চলন্ত বাস থেকে যাত্রীকে লাথি দিয়ে ফেলে হত্যা করল হেলপার

অনলাইন ডেস্ক

চলন্ত বাস থেকে যাত্রীকে লাথি দিয়ে ফেলে হত্যা করল হেলপার

চট্টগ্রামের জিইসিতে মাত্র ১ টাকা ফেরত চাওয়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে এক যাত্রীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জসিম উদ্দিন (৪৫) নামে হতভাগা ওই যাত্রীর বাড়ি পটিয়ার দক্ষিণ ছনহরা গ্রামে। বাবার নাম আলী নবীর।  নগরীর আগ্রাবাদ এলাকায় এইচএনএস অটোমোবাইলের ডেপুটি ম্যানেজার পদে কর্মরত ছিলেন তিনি।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে চট্টগ্রামের জিইসিতে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় বাসটির চালক ও হেলপার আরিফকে (১৯) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, গত শুক্রবার রাতে জিইসির মোড়ে ১০ নম্বর রুটের একটি বাসে যাত্রী জসিম উদ্দিনের সঙ্গে ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয় বাসের হেলপার আরিফের। এক পর্যায়ে হেলপার আরিফ যাত্রী জসিমকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে গুরুতর আহত হন জসিম উদ্দিন। আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে পার্কভিউ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাত তিনটার দিকে মারা যান জসিম উদ্দিন।

এই ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে বাসটির চালক রাকিব ও হেলপার আরিফকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে ঘটনাস্থলে থাকা লোকজন।

আরও পড়ুন: শর্তে অটল শ্রীলঙ্কা, সফর ‌‘বাতিল’ করল বাংলাদেশ

বাসটির হেলপার আরিফের ভাষ্য, ঘটনার দিন রাতে জসিম উদ্দিন আগ্রাবাদ থেকে বহদ্দারহাট যাচ্ছিলেন। এ সময় জিইসি পৌঁছালে তিনি আরিফকে ১২ টাকা ভাড়া দেন। তার ভাড়া ছিল ৭ টাকা। ৫ টাকা ফেরত পাওয়ার প্রত্যাশায় তিনি হেল্পারকে ১২ টাকা দেন। কিন্তু হেল্পার তাকে ৪ টাকা ফেরত দেয়। ১ টাকা কম হওয়ায় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কিল ঘুষির ঘটনা ঘটে। পরে হেলপার আরিফ জসিম উদ্দিনকে লাথি মেরে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেন। এতে জসিম মাথায় প্রচণ্ড আঘাত পান।

এই ঘটনায় চালক রাকিব ও হেলপার আরিফকে আটক করা হয়েছে বলে জানান খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিনুজ্জামান।

আরও পড়ুন: সিলেটে গণধর্ষণ: মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি ৫ দিনের রিমান্ডে

তিনি বলেন, জসিম আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাকালেই তাদের বিরুদ্ধে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এখন যেহেতু জসিম উদ্দিন মারা গেছেন সেহেতু এটিকে হত্যা মামলা হিসেবে গ্রহণ করার আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য