মুন্সীগঞ্জে ইয়াবাসহ ৭ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

মুন্সীগঞ্জে ইয়াবাসহ ৭ রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার

মুন্সীগঞ্জে ইয়াবাসহ ৭ রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা পুলিশ। এর মধ্যে ৬ জন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন। আজ রোববার সকালে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 

এর আগে তাদের শনিবার জেলা শহরের মুক্তাপুরের একটি ভাড়া বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন, নূর বেগম (৫০), তার দুই মেয়ে আজু বেগম (৩৫) ও নুরজাহান (১৯), ছেলের বউ জিয়া বল (৩০) এবং সুমাইয়া আক্তার (১৬), সাকিলা (২৫) ও নুর কায়দা (১৫)।

এছাড়াও রোহিঙ্গাদের সহযোগিতার অভিযোগে জেলার লৌহজং উপজেলার গোয়ালিমান্দ্রা গ্রামের মো. রাদেশ (রাজেশ) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৯০০ পিস ইয়াবা, নগদ ৯০ হাজার টাকাসহ ৩টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিচুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মুক্তারপুরের ভাড়া বাসা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটকের সময় প্রত্যেকের কাছে ইয়াবা ছিল। 

তারা মিয়ানমারের বাস্তুচ্যূত রোহিঙ্গা। টেকনাফের লেদা ক্যাম্প ২৪ নম্বরের অস্থায়ী বাসিন্দা। দীর্ঘদিন ধরে তারা মুন্সীগঞ্জসহ নানা জায়গায় ইয়াবা বিক্রি করে আসছিল। পুলিশ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা করেছে। আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv কামরুল

মন্তব্য