পোল্যান্ডে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ, আক্রান্ত হচ্ছেন বহু বাংলাদেশি!

রাকিব হাসান রাফি

পোল্যান্ডে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ, আক্রান্ত হচ্ছেন বহু বাংলাদেশি!

পূর্ব ইউরোপে অবস্থিত ১,২০,৭৩৩ বর্গমাইল আয়তনের দেশ পোল্যান্ড। আয়তনের দিক থেকে দেশটি গোটা ইউরোপে নবম বৃহত্তম রাষ্ট্র। সর্বশেষ ২০১৯ সালের জনগণনা অনুযায়ী দেশটিতে প্রায় চার কোটির মতো মানুষ বসবাস করেন।

ওয়ারশ পোল্যান্ডের রাজধানী ও বৃহত্তম নগরী। পোল্যান্ডের জাতীয় মুদ্রার নাম জোলিটি। পশ্চিমে জার্মানি, দক্ষিণে চেক রিপাবলিক ও স্লোভাকিয়া, পূর্বে ইউক্রেন ও বেলারুশ উত্তরে বাল্টিক সাগর, লিথুয়ানিয়া ও রাশিয়া দ্বারা পরিবেষ্টিত এ দেশটি একটি ঐতিহাসিক অঞ্চল হিসেবেও সমাদৃত। ষোড়শ শতাব্দীর শেষের দিকে জাগিয়েলনীয় রাজবংশের তত্ত্বাবধায়নে পোল্যান্ড ইউরোপের অন্যতম এক পরাশক্তির দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। তবে ভৌগলিক অবস্থান এবং সমৃদ্ধশালী ইতিহাসের জন্য দেশটি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সাম্রাজ্যের শাসকদের দ্বারা আগ্রাসনের শিকার হয়।

এমনকি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনা ঘটে হিটলারের নাৎসি বাহিনী কর্তৃক পোল্যান্ড আক্রমণের মধ্য দিয়ে। আবার নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে পোল্যান্ড সর্বপ্রথম রাষ্ট্র হিসেবে সোভিয়েত ইউনিয়নের বলয় থেকে নিজেদেরকে প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেয় এবং কার্যতভাবে পোল্যান্ডের এ ঘোষণার মধ্য দিয়ে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন শুরু হয়। মেরি মাদাম কুরী, খ্রিস্টান ধর্মগুরু জন পল, নিকোলাস কোপার্নিকাস, অ্যাডাম মিকিউইকজ, ফ্রেদেরিক শোপা থেকে শুরু করে বিশ্ববরেণ্য অনেক ব্যক্তিত্বের জন্ম হয়েছিলো পোল্যান্ডে। ১৯৯৯ সালে পোল্যান্ড ন্যাটো এবং ২০০৪ সালে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্যপদ লাভ করে। ওয়ারশ, ক্র্যাকো, জিদান্স্ক, পোজনান, রাক্লোসহ পোল্যান্ডের বিভিন্ন শহরের ওল্ড টাউনগুলোর সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রত্যেক বছর হাজারো পর্যটকের সমাগম হয় দেশটিতে।


আরও পড়ুন: বিশ্বের ব্যয়বহুল ১০ শহর


ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর মাঝে পোল্যান্ডে জীবনযাত্রার ব্যয় তুলনামূলকভাবে কম। এমনকি দেশটির বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও অনেক কম খরচে পড়াশুনা করা যায়। এ কারণে বর্তমানে বাংলাদেশ, ভারত, চীন, পাকিস্তানসহ বিশ্বের উন্নয়নশীল অনেক দেশের শিক্ষার্থীদের কাছে পোল্যান্ড উচ্চশিক্ষার জন্য এক পছন্দের গন্তব্য হয়ে উঠেছে। এছাড়াও বিনিয়োগবান্ধব অভিবাসন নীতির কারণে ব্যবসায়িক সূত্রে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অনেকে অভিবাসী হিসেবে পোল্যান্ডে পাড়ি জমাচ্ছেন। এক সময় ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় পোল্যান্ডে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা মিলতো অনেক সহজে। বাংলাদেশ থেকেও কাজের ভিসায় অনেকে পোল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছেন। 

ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত অন্য কোনও দেশের ভিসা কিংবা রেসিডেন্ট পারমিট নিয়েও পোল্যান্ডে এসে অনেকে ওয়ার্ক পারমিটের মাধ্যমে সে দেশে থেকে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছন যদিও বর্তমানে দেশটির সরকারের গৃহীত কিছু পদক্ষেপের কারণে এ ধরণের সুযোগ অনেকটা সঙ্কুচিত হয়ে পড়েছে।

করোনার ভয়াল থাবা থেকেও নিষ্কৃতি পায় নি  ইউরোপের এ দেশটি। গত চার মার্চ পোল্যান্ডের জিয়েলোনা গোরাতে জার্মানি ফেরত ৬৬ বছর বয়স্ক এক ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর থেকে ধীরে ধীরে দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে। তবে ফার্স্ট ওয়েভে অর্থাৎ মার্চ থেকে শুরু করে জুন এ চার মাসে ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, রাশিয়াসহ ইউরোপের অন্যান্য দেশে আমরা করোনার প্রভাবে যেখানে হাজারো মানুষের মৃত্যুর মিছিল দেখেছি সেখানে ফার্স্ট ওয়েভে পোল্যান্ডে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কিংবা করোনার প্রভাবে মৃত্যুবরণকারী রোগীর সংখ্যা ছিলো তুলনামূলকভাবে অনেক কম।

সেকেন্ড ওয়েভে এসে দেশটির পরিস্থিতি একেবারে উল্টো পথে হাঁটতে শুরু করে। বর্তমানে সংক্রমণের হার বিবেচনায় পোল্যান্ডকে ইউরোপের অন্যতম হটস্পট বললেও ভুল হবে না। ওয়ার্ল্ড ও মিটার্স ডট ইনফো কর্তৃক প্রকাশিত সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী এখন পর্যন্ত পোল্যান্ডে সর্বমোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯,৮৫,০৭৫ জন।

এছাড়াও প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত পূর্ব ইউরোপের এ দেশটিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ১৭,০২৯ জন এবং চিকিৎসা শেষে সুস্থ্য হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৫,৫৯,৪২৯ জন। গড়ে প্রতিদিন দেশটিতে পনেরো হাজারের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং পাঁচশোর অধিক মানুষ মৃত্যুবরণ করছেন।

অথচ ফার্স্ট ওয়েভে অর্থাৎ মার্চ থেকে শুরু করে জুন পর্যন্ত সময়ে দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা ছিলো ৩৪,০০০ এর কিছু বেশি। বলাবাহুল্য শীতের আগমনের সাথে সাথে পোল্যান্ডে সেকেন্ড ওয়েভে আশঙ্কাজনকভাবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশটির গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী গ্রীষ্মকালীন সময়ে অবকাশ যাপনের কেন্দ্রগুলোতে এক সাথে অধিক মানুষের সমাগম ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে দেশটির জনসাধারণের অসচেতনতা মূলত সেকেন্ড ওয়েভে দেশটি করোনা সংক্রমণ বিস্তারের প্রধান কারণ।

আরও পড়ুন: ক্রোম ব্রাউজারের যত হিডেন ফিচার

সঠিকভাবে উল্লেখ করা সম্ভব না হলেও পোল্যান্ডে সব মিলিয়ে তিন থেকে চার হাজার বাংলাদেশির বসবাস, যাদের বেশিরভাগই পোল্যান্ডে এসেছেন শিক্ষার্থী হিসেবে যদিও শেষ পর্যন্ত অনেকে পড়াশুনা শেষ না করে ওয়ার্ক পারমিটের মাধ্যমে তাদের ভিসার প্রকৃতি পরিবর্তন করেছেন। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত অন্য কোনও দেশের ভিসা বিশেষত স্টুডেন্ট ভিসা কিংবা টেম্পোরারি রেসিডেন্ট পারমিট নিয়েও পোল্যান্ডে এসে ওয়ার্ক পারমিটের মাধ্যমে অনেক বাংলাদেশি সে দেশে থেকে গিয়েছেন।

ব্যবসায়িক সূত্রেও অনেকে বাংলাদেশ থেকে পোল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছেন। ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় এক সময় পোল্যান্ডে অনেক সহজে রেস্টুরেন্ট কিংবা কাবাব শপ চালু করা যেতো। পোল্যান্ডে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের বেশিরভাগই রেস্টুরেন্ট ব্যবসার সাথে জড়িত। এদের মাঝে কেউ কেউ রেস্টুরেন্ট কিংবা কাবাব শপের মালিক, কেউ আবার এ সকল রেস্টুরেন্ট কিংবা কাবাবশপে কর্মচারী হিসেবে কাজ করেন। ওয়ারশ, রক্লো এবং পোজনান পোল্যান্ডের এ তিনটি শহরে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক বাংলাদেশি বসবাস করেন। রাজধানী ওয়ারশতে বাংলাদেশের স্থায়ী দূতাবাসও রয়েছে।  

পোল্যান্ডে অবস্থিত আন্তর্জাতিক শিক্ষা বিষয়ক পরামর্শদাতা এডুএক্সপ্লোরের সিইও প্রকৌশলী আহমেদ রাজ বিন আইয়ুবের সাথে কথা বলে জানা গেলো যে দেশটিতে সেকেন্ড ওয়েভে অনেক বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। এমনকি কয়েক দিন পূর্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটির অন্যতম শহর রাক্লোতে চল্লিশোর্ধ্ব এক বাংলাদেশির মৃত্যুও হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন। রাজ নিজেও করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন।

তিনি বলেন,অক্টোবর মাসের শেষের দিকে হঠাৎ করে তিনি তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করেন। কয়েক দিন পর তিনি লক্ষ্য যে তিনি খাবারে আগের মতো স্বাদ অনুভব করছেন না এবং এক পর্যায়ে তাঁর শরীরে জ্বরের উপসর্গ দেখা যায়। তিনি কোভিড-১৯ টেস্ট করান এবং ফলাফল পজিটিভ আসে। তাঁর সাথে থাকা আরও দুই বাংলাদেশিও একই সময়ে করোনা ভাইরাসে আকান্ত হয়েছিলেন বলে তিনি জানিয়েছেন। যদিও প্রায় এক মাস অসুস্থ্য থাকার পর তিনি কয়েক দিন পূর্বে সুস্থ্য হয়ে উঠেছেন তবে করোনা পরবর্তী বিভিন্ন জটিলতা এখনও তাকে ভুগাচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দেশটিতে বসবাস করা আরও এক বাংলাদেশি জানান সেকেন্ড ওয়েভে এসেও দেশটিতে বসবাসরত বাংলাদেশিদের মাঝে করোনা নিয়ে তেমন একটা সচেতনতা কাজ করছে না। অনেকের শরীরে করোনার উপসর্গ থাকার পরেও তারা বিষয়টিকে তেমন একটা গুরুত্ব সহকারে দেখছেন না, এমনকি নিকটস্থ হাসপাতালে গিয়েও করোনার টেস্ট করাচ্ছেন না বলে তিনি তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন। সেকেন্ড ওয়েভে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে দেশটির সরকার সকল বার রেস্টুরেন্ট ও কফিশপ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। তবে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী কোনও রেস্টুরেন্ট চাইলে পার্সেল খাবার বিক্রি করতে পারবে। এ সুযোগে অনেক বাংলাদেশির শরীরে করোনা উপসর্গ থাকার পরও তারা যথার্থ চিকিৎসা গ্রহণ না করে রেস্টুরেন্ট কিংবা কাবাবের শপগুলোতে ছুটে যাচ্ছেন কাজের জন্য।

সবশেষে তিনি জানান একদিকে যেমনিভাবে ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, পর্তুগাল ইউরোপের এ সকল দেশের মতো পোল্যান্ডের বাংলাদেশ কমিউনিটি খুব একটা শক্তিশালী না হওয়ায় এ রকম পরিস্থিতিতে কেউ চাইলেও অন্যের সাথে সেভাবে যোগাযোগ রক্ষা করতে পারছেন না;  অন্যদিকে দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা সামাজিক ও অর্থনৈতিক দিক থেকেও ইউরোপের এ সকল দেশে বসবাসরত বাংলাদেশিদের মতো তেমন একটা সুদৃঢ় অবস্থান না থাকায় একে অন্যের পাশে দাঁড়াতে পারছেন না। তাই এ অবস্থায় তিনি করোনার এ দুর্যোগ মোকাবেলায় দেশটির সকল বাংলাদেশিকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার পাশপাশি সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য আহবান জানিয়েছেন এবং একই সাথে পোল্যান্ডের বাংলাদেশ দূতাবাসকে এ পরিস্থিতিতে দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাশে থেকে কার্যকরি সহায়তা প্রদানের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার

মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গরের পাইকারি বাজার থেকে আট বাংলাদেশীসহ ৮৮ বিদেশি কর্মী গ্রেফতার করেছে  সে দেশের পুলিশ। 

সেরডাং জেলা উপ-পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ রোসদী দাউদ সাংবাদিকদের জানান, গ্রেফতারদের ৮৮ জনের মধ্যে ৭৮ জন মিয়ানমারের, ৮ জন বাংলাদেশের এবং বাকি দুইজন নেপাল ও  ইন্দোনেশিয়ার বাসিন্দা। তাদের সবার বয়স ২০ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে।

সারডাং জেলা পুলিশ সদর দপ্তরের (আইপিডি) ৯২ জন সদস্য ও ১০ জন কর্মকর্তার নেতৃত্বে শনিবার মালয়েশিয়া সময় সকাল ১১টায় বিশেষ অভিযানে অভিবাসী কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়।   


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


 

কি কারণে এসব অভিবাসী কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে সে প্রশ্নে জেলা উপ-পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ রোসদী দাউদ বলেন, গোয়েন্দা তথ্যে দেখা গেছে, বেশির ভাগ বিদেশিরা অবৈধভাবে পাইকারি বাজারে ব্যবসা করছেন।  তাদের কোনো বৈধ লাইসেন্স নেই।  তাদের কাছে বৈধ কাগজপত্রও পাওয়া যায়নি।  এ নিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে আসছেন পুলিশের কাছে।  তাই অবৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করার পাশাপাশি বাজারে বিশৃঙ্খল সৃষ্টি এবং অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারদের আইপিডি সারডাং -এ নেয়া হয়েছে এবং সেকসন ৬ (১) সি অভিবাসন আইন ১৯৫৯/৬৩ অনুসারে তদন্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আইপিডি বিভাগ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৭ই মার্চ উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

লায়লা নুসরাত, কানাডা

৭ই মার্চ উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন উপলক্ষে অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন আগামী ৭ মার্চ রবিবার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। তন্মধ্যে সকাল ১০ টা থেকে ১১টা পর্যন্ত আয়োজিত ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মধ্যে সকাল ১০টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, ১০টা ৫মিনিটে জাতীয় নেতৃবৃন্দের বাণী পাঠ।


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


১০-২০ মিনিটে ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ‘ ভাষণের উপর নির্মিত প্রমাণ্যচিত্র প্রদর্শন, সাড়ে দশটায় স্বাধীনতার ঘোষক ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রদত্ত “ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের তাৎপর্য, গুরুত্ব ও স্বাধীনতা সংগ্রামের ভূমিকার উপর আলোচনা সভা, এরপর থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানটি সবাই উপভোগ করার জন্য হাইকমিশনের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দূতাবাসের মিনিস্টার ও দুতালয় প্রধান মিয়া মো. মাইনূল কবির।
news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা ঠেকাতে বিশেষ পদক্ষেপ

অনলাইন ডেস্ক

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা ঠেকাতে বিশেষ পদক্ষেপ

কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে ভূয়া তথ্য দিয়ে সিটিজেনশিপ নেওয়ার বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানের ঘোষনা দিয়েছে ফেডারেল ইমিগ্রেশন ও সিটিজেনশীপ মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো। ইমিগ্রেশন কনসাল্ট্যান্টদের উপর খবরদারি বাড়ানোসহ ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণায় নিয়োজিত অপরাধীদের চিহ্নিত করতে সব ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। 

অভিবাসনে আগ্রহী এবং কানাডীয়ানদের যে কোনো প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা করে কানাডার অভিবাসন পদ্ধতির সুনাম অক্ষুন্ন রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন মন্ত্রী। 

ইমিগ্রেশনের নামে প্রতারণা বিরোধী প্রচারণায় ৫০ মিলিয়ন ডলারের একটি তহবিল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যা আগামী কয়েক বছর এ কাজে ব্যয় করা হবে। 

প্রসঙ্গত, কানাডায় ইমিগ্রেশনের নামে বিভিন্ন দেশে প্রতারণার কথা অনেকদিন ধরেই আলোচিত হচ্ছিলো। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কানাডার বাংলা পত্রিকা ‘নতুনদেশ’এর প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় টরন্টো থেকে সম্প্রচারিত ‘শওগাত আলী সাগর লাইভে’ কানাডা ইমিগ্রেশনের বিভিন্ন প্রতারণা নিয়ে আলোচনা হয়।

আলোচনায় উঠে আসা প্রতারণার নানা চিত্রের একটি সারসংক্ষেপ ইমিগ্রেশন মন্ত্রীকেও পাঠানো হয় বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।


‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

শেবাগ-শচিনের জুটিই হারিয়ে দিল বাংলাদেশকে

মন্ত্রী ও বিধায়ককে বাদ দিয়ে প্রার্থী চূড়ান্তে মমতার চমক!

শনিবার ঢাকার যে এলাকায় যাবেন না


শুক্রবার দেয়া বিবৃতিতে ইমিগ্রেশন মন্ত্রী মার্কো মেনডিসিনো বলেন, অভিবাসন এবং ভ্রমণের জন্য সারা বিশ্বের মানুষের অন্যতম আগ্রহের গন্তব্য কানাডা এবং প্রতি বছর  বছর হাজার হাজার মানুষ কানাডায় আসে। অভিবাসনের আবেদনের সময় অনেকেই পরামর্শকদের ম্মরণাপন্ন হয় এবং বিভিন্নজনের সহায়তা নেয়। 

তিনি বলেন, অধিকাংশ  পরামর্শকই নিয়মনীতি অনুসরণ করে কাজ করলেও  এক শ্রেণীর অসাধু  পরামর্শক অভিবাসন পদ্ধতির অপব্যবহার করে সুবিধা নেয়ার চেষ্টা করে।

তিনি পরামর্শকের প্রয়োজন হলে কেবলমাত্র কানাডা সরকারের অনুমোদিত আইনজীবী বা অভিবাসন পরামর্শকদের সহায়তা নেয়ার পরামর্শ দেন।

মন্ত্রীর বিবৃতিতে বলা হয়, অভিবাসনের নামে প্রতারণা বন্ধ করতে কানাডা সরকার অব্যাহতভাবে  কাজ করে যাচ্ছে এবং কানাডায় অভিবাসনে আগ্রহীদের সুরক্ষা দেয়ার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন,  অভিবাসন পদ্ধতিকে শক্তিশালী করতে  আবেদন জমা দেয়া থেকে নিষ্পত্তি পর্যন্ত  নজরদারি বাড়ানো,প্রতারণা বিরোধী প্রচারণাসহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ইমিগ্রেশন মন্ত্রী কানাডায় অভিবাসনে আগ্রহীদের মৌলিক কতগুলো বিষয়ের দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, কেউ নিজে কিংবা পরামর্শকের সাহায্য  নিয়ে যেভাবেই অভিবাসনের আবেদন করা হউক না কেন কানাডা সব আবেদনপত্রকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে দেখে।  কেউ বাড়তি কোনো মনোযোগ বা সুবিধা পায় না।

তিনি উল্লেখ করেন,কানাডা ইমিগ্রেশনের ওয়েবসাইটে অভিবাসনের নিয়মাবলী এবং প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজভাবে উল্লেখ করা আছে।

কানাডা এখন কয়েক লাখ ইমিগ্রান্ট নিচ্ছে। এসব এমিগ্রান্টরা যেন কোন ধরণের প্রতারণার শিকার না হন সে ব্যাপারে সজাগ থাকতে বলেছে। 

news24bd.tv/আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফের চালু নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট

অনলাইন ডেস্ক

ফের চালু নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট

আবারও চালু হয়েছে নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট। গত ৩ মার্চ থেকে এ কনস্যুলেটে স্বাভাবিক সেবা পাচ্ছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এ জন্য কোনো অ্যাপয়েন্টমেন্টের প্রয়োজন হচ্ছে না। অব্যাহত রয়েছে ডাকসেবা।

নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, আগের নিয়মে অফিস চলাকালীন প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত সকলপ্রকার কনস্যুলার সেবার আবেদন গ্রহণ করা হবে এবং প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ডেলিভারি প্রদান করা হবে। সকল সেবাগ্রহীতাকে মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্থানীয় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে কনস্যুলেটে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, যেহেতু করোনা মহামারির কারণে বর্তমানে নিউইয়র্কের স্থানীয় সরকার কর্তৃক ইনডোর সমাবেশে একটি নির্দিষ্ট সংখ্যার বেশি জনসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে, সেহেতু অধিক জনসমাগম হলে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের স্বার্থে সেবাগ্রাহকদের কনস্যুলেটের বাইরে লাইনে দাঁড়ানোর প্রয়োজন হতে পারে।

ইতোমধ্যে যারা অনলাইনে অ্যাপয়েন্টমেন্ট গ্রহণ করেছেন, তারা গৃহীত অ্যাপয়েন্টমেন্টের নির্ধারিত সময়ে অথবা অফিস চলাকালীন তাদের সুবিধাজনক সময়ে কনস্যুলেটে এসে সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।

এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে সবাইকে নিম্নবর্ণিত টেলিফোন নম্বর এবং ই-মেইলে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। কনস্যুলেটের ফোন নম্বর ২১২-৫৯৯-৬৭৬৭ (সোম থেকে শুক্রবার প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত, ছুটির দিন ব্যতীত)। হটলাইন ফোন নম্বর ৬৪৬-৬৪৫-৭২৪২ (প্রতিদিন ২৪/৭ চালু রয়েছে)। ই-মেইল [email protected]

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রোমে প্রবাসী সাংবাদিকের পরিবারের ৪ জনের করোনা শনাক্ত

অনলাইন ডেস্ক

রোমে প্রবাসী সাংবাদিকের পরিবারের ৪ জনের করোনা শনাক্ত

ইতালির রোমে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক প্রবাসী সাংবাদিকের পরিবারের চার সদস্য। নাজমুল আহসান তুহিন নামের ওই সাংবাদিক বাংলাদেশি একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ইউরোপ ব্যুরো প্রধান হিসেবে কর্মরত।

করোনায় প্রথৃমে তিনি আক্রান্ত হলে পরে তার স্ত্রী-দুই সন্তানও আক্রান্ত হয়। বর্তমান তারা সবাই ডাক্তারের পরামর্শে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

নাজমুল জানান, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জ্বর, শরীর ব্যথা হলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। পরে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হলে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপর পরই পর্যায়ক্রমে পরিবারের অন্য সদস্যরাও আক্রান্ত হন।


গুপ্তচরবৃত্তির ইসরাইলি জাহাজে ইরানের হামলা!

ওটিটি প্ল্যাটফর্মেও ডাবল ব্লকবাস্টার দৃশ্যম টু!

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে পাক-ভারত!

অপো নতুন ফোনে থাকছে ১২ জিবি র‌্যাম


 

তিনি ব্যবসার পাশাপাশি জয়যাত্রায় টেলিভিশনের ইউরোপ ব্যুরো হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির সবার কাছে তিনি দোয়া চেয়েছেন। যেন শিগগিরই সুস্থ হয়ে কর্মস্থলে যোগ দিতে পারেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল ৩ মার্চ ইতালিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ৮শ ৮৪ জন এবং মৃত্যুর সংখ্যা ৩৪৭ জন। এ পর্যন্ত ইতালিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯৬ হাজার। মৃত্যুর সংখ্যা ৯৮ হাজার ২৮৮ জন এবং সুস্থ হয়েছে ২ লাখ ৪৩ হাজার।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর