দেশে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে ডায়াবেটিস রোগী

হাসান পারভেজ

দেশে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। মোট জনসংখ্যার প্রায় ৯ শতাংশ বা ৮০ লাখের বেশি ডায়াবেটিকস রোগী। আর প্রি ডায়াবেটিস রোগী আছে ২৩ শতাংশ।

এদিকে ডায়াবেটিস চিকিৎসা করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে অস্বচ্ছল পরিবার। এক গবেষণায় উঠে এসেছে একজন রোগীকে প্রতিমাসে গড়ে দুই হাজার টাকা খরচ করতে হয়।

সেই হিসেবে  প্রতি বছরে খরচ হচ্ছে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা। এমন পরিস্থিতিতে আজ শনিবার দেশে পালিত হচ্ছে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস।

ঢাকার বারডেম হাসপাতালটি  ডায়াবেটিক রোগীদের চিকিৎসার জন্য দেশের সবচেয়ে বড় হাসপাতাল। প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শত-শত মানুষ এখানে আসেন চিকিৎসার জন্য।

সেন্টু মিয়া তেমনই একজন। এসেছেন নরসিংদী থেকে। গত ৫ বছর ধরে ডায়াবেটিসে ভুগছেন। চিকিৎসার খরচ চালাতে গিয়ে নাভিশ্বাস উঠেছে তার।

বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির ২০১৮ সালের এক জরিপে বলছে, দেশে ৮০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে ভুগছেন। তবে এ সংখ্যাটি ১ কোটির উপরে। সেই গবেষণায় উঠে এসেছে একজন রোগিকে গড়ে প্রতিমাসে খরচ করতে হয় ২ হাজার টাকা। তাহলে দেশে এই রোগের চিকিৎসায় বছরে ২০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নন-কমিউনিক্যাবল ডিজিজ কন্ট্রোল প্রোগ্রাম বলছে, ১৯৯৫ সালের দিকে দেশে মোট জনসংখ্যার ৪ শতাংশ ডায়াবেটিকস রোগি ছিল।বর্তমানে এই হার ৮.৪। যদি প্রতিরোধ না করা যায় তাহলে ২০৩০ সালে এই হার হবে ১৩ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যাপক বিস্তার ঘটা এই রোগ প্রতিরোধে দরকার জাতীয় নীতিমালা প্রণয়ন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য