তাইতো ছয় ছয়টি পরিবর্তন নিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নাপোলির মুখোমুখি হয় বার্সা। অন্যদিকে নাপোলির পরিবর্তন কেবল একটি। তবে, ফরমেশনের দিক দিয়ে দু'দলই এক। আর তা হলো ৪-৩-৩।

ম্যাচের আগে নাপোলিকে যথেষ্ট সমীহ করেই নিজেদের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে খেলতে নামে বার্সা। প্রতিপক্ষ শিবিরে চালায় একের পর এক আক্রমণ। দ্রুত গোলের দেখাও পেয়ে যায়। মাত্র ১০ মিনিটের মাথায় কিটিচের অ্যাসিস্টে স্বাগতিকদের স্কোর খাতায় নাম লেখান লংলে।

ম্যাচের দ্বিতীয় গোলটা আসে ফুটবল জাদুকর মেসির পা থেকে। ২৩ মিনিটে অসাধারণ নৈপুণ্যে কাতালানদের লিড দ্বিগুণ করেন এই আর্জেন্টাইন তারকা। ৩০ মিনিটে মেসির আরো একটি গোল হতে পারতো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভিএআর তা নো গোল হিসেবে চিহ্নিত করে। 

এরপর ম্যাচের ৩৯ মিনিটে ফাউলের শিকার হন মেসি। ডিবক্সের ভেতরে তাকে ফাউল করেন নাপোলি ফুটবলার কাওলিবালি। চোট পান মেসি। তার সেরে উঠতে যতটা না সময় লেগেছে তার চেয়েও কম সময় লেগেছে রেফারির বাঁশিতে কাতালানদের পক্ষে পেনাল্টির সুর বাজতে। ব্যস আর কি? তাতেই সুয়ারেজ বার্সার ব্যবধান করে দেন ৩-০।

বিরতির আগ মুহূর্তে কপাল খোলে নাপোলির। ডিবক্সের ভেতরে কিটিচের ভুলের কারণে পেনাল্টি যায় অতিথিদের পক্ষে। তাতেই লরেঞ্জো ব্যবধান কমান নাপোলির হয়ে।

বিরতির পর যেনো নতুন রূপে মাঠে ফেরে নাপোলি। পাল্টা আক্রমণ চালায় কাতালান শিবিরে। ৫৪ মিনিটে বেশ ভালো সুযোগও পায় স্কোর বাড়িয়ে নেয়ার। হেড দেয়ার চেষ্টা করেও শেষপর্যন্ত আর জালের ঠিকানা খুঁজে পাননি লরেঞ্জো। 

পরের সময়টায় দু'দল কেবল খেলোয়াড় পরিবর্তনেই সীমাবদ্ধ ছিলো। গোলের আর দেখা পায়নি কেউই। ফলে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-২ ব্যবধানে শীর্ষ আট নিশ্চিত করে বার্সেলোনা।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য