বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ২৬ মিনিট আগে

হাতিরঝিলে হাফ ম্যারাথন

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাতিরঝিলে হাফ ম্যারাথন

রাজধানীর হাতিরঝিলে দূরপাল্লার দৌঁড় প্রতিযোগিতা ‘ঢাকা হাফ ম্যারাথন ২০১৮’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সকাল ছয়টা থেকে নয়টা পর্যন্ত হাফ এবং মিনি- দুটি আলাদা বিভাগে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন দেশ-বিদেশের ৬২০ জন প্রতিযোগী। 

সকাল ৬টায় হাফ ম্যারাথন শুরুর ১৫ মিনিট পর শুরু হয় মিনি ম্যারাথন। প্রতিযোগীদের মধ্যে ৫০ জন ছিলেন বিদেশি নাগরিক। রাজধানী ঢাকাকে বিশ্ব দরবারে ইতিবাচকভাবে উপস্থাপন ও নাগরিকদের সুস্থভাবে জীবনযাপনে উৎসাহিত ঢাকা রান লর্ডস ও থাউজেন্ড মাইলস এক্সপেডিশন বাংলাদেশ নামের দুটি অ্যাডভেঞ্চার ও ক্রীড়া সংগঠন যৌথভাবে এ ম্যারাথন আয়োজন করে। 

হাফ ম্যারাথনে অংশ নেওয়া প্রতিযোগীরা ২১ দশমিক ১ কিলোমিটার দৌঁড়ান। এই পথ পাড়ি দিতে পুলিশ কনকর্ড প্লাজা থেকে গোটা হাতিরঝিল এলাকা তিন বার ঘুরতে হয়েছে তাদের। দৌঁড় শেষ করার জন্য হাফ ম্যারাথনের প্রতিযোগীদের বরাদ্দকৃত সময় ছিল ৩ ঘণ্টা। আর মিনি ম্যারাথনের প্রতিযোগীরা দৌঁড়েছেন ৭ কিলোমিটার। তারা একবার হাতিরঝিল এলাকা ঘুরে এসেছেন। তাদের জন্য বরাদ্দ ছিল ১ ঘণ্টা সময়। 

হাফ ম্যারাথনে অংশ নিয়ে পুরুষ ক্যাটাগরিতে প্রথম হন আবদুর রহমান। তিনি দৌঁড় শেষ করতে ১ ঘণ্টা ২৭ মিনিট সময় নেন।একই বিভাগের নারী ক্যাটাগরিতে প্রথম স্থান অধিকার করেন সিউতি সবুর। তিনি সময় নেন ২ ঘণ্টা ২৮ মিনিট। 

এদিকে, মিনি ম্যারাথনের সাধারণ ক্যাটাগরিতে ২৪ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে সবার আগে ফিনিশিং লাইন স্পর্শ করেন  শরিফুল ইসলাম। এই বিভাগের নারী ক্যাটাগরিতে প্রথম হন ভিনদেশী ক্লারা ডি গিরোলামো। 

ম্যারাথন শেষে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান খান। এমন একটি ‘পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর’ আয়োজনের জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সবাইকে জ্ঞাপন করেন। পুরস্কার বিতরণীতে আরো উপস্থিত ছিলেন ম্যারাথনের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা।  সামনের বছর বাংলাদেশে একটি পুরো ম্যারাথন আয়োজনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা। 

এসআরএ, নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য