বাংলাদেশের ওপর ৫৪ হাজার রোহিঙ্গার বোঝা চাপানোর চেষ্টা

লাকমিনা জেসমিন সোমা

ছুটিতে আটকে পড়া সৌদি প্রবাসীদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ বাড়ানোর কথা বললেও সৌদি সরকারের পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন বিভাগ কিংবা অন্য কোনো অফিসিয়াল প্লাটফর্মে এখনো এমন কোনো নেটিশ দেওয়া হয়নি। কীভাবে কারা  ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর সুযোগ পাবেন, কবেই বা টিকিট পাবেন সেসবকিছুই জানেন না কর্মীরা। এমন সংকটের মধ্যেও দেশটিতে থাকা ৫৪ হাজার রোহিঙ্গার বোঝা বাংলাদেশের উপর চাপানোর চেষ্টা করছে সৌদি সরকার। যা কোনোভাবেই মানতে নারাজ বাংলাদেশ।

আন্দোলনের চতুর্থ দিনেও কারওয়ানবাজারে সৌদি এয়ারলঅইন্সের সামনে অবস্থান নেন সৌদি গমনিচ্ছু প্রবাসী কর্মীরা। টিকিটের জন্য ধরনা দেন হাজারো শ্রমিক। আগের রাতে আসা ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণার উপর আস্থা রাখতে পারছেন না তারা।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ঘোষণা দিলেও সৌদি সরকারের অফিসিয়াল প্লাটফর্মে এখনো এমন কোনো ঘোষণা আসেনি। টিকিট কালোবাজারির অভিযোগ তুলছেন বেশিরভাগ ভুক্তভোগী।

দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, আগামী পহেলা অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ বিমান কিংবা সৌদি এয়ারলাইন্স- উভয়েরই ফ্লাইট পরিচালনায় আরো কোনো বাঁধা নেই।

তবে ভিন্ন দিকে মোড় নিতে শুরু করেছে সৌদির সাথে বাংলাদেশের এই শ্রমবাজার সংকট। বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৫৪ হাজার রোহিঙ্গা সৌদি গিয়ে অবৈধভাবে বসবাস করছে উল্লেখ করে তাদের বাংলাদেশি পাসপোর্ট দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছে সৌদি সরকার।

অবৈধ রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে না আনলে অবৈধ বাংলাদেশিদেরও ফেরত পাঠানো হবে বলে হুমকির সুরে কথা বলছে সৌদি।

news24bd.tvতৌহিদ

মন্তব্য