‘একজন যোদ্ধা কখনো হারে না; জেতে, না হয় শেখে’

সাদিয়া নাসরিন

‘একজন যোদ্ধা কখনো হারে না; জেতে, না হয় শেখে’

সব লড়াই দিন শেষে কৌশলের। সমুখ শত্রুকে চিনে নিয়ে তাকে পথ ছেড়ে দিয়ে এপারেন্টলি জিতিয়ে দিতে হয়। অহমকে ছেড়ে দিতে হয়। হাসিমুখে নিজের হার মেনে নিতে হয়। কারণ, এইসব ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র হার দীর্ঘমেয়াদে একজন দূরদর্শী সেনাপতির কাজ করে।

কীভাবে? ছোট ছোট জয়ের জন্য যখন প্রতিপক্ষ মরিয়া হয়ে ব্যস্ত থাকবে, শক্তি ক্ষয় করবে, সম্পদ ক্ষয় করবে, সেই সময়টাকে কাজে লাগিয়ে তুমি তোমার কৌশলের ফাঁকগুলো চিনতে শিখবে, ভুলগুলো স্বীকার করতে পারবে এবং পরবর্তী ধাপের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করবে। এভাবে বড় জয়ের লক্ষ্য ও কৌশল ঠিক করে নিতে পারবে।

একজন যোদ্ধা কখনো হারে না। হয় জেতে, না হয় শেখে। সুতরাং দীর্ঘমেয়াদে জিততে হলে মাঝে মাঝে তোমাকে ক্ষুদ্র জয়ের লোভ ছাড়তে হবে। সে পর্যন্ত লড়াইয়ের দমটা ধরে রাখতে হবে।

দিন শেষে লড়াইটা কিন্তু অন্যায় আর ন্যায়ের। আর ন্যায়সংগত লড়াইয়ে একজন যোদ্ধার দলবল প্রয়োজন হয় না, কারো আনুকূল্য দরকার হয় না। নৈতিকতা আর সততাই তার ঢাল-তলোয়ার হয়ে কাজ করে।

প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব একটা বিপ্লব থাকে। তার জন্য সবসময় সংঘবদ্ধ হওয়ার দরকার নেই। শুধু লক্ষ্যে স্থির থাকতে হয়। 

সাদিয়া নাসরিন, উন্নয়ন কর্মী। (ফেইসবুক থেকে সংগৃহীত)

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য