বোরকা পরে পূজামণ্ডপে 'সিজদা' করল নারী অতঃপর...

অনলাইন ডেস্ক

বোরকা পরে পূজামণ্ডপে 'সিজদা' করল নারী অতঃপর...

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বোরকা পরে পূজামণ্ডপে 'সিজদা' দেওয়ার সময় আলেয়া (৪০) নামে এক নারীকে আটক করে আনসার ও ভিডিপির টহলদল। পরে তাঁকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। তিনি উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হারুনের স্ত্রী।

শনিবার (২৪ অক্টোবর) রাতে উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের পশ্চিম নওদাবাস বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দির থেকে তাঁকে আটক করে  আনসার ও ভিডিপি টহলদল। ওই নারী মাজার ও তরিকার ভক্ত বলে জানায় পুলিশ।

আরও পড়ুন


আট বছরের শিশু ধর্ষণ, ক্ষতস্থানে চার সেলাই


হাতীবান্ধা উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের পশ্চিম নওদাবাস বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দিরে পূজা চলাকালীন 'সিজদা' দেওয়া শুরু করে আলেয়া নামের বোরকা পরিহিত ওই নারী।

এমনকি যারা ঢোল-তবলা বাজায়, তাদের সঙ্গে উল্টাপাল্টা আচরণও শুরু করেন তিনি। এ সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে। পরে পাশে অবস্থানরত আনসার ও ভিডিপি টহলদল খবর পেয়ে মন্দিরে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ করে।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম জানান, শুনেছি পূজামণ্ডপে বোরকা পরে সিজদা করে ওই নারী। আনসার ও ভিডিপি টহলদল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। এ ছাড়া শুনেছি ওই নারী মাজার ও তরিকার ভক্ত। পরে ওই নারীকে টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ফজলুল হকের জিম্মায় দেয়া হয় বাড়িতে পৌঁছে দিতে।

news24bd.tv কামরুল

মন্তব্য