গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডে শ্রদ্ধা কাপুরের পথচলা

অনলাইন ডেস্ক

গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডে শ্রদ্ধা কাপুরের পথচলা

২০১০ সালে তিন পাত্তি মুভির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয় অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কাপুরের। তবে তার ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট হয়ে দাড়াঁয় মোহিত সুরি পরিচালিত ‘আশিকি টু’।

আদিত্য রায় কাপুরের বিপরীতে শ্রদ্ধার জুটি বর্তমানের অন্যতম সেরা জুটি হিসেবেও বিবেচিত হয়। মাত্র ১২ কোটি রুপি বাজেটের ফিল্মটি মুক্তির আগেই মূলধন উঠিয়ে লাভ গুনতে শুরু করেছিল। প্রথম সপ্তাহে ৩৯ কোটি রুপি ঘরে তুলে আদিত্য-শ্রাদ্ধারা জানান দেন, আর পিছু ফিরে তাকানো নয়; এবার শুধুই এগিয়ে যাওয়ার পালা।

বোস্টন ইউনিভার্সিটিতে পড়াকালীন সময়েই শ্রাদ্ধা সিদ্ধান্ত নেন বলিউডে থিতু হবেন। নিজ সৌন্দর্য ও মেধার পরিচয় দিয়ে স্বল্প সময়েই প্রথম সারির অভিনেত্রীর কাতারে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। এক ভিলেন, এবিসিডি, হায়দার, বাঘির মতো ব্যবসা সফল সিনেমা দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌছেঁছেন।


আরও পড়ুন: যেভাবে বলিউডে উত্থান কারিনা কাপুরের


সাম্প্রতিক সময়েও শ্রদ্ধার ক্যারিয়ারের ঘোড়া ছুটছে দুর্দান্ত গতিতে। গেল বছরও সাহো এবং ছিছোরের মতো ব্লকবাস্টার হিট মুভি উপহার দিয়েছেন শ্রদ্ধা। চলতি বছরেও স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি ও বাগী থ্রি বক্সঅফিসে দারুণ ব্যবসা করে।

ওয়েল, বলিউডের অন অফ দ্যা মোস্ট প্রিটি এন্ড সাকসেসফুল অ্যাক্ট্রেস শ্রদ্ধা কাপুরের ক্যারিয়ার গ্রাফ নিয়ে আজ আরো জমিয়ে আলাপ হবে।

বলিউডে শ্রদ্ধা কাপুরের নামীদামী কোন মেন্টর না থাকলেও সমসাময়িক অভিনেত্রীদের থেকে কোন অংশেই পিছিয়ে নেই তিনি। বিগ বাজেট ফিল্ম মানেই যেন শ্রদ্ধা।

সাহো, স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি, বাঘি থ্রির মতো কয়েক শো কোটি বাজেটের মুভিতে কাজ করে নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। যদিও খ্যাতিমান খলনায়ক শাক্তি কাপুরের মেয়ে হিসেবে ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই যথেষ্ট প্রেশার ছিল তার উপর। তবে সেসব আমলে না নিয়ে একাগ্র মনে কাজ করে গেছেন শ্রদ্ধা। পেয়েছেন আকাশচুম্বী সাফল্য।

স্ট্যানিং! এতো অল্প সময়ে বিপুল পরিমাণ জনপ্রিয়তাই শ্রাদ্ধার অভিনয় দক্ষতার প্রমাণ দেয়। মাত্র ১০ বছরের ক্যারিয়ারে ফিল্মফেয়ার, স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ড, স্টার গিল্ড অ্যাওয়ার্ড সহ বহু সম্মাননা অর্জন করেছেন এই গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী।

২০১০ সালে থ্রিলার ফিল্ম তিন পাত্তি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় শ্রদ্ধা কাপুরের।তবে ২০১৩-য় মিউজিক্যাল ড্রামা ফিল্ম আশিকি টু দিয়ে বক্সঅফিসে ঝড় তোলেন শ্রদ্ধা ও আদিত্য রয় কাপুর জুটি।

২০১৪ মুক্তি পায় বিশাল ভারদ্বয়াজ পরিচালিত ক্রাইম থ্রিলার ফিল্ম হায়দার। মুভিটিতে শ্রদ্ধার অভিনয় সমালোচক মহলে বেশ প্রশংসিত হয়। ২০১৬তে টাইগারের বিপরীতে বাগী মুভিটি বক্সঅফিসে জমিয়ে ব্যবসা করে।

২০১৮ তে শ্রদ্ধা অভিনীত হরর কমেডি মুভি স্ত্রী বক্সঅফিসে  প্রায় ২০০ কোটি রূপি আয় করে। তবে গেল বছর প্রাভাসের বিপরীতে বিগ বাজেট মুভি সাহোর জন্য বেশ আলোচনায় ছিলেন তিনি।

গেল ডিসেম্বরে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ছিছোড়ে ও সুপারহিট ব্যবসা করে। চলতি বছরের শুরুতে মুক্তি পায় শ্রদ্ধার স্ট্রিট ড্যান্সার থ্রিডি এবং বাগী থ্রি। বর্তমানে লাভ রাঞ্জান পরিচালিত আপকামিং ফিল্মের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন শ্রদ্ধা।

নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাজিম

মন্তব্য