কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে লঞ্চ দুর্ঘটনা

‘অর্ধেক ডুবে যাওয়া’ লঞ্চটি উদ্ধার, বাঁচল দুই শতাধিক যাত্রী

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

‘অর্ধেক ডুবে যাওয়া’ লঞ্চটি উদ্ধার, বাঁচল দুই শতাধিক যাত্রী

ড্রেজারের পাইপের সাথে ধাক্কা লেগে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটের পদ্মাসেতুর চ্যানেলমুখে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে একটি লঞ্চের তলা ফেটে যায়।

এসময় মাস্টার লঞ্চটি চরে ঠেকিয়ে রাখে। পরে কাঁঠালবাড়ী ঘাট থেকে অন্য লঞ্চ ও একটি ড্রেজার ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাত্রীদের উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন: ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে চলন্ত লঞ্চের তলা ফাটল

বিআইডব্লিউটিএসহ একাধিক সূত্রে জানা যায়, রোববার সন্ধ্যার পর শিমুলিয়া থেকে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে শ্রেষ্ঠ-২ নামের একটি লঞ্চ কাঁঠালবাড়ী ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। লঞ্চটি রাত আনুমানিক সোয়া ৮ টার দিক পদ্মাসেতুর চ্যানেলমুখে প্রবেশের সময় ড্রেজারের পাইপের সাথে ধাক্কা লেগে লঞ্চটির তলা ফেটে যায়।

আরও পড়ুন: যেভাবে মর্নিং বার্ড লঞ্চটির উপরে উঠে যায় ময়ূরী-২ (ভিডিও)

লঞ্চের তলা দিয়ে পানি ঢুকে লঞ্চটি প্রায় অর্ধেক ডুবে যায়। এসময় লঞ্চ মাস্টার লঞ্চটি চরে আটকে রাখে। পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ড্রেজার ও কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে একটি খালি লঞ্চ ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাত্রীদের উদ্ধার করে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে নিয়ে আসে। দুর্ঘটনা কবলিত লঞ্চটি উদ্ধার করা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএ কাঁঠালবাড়ি ঘাট পরিদর্শক আক্তার হোসেন বলেন, লঞ্চটি শিমুলীয়া থেকে কাঁঠালবাড়ী আসার পথে পদ্মাসেতুর চ্যানেলমুখে প্রবেশের সময় ড্রেজারের পাইপের সাথে ধাক্কা লেগে তলা ফেটে লঞ্চটি প্রায় অর্ধেক অংশ পানিতে তলিয়ে গিয়েছিল।

আরও পড়ুন: বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় নিহতদের পরিচয় মিলেছে

এসময় মাস্টার লঞ্চটি চরে আটকিয়ে রাখে। পরে একটি ড্রেজার ও কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে পাঠানো অন্য একটি লঞ্চ সকল যাত্রীদের অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করেছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য