লন্ডনে উচ্ছ্বাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রিন্ট করুন printer
লন্ডনে উচ্ছ্বাস

ফাইজার ও বায়োএনটেক-এর যৌথ উদ্যোগে উদ্ভাবিত করোনা ভাইরাসের টিকা ব্যবহারের জন্য অনুমতি এরিমধ্যে দিয়েছে ব্রিটেন সরকার। আগামী সপ্তাহে জার্মানির বায়োএনটেক এবং যুক্তরাষ্ট্রের ফাইজার লন্ডনবাসীদের জন্য এই টিকা সরবরাহ করবে। লন্ডনবাসীরা এতে খুব উচ্ছ্বসিত।

বড় আকারের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার পর যুক্তরাজ্য কোভিড -১৯ ভ্যাকসিন অনুমোদন করেছে। প্রথম কোনো দেশ হিসেবে ইউরোপ করোনা ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমতি দিল। তবে ফাইজারের এই টিকা সংরক্ষণ করতে হবে মাইনাস ৮০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায়।

বায়োএনটেকের চিফ মেডিকেল অফিসার ওজলেম তুরেসি বলেন, ইউকে এইচআরএর নিয়ন্ত্রক সংস্থা এমএইচআরএ তৃতীয় ক্লিনিক্যাল ধাপের পরীক্ষাকে সমর্থন দিয়েছে। আমরা তত্ক্ষণাৎ আমাদের ভ্যাকসিন সরবরাহের প্রক্রিয়া শুরু করেছি।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, COVID-19-র জন্য ফাইজার ভ্যাকসিনকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন করার চমৎকার সংবাদকে হাউজ অব কমন্সের সবাই স্বাগত জানাচ্ছে। এই ভ্যাকসিনের সুরক্ষা বৃটেনের অর্থনীতিকে আবারও এগিয়ে নিতে সহায়তা করবে।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী সপ্তাহ থেকে বৃটেনে করোনা সংক্রমণের সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে থাকা স্বাস্থ্যকর্মী ও কোভিড যোদ্ধাদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এই সুসংবাদে উচ্ছ্বসিত বৃটেনবাসী।

আরও পড়ুন: স্ত্রীকে পতিতালয়ে বিক্রি: স্বামীর ৭ বছর কারাদণ্ড

তবে ব্রিটেনের কিছু লোক  ভ্যাকসিনটি গ্রহণ নিরাপদ কিনা তা নিয়ে  সন্দেহও প্রকাশ করেছেন।

এইচএমআরএ সূত্রে জানা গেছে, ফাইজার ও বায়োএনটেক থেকে ভ্যাকসিনের ৪ কোটি ডোজ কেনার চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। যেহেতু প্রত্যেককে দুটি করে ডোজ দিতে হবে, তাই এক কোটি ডোজ দিয়ে ৫০ লাখ মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনা যাবে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য