মীমাংসার অজুহাতে ধর্ষিতাকে গণধর্ষণ: আকবর রিমান্ডে

দিলীপ কুমার মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ

মীমাংসার অজুহাতে ধর্ষিতাকে গণধর্ষণ: আকবর রিমান্ডে

ধর্ষিতা নারীকে মীমাংসার কথা বলে আরও ২ দফা গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার আলী আকবরকে (৫০) এক দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

আজ বিকেলে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে উঠানো হলে শুনানী শেষে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউছার আলম।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামি আলী আকবর আড়াইহাজারের নৈকাহন আখরপাড়া এলাকার মৃত. বছির উদ্দিন এর ছেলে।

১৪ অক্টোবর ২ সন্তানের জননী ওই বিধবা নারী বাদি হয়ে ছয়জনের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে ১৫ অক্টোবর সাকালে নৈকাহন এলাকা থেকে আলী আকবরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: মীমাংসার নামে ধর্ষিতাকে আবারও ধর্ষণ করল ৫ জন

মামলার সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় উপজেলার নৈকাহন বাজারের আনিসের মার্কেটে ওষুধ কিনতে জান দুই সন্তানের জননী ওই বিধবা নারী। এ সময় আলী আকবর ওই নারীকে ডাক দিয়ে বাজারের মাছের দোকানে নিয়ে যায়। পরে দোকানের সাটার বন্ধ করে ধর্ষণ করে। ওই নারী দোকান থেকে বের হতেই এলাকার মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে মোস্তফা (৫৫) ও আনারুল (৪০) লিটন (৩২) ঘটনা জানতে চান।

তারপর আপোষ করে দেওয়ার কথা বলে লিটনের পুকুর পাড়ে নিয়ে যায় ওই নারীকে। একই রাত সাড়ে ৮ টায় তিনজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে লিটন ফোন করে শাহীন (৩২) ও তরিকুল (৩৪) ডেকে এনে তারা নারীকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যেতে চায়।

আরও পড়ুন: খুঁটিতে বেঁধে জামাতার গলা-হাত-পা কেটে টুকরো করে শ্বশুর

এতে রাজি না হওয়ায় শাহীন ও তরিকুল নারীকে জোর করে রাত সাড়ে ১০ টায় একই এলাকার আলী হোসেনের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদে নিয়ে ধর্ষণ করে। পালাক্রমে ধর্ষণের শিকার হওয়ার পরও বিধবা নারী লোকলজ্জায় ও ছেলে মেয়ের কথা চিন্তা করে ঘটনা গোপন রাখে। কিন্তু পরে স্থানীয় লোকজনের সাথে আলোচনা করে ১৪ অক্টোবর রাতে আড়াইহাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

রিমান্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশ (এসআই) অঞ্জুন বলেন, মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে আসামিকে ১ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ভুয়া কাজিতে বিয়ে, ছাত্রীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ, অন্তরঙ্গ ছবি উদ্ধার

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য