মাইক্রবাসের লক খুলে পালাল কিশোর বন্দী

রিপন হোসেন, যশোর

মাইক্রবাসের লক খুলে পালাল কিশোর বন্দী

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) এক বন্দী মাইক্রোবাসের লক খুলে পালিয়ে গেছে। আজ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের সামনে থেকে সে পালিয়ে যায়। পলাতক বন্দী কিশোরের নাম রাজু বিশ্বাস। পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ১১ সেপ্টেম্বর তাকে ফরিদপুর থেকে যশোর  শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

সে ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলার দেবকিনন্দপুর গ্রামের আব্দুল ওহাব বিশ্বাসের ছেলে। এ ঘটনায় যশোর কোতোয়ালী থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) তত্ত্বাবধায়ক  জাকির হোসেন বলেন, পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ১১ সেপ্টেম্বর ফরিদপুর থেকে ওই কিশোরকে যশোর কেন্দ্রে পাঠানো হয়।  তার বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট ছিল। চিকিৎসার জন্য সকালে কেন্দ্রের কর্মীদের সাথে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে সে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে যশোর কোতোয়ালি থানায় জিডি করা হয়েছে এবং আমাদের কর্মীরা তাকে খোঁজাখুঁজি করছে।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের মেডিকেল সহকারী নজির আহমেদ জানান, রাজু বিশ্বাসকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ডাক্তার সোলায়মান কবীরকে দেখানো হয়। এরপর তাকে কেন্দ্রের মাইক্রোবাসের ভেতরে রেখে বাইরে থেকে লক করে ওষুধ কিনতে যাই। ফিরে এসে দেখি সে গাড়িতে নেই। মাইক্রবাসের  লক খুলে সে পালিয়ে যায়।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য