ব্ল্যানচেটের প্রশংসিত কয়েকটি সিনেমা

অনলাইন ডেস্ক

ব্ল্যানচেটের প্রশংসিত কয়েকটি সিনেমা

অস্ট্রেলীয় অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেট, মাত্র ১০ বছর বয়সে পিতৃহারা এই অভিনেত্রীর জীবনটা সবসময়ই লড়াইয়ের। তার অভিনীত চরিত্রেও থাকে নারীর সেই আত্মপ্রতিষ্ঠার সংগ্রামের আলো। একসময় তিনি নিজেই জানতেন না ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে অভিনয় করবেন, শিল্পী হবেন, নাকি অন্যকিছু? অথচ মাত্র কয়েক বছরেই হলিউডের অন্যতম সেরা অভিনেত্রীদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন।

অসাম! বর্ণিল কর্মজীবনে মোট ছয়বার অস্কার ও বাফটায় মনোনয়ন পেয়েছেন। তার অভিনীত বিখ্যাত সিনেমা 'ব্লু জেসমিন'-এর মাধ্যমে অস্কারে সেরা অভিনেত্রীও নির্বাচিত হয়েছেন। 

বলা চলে, মুভিটি তার ক্যারিয়ারের নীলকান্ত জ্বলছে। শুধু অভিনয় দক্ষতা দিয়ে নয় ব্ল্যানচেট তার রূপ মাধুর্য এ বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন সৌন্দর্যের জ্বরে।


আরও পড়ুন: সাদেক বাচ্চুর মরদেহ নেওয়া হচ্ছে আল মারকাজুলে, তালতলায় দাফন


১৯৬৯ সালের ১৪ মে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরে জন্ম কেট ব্ল্যানচেটের। অভিনয়ের শুরুটা থিয়েটারে হলেও ১৯৯৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এলিজাবেথ মুভি দিয়ে সবার নজরে আসেন। মুভিটির জন্য একাডেমী অ্যাওয়ার্ডে মনোনয়নের সঙ্গে গোল্ডেন গ্লোবে সেরা অভিনেত্রীর সম্মান জিতেন। 

২০০০ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত পিটার জ্যাকসন পরিচালিত ব্লকবাস্টার হিট দ্য লর্ড অব দ্য রিংস সিরিজের তিনটি পর্বে এলফের রাণী গ্যালাড্রিয়েল চরিত্রে অভিনয় করেন। মুভিটি তাকে দ্বিতীয়বারের মতো গোল্ডেন গ্লোব এনে দেয়।

২০০৪-তে লিওনার্দো দ্যা ক্যাপ্রিওর সঙ্গে দ্যা অ্যাভিয়েটর মুভিতে অভিনয়ের জন্য অস্কারে সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী নির্বাচিত হন। আর ২০০৮-এ স্টিফের স্পিলবার্গের ইন্ডিয়ানা জোন্স এন্ড দ্য কিংডম অফ ক্রিস্টাল স্কাল মুভিটি দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌছে যান কেট ব্ল্যানচেট।

এরপর একে একে ভক্ত-দর্শকদের উপহার দিয়েছেন বাবেল, ট্রুথ, হেভেন, লিটিল ফিস, চ্যারেলের মতো ব্যবসা সফল সিনেমা। তবে ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ব্ল্যাক কমেডি ড্রামা ব্লু জেসমিনের জন্য অস্কার আসরে সেরা অভিনেত্রীর পুরষ্কার জয়ের মধ্যে দিয়ে নিজেকে নিয়ে গেছেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীদের কাতারে।

নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাজিম

মন্তব্য