অভিযোগ আর অভিযোগ

নাহিদ জিহান

অভিযোগ আর অভিযোগ

কোভিড ১৯ মোকাবিলায় সারাবিশ্বের বিশেষজ্ঞরা যখন মাস্ক পরতে বলছেন, তখন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবার সরাসরি, মাস্ক ব্যবহার না করতে তার সমর্থকদের আহ্বান জানান।

অন্যদিকে, ডেমোক্রেট নেতা জো বাইডেন এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পকে আবারো করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ব্যর্থ বলে দাবী করেন। একইসঙ্গে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়ানোর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রে ৮৬ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টির প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।   

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজে মাস্ক ব্যবহার করেন না, এমনকি তার সহযোগী সহ বেশিরভাগ সমর্থকরাও করেন না। এতোদিন পর্যন্ত ট্রাম্প বলেছেন, মাস্ক ব্যবহারের বিষয়টি ব্যক্তি স্বাধীনতা। কিন্তু বৃহষ্পতিবার নর্থ ক্যারোলাইনায় তিনি সমর্থকদের উদ্দেশ্যে সরাসরি মাস্ক ব্যবহার না করার পরামর্শ দিলেন। বলেন, মাস্ক ব্যবহারকারীরাই ভাইরাসটিতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।

এছাড়া একইসঙ্গে্ ট্রাম্প তার সময়ের অর্থনৈতিক সফলতার বৃত্তান্ত দিয়ে বলেন, জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে চীনের জয় হবে, পরাজিত হবে যুক্তরাষ্ট্র।

ট্রাম্প বলেন, ’জো বাইডেন একজন দুর্নীতিবাজ রাজনীতিবিদ। গেলো ৪৭ বছরের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে তিনি দেশের জন্য কিছুই করেননি। মার্কিনীদের কাছে বাইডেনের ভোট নয়, ব্যর্থতার জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত।’ 


আরও পড়ুন: সংঘবদ্ধ হয়ে মিডিয়া বয়কটের ডাক স্বৈরতান্ত্রিক


কথাছিলো ১৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্ক। কিন্তু ট্রাম্প ও বাইডেন দুজনই তা বাতিল করে দেন। এর পরিবর্তে উভয়ই হাজির হলেন দুটি ভিন্ন টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে। এবিসি টিভিতে জো বাইডেন এবং এনবিসি নিউজে ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফিলাডেলফিয়ায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে জো বাইডেন বলেন দেশে কর্মসংস্থান ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়াবেন।

এদিকে বাইডেন বলেছেন ’প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে দেশে ৮৬ লাখ নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবো। একইসঙ্গে করপোরেট ট্যাক্স বাড়ানো হবে মূলত ধনী শ্রেণির জন্য, যারা দেশের মোট জনসংখ্যার মাত্র এক শতাংশ। মধ্যবিত্তের জন্য বাড়ানো হবে আয়কর সুবিধা।’ 

এছাড়া প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে করোনা মোকাবিলায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ বলে উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, তিনি দেশকে বিজ্ঞানের পরিবর্তে ভুল পথে পরিচালিত করেছেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য