করোনার চেয়েও মারাত্মক সরকার, মন্তব্য গয়েশ্বরের

অনলাইন ডেস্ক

প্রিন্ট করুন printer
করোনার চেয়েও মারাত্মক সরকার, মন্তব্য গয়েশ্বরের

‘শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়’র নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, বর্তমান সরকার করোনার চেয়েও মারাত্মক।

আজ বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান একটি ইতিহাস। তিনি ক্ষমতায় আসার পর একবার ভারত গিয়েছিলেন। তখন ভারতের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের জিয়াউর রহমানকে আলিঙ্গন করে বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণার মধ্য দিয়ে জিয়াউর রহমান তুমি নব ইতিহাসে স্থান করে নিয়েছ, যা মুছে ফেলার নয়।’

আজ বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে বিজয় উদযাপন করতে দেশের মানুষ, বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা প্রস্তুতি নিচ্ছে। কিন্তু একটি মীমাংসিত বিষয় অযাচিতভাবে হাত দিয়ে মানুষের হৃদয়ে আঘাত দিয়ে আজ রাস্তায় নামতে বাধ্য করছে।’

‘দশ মাস হলো করোনার। প্রধানমন্ত্রী গত ১০ মাস ধরে বাসভবন থেকে বের হন না নিরাপত্তার স্বার্থে। কিন্তু দেশের ১৮ কোটি মানুষ ঘরে থাকতে পারছে না। আমাদের অনেক নেতা করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ দিয়েছেন। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস সপরিবারে, নজরুল ইসলাম খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু ও মো. শাহজাহান সপরিবারে, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফসহ অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। আমিও যেকোনো সময় আক্রান্ত হতে পারি-এই বিবেচনায় ঘরে বসে থাকতে পারি না। নিজের জীবন রক্ষায় ঘরে না থেকে রাস্তায় নামতে হয়।’

গয়েশ্বর বলেন, ‘৭১ সালের যুদ্ধে যদি কোনো অবদান থেকে থাকে তাহলে করোনার মৃত্যুর চেয়ে জনগণের পক্ষে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে মৃত্যু হয় সেটা হবে পরিপূর্ণ মৃত্যু। সেদিন প্রাণের ভয় না করে যদি যুদ্ধ করে থাকি, কারোনাকে ভয় করে ঘরে বসে থাকতে পারি না। করোনার চেয়ে মারাত্মক ভয়ানক হচ্ছে আজকের সরকার। করোনা দলমত জাতি ধর্ম বর্ণ দেখে আক্রমণ করে না কিন্তু শেখ হাসিনা নামক করোনা দল মত-জাত বুঝে আক্রমণ করে। এই ভয়ানক করোনার হাত থেকে জাতিকে রক্ষা করতে হবে। কারণ আওয়ামী লীগ, আওয়ামী লীগের জন্য; সাধারণ মানুষের জন্য নয়। এ জন্য দেশ স্বাধীন হয়নি।’

আরও পড়ুন: ‘তুরস্কে বঙ্গবন্ধুর, ঢাকায় কামাল আতাতুর্কের ভাস্কর্য স্থাপিত হবে’

সরকারের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘ইতিহাসে হাত দিবেন না। অবদান অনুযায়ী যে যেখানে আছে তাকে সেখানে থাকতে দিন। মানুষের হৃদয়ে আঘাত করবেন না। পাল্টা আঘাত আসলে ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না। আপনি (প্রধানমন্ত্রী) চিরস্থায়ীভাবে ক্ষমতায় থাকবেন না। প্রতিহিংসার রাজনীতি পরিহার করুন। তা না হলে আপনি যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করবেন আগামী দিনে যারা ক্ষমতায় আসবে তারাও একই দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য