জম্মু-কাশ্মীরে সেনা টহল টিমে হামলা, ২ জওয়ান নিহত

অনলাইন ডেস্ক

প্রিন্ট করুন printer
জম্মু-কাশ্মীরে সেনা টহল টিমে হামলা, ২ জওয়ান নিহত

জম্মু-কাশ্মীরের শ্রীনগর-বারামুল্লা মহাসড়কে সেনাবাহিনীর টহলরত দলের উপরে অজ্ঞাত গেরিলা হামলায় দুই সেনা জওয়ান নিহত হয়েছেন।

আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেলে ওই তথ্য দিয়ে পুলিশ জানিয়েছে, শ্রীনগরের এইচএমটি এলাকায় এই হামলা চালানো হয়েছিল।

আজ এনডিটিভি হিন্দি ওয়েবসাইটে প্রকাশ, শ্রীনগরের খুসিপোরা এইচএমটি এলাকায় সেনাবাহিনীর কুইক রিঅ্যাকশন টিমের (কিউআরটি) উপরে  অজ্ঞাত গেরিলারা এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করে।

সংশ্লিষ্ট এলাকা জনাকীর্ণ অঞ্চল হওয়ায় কোনও বেসামরিক লোককে হতাহতের হাত থেকে বাঁচাতে অভিযানের সময় সেনাবাহিনীকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হচ্ছে।

আজ গেরিলা হামলায় দুই সেনা জওয়ান গুরুতর আহত হলে তাঁদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তারা মারা যান।  

নিরাপত্তাবাহিনী গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে হামলাকারীদের সন্ধানে ব্যাপক তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে।

গণমাধ্যমের একটি সূত্র বলছে, হামলাকারী গেরিলারা একটি মারুতি গাড়িতে করে এসে সেনা জওয়ানদের উপরে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে সমর্থ হয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনী তাদের গাড়িকে ধাওয়া করে পাকড়াও করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

কাশ্মীর পুলিশের মহাপরিদর্শক বিজয় কুমারের মতে, প্রাথমিক তদন্তে ওই  হামলার পিছনে জৈশ-ই-মুহাম্মাদ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর হাত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ওই হামলার পরে কাশ্মীরের আইজি বলেন, তিন সন্ত্রাসী আমাদের জওয়ানদের উপরে গুলি চালায়। দু'জন সেনা গুরুতর আহত হয়ে পরে মারা যান।  জৈশ-ই-মুহাম্মাদ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এখানে খুব সক্রিয়। সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা গাড়িতে পালিয়ে যায়। তাদের মধ্যে দু’জন সম্ভবত পাকিস্তানি এবং একজন স্থানীয়।

আরও পড়ুন: ৬ গর্ভবতী স্ত্রীকে নিয়ে বিয়ের আসরে স্বামী!

সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র বলেন, আজ বিকেলে শ্রীনগরের আবান শাহ চকে  খুশিপোরা এইচএমটি এলাকায় ভারতীয় সেনার একটি কুইক রিঅ্যাকশন টিমের (কিউআরটি) উপরে সন্ত্রাসীরা নির্বিচারে গুলি চালায়। এলাকাটি জনাকীর্ণ অঞ্চল হওয়ায় নাগরিকরা যাতে হতাহত ও তাদের ক্ষয়ক্ষতি না হয় সেজন্য সংযম অবলম্বন করা হচ্ছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য