কুমিল্লায় ধর্ষণে প্রতিবন্ধী কিশোরী ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

অনলাইন ডেস্ক

কুমিল্লায় ধর্ষণে প্রতিবন্ধী কিশোরী ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়ায় ধর্ষণের শিকার হওয়া এক প্রতিবন্ধী কিশোরী (২০) চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে আবুল হাসান (৫৫) নামে এক জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে শনিবার (২৪ অক্টোবর) রাতে একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতেই কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকা থেকে অভিযুক্ত আবুল হাসানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

গ্রেপ্তার হওয়া আবুল হাসন ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর গ্রামের বাসিন্দা। তাকে রোববার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে কুমিল্লা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এরপর আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। 

এদিকে, ভুক্তভোগী কিশোরী রোববার সকালে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আদালতে ২২ ধারায় জবান বন্দি দিয়েছেন। 

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ব্রা‏হ্মণপাড়া উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়ন এলাকার কিশোরীর সৎবোনের স্বামী আবুল হাসান। গত ৫ মে কিশোরীর সৎবোন অসুস্থ হওয়ায় সহজ ও সরল প্রকৃতির কিশোরীকে বোনের দেখা শোনার জন্য বাড়িতে নিয়ে আসে আবুল হাসান। তিনি তার বাড়িতে বিভিন্ন সময়ে ওই কিশোরীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। ধীরে ধীরে ওই কিশোরী অসুস্থ হতে থাকে। শনিবার কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষায় দেখা যায় ওই কিশোরী চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে আবুল হাসান এর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে ব্রা‏হ্মণপাড়া থানায় দায়ের করেছে। শনিবার রাতেই ব্রা‏হ্মণপাড়া থানা পুলিশ কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকা থেকে আবুল হাসানকে গ্রেফতার করেছে। 

ব্রা‏‏হ্মণাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী কিশোরী চারমাসের অন্তঃসত্ত্বা। সে সহজ ও সরল প্রকৃতির। এ ঘটনায় থানায় আবুল হাসান এর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে এবং আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতনের ২২ ধারায় জবান বন্দি দিয়েছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য