দেশ টিকবে কিনা সেটা নিয়ে মানুষ দু:শ্চিন্তায় আছে: গয়েশ্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট করুন printer
দেশ টিকবে কিনা সেটা নিয়ে মানুষ দু:শ্চিন্তায় আছে: গয়েশ্বর

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি নাকি লাইফ সাপোর্টে আছে। আমি বলি, পুরো দেশটাই তো তারা লাইফ সাপোর্টে রেখেছেন।

তিনি বলেন, এখন আলাদাভাবে কোনো ব্যক্তি, কোনো দল লাইফ সাপোর্টে আছে তা নির্ণয় করা কঠিন। কারণ দেশ টিকবে কিনা সেটা নিয়ে মানুষ দু:শ্চিন্তায় আছে।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে  বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান তারেক রহমানের ৫৬তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দল এ দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে।

বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, রক্ত দিয়ে অর্জিত বাংলাদেশ। সেই দেশ আজ জনগণের হাতে নেই। আপনি রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আছেন, দেশটা তো আপনার হাতে নেই। আপনি তো প্রধানমন্ত্রী নয়, আপনি তো পুতুল। আপনিতো নাচেন। আপনাকে কে নাচায় তা আপনি ভালো জানেন। সুতরাং গণভবনে আমরা পুতুল নাচ দেখছি। কে লাইফ সাপোর্টে আছে, সেটা যদি অনুধাবন করতে পারতেন তাহলে অনেক আগেই মন্ত্রিসভা ছেড়ে দিতেন।


আরও পড়ুন: করোনা: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু


তিনি বলেন, দলের অনেকে বলেন আগামী দিনের নেতা তারেক রহমান। আমি আপনাদের এ কথার সঙ্গে একমত নই। তারেক রহমান ইতোমধ্যেই তো আমাদের নেতা। তারেক রহমানের সম্ভাবনা কতটুকু তা নিয়ে আমরা যতটুকু গুরুত্বের সঙ্গে ভাবি। তার থেকে বেশি গুরুত্বের সঙ্গে ভাবেন আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনা।

তিনি আরও বলেন, অনেকে বলেন তারেক রহমান বিদেশে থেকে কি করবে? আমি বলি, শেখ মুজিব জেলে ছিলেন, দেশ স্বাধীন হয় নাই? তারেক রহমান দেশের বাইরে থাকলে গণতন্ত্র উদ্ধার হবে না, এ চিন্তা আপনারা কোথায় পেলেন? তিনি তো দৃশ্যত বাইরে আছেন। কিন্তু প্রতিনিয়ত আপনার আমার অন্তরে আছেন, ভাবনায় আছেন, চিন্তায় আছেন, চেতনায় আছেন। প্রতিদিন, প্রতি মুহূর্তে তার সঙ্গে আমরা রাজনৈতিক আলোচনা করছি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সভাপতি কাজী মো. আমির খসরুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বাদলের সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও দফতরের চলতি দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি আনোয়ার হোসাইন, দক্ষিণ শ্রমিক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন ভূঁইয়া প্রমুখ।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য