অভিনয় ছেড়ে আলেমকে বিয়ে সানা খান, কে এই মৌলানা মুফতি!

অনলাইন ডেস্ক

অভিনয় ছেড়ে আলেমকে বিয়ে সানা খান, কে এই মৌলানা মুফতি!

অভিনয় ছেড়ে ধর্মে মন দিয়েছেন অভিনেত্রী সানা খান। সম্প্রতি গুজরাটের এক আলেম কে বিয়ে করেছেন তিনি। সেই বিয়ের খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোড়ন ফেলে দেয়। অক্টোবর মাসে ঘোষণা করেছিলেন গ্ল্যামার জগত থেকে বহু দূরে গিয়ে এবার ধর্মে মন দেবেন তিনি। এর কিছুদিনের মধ্যেই মৌলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করেছেন সানা। 

তাই জেনে নিন কে এই মৌলানা মুফতি আনাস? 

মওলানা মুফতি গুজরাটের সুরাট এর একজন ধর্মগুরু এবং ইসলামিক স্কলার। জানা যাচ্ছে বিগ বস খ্যাত এজাজ খান এর মাধ্যমে মুফতির সঙ্গে প্রথম আলাপ সানার। এর পরেই তাদের প্রেমের সম্পর্ক কিভাবে এগোয় তারা তারা জানাননি। কিন্তু এটুকু জানা গিয়েছে মুফতি পেশায় একজন ব্যবসায়ী।

 আরও পড়ুন:


সমুদ্রতীরে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন হিনা খান, ছবি ভাইরাল

প্রেমিকার উড়না দিয়ে প্রেমিকের আত্মহত্যা, ৩ দিন পর প্রেমিকাও


তবে সানার অনুরাগীদের জল্পনা মৌলানা মুফতি কে বিয়ে করবেন বলেই তিনি কিছুদিন আগে গ্ল্যামার দুনিয়া ত্যাগ করে ধর্মে মন দিয়েছেন। ২০ নভেম্বর সুরাটে তাদের বিয়ের প্রাইভেট সেরেমনি হয়। এই বিয়েতে কেবলমাত্র সানা ও মুফতির পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন। তবে জানেন কি সানাকে একটি বিশেষ উপহার দিয়েছেন মুফতি।

জানা যাচ্ছে একটি খুব দামী হীরের আংটি সানাকে উপহার দিয়েছেন তিনি। স্বপ্নার বিয়ের সম্পর্কে তার অনুরাগীরা যথেষ্ট আগ্রহ দেখিয়েছেন‌‌। সেই কৌতূহল মেটাতে তিনি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন, “আল্লাহর জন্যই পরস্পরকে ভালোবেসেছি। আল্লাহর জন্যই পরস্পরকে বিয়ে করেছি। প্রার্থনা করি যাতে এই দুনিয়ায় আল্লাহ আমাদের একসঙ্গে রাখেন। জন্নতেও যেন আমাদের একসঙ্গে রাখেন এই কামনা করি।”

বিয়েতে একটি জমকালো লাল রঙের লেহেঙ্গা পরেছিলেন সানা। কিন্তু সেই লেহেঙ্গার দাম শুনে আঁতকে উঠেছেন নেটিজেনরা। জানা যাচ্ছে সেই সোনালী সুতো দিয়ে কাজ করা লাল রঙের লেহেঙ্গার দাম প্রায় ১ লক্ষ টাকা। আর এই দাম জানার পরেই নানা রকমের প্রশ্ন উঠছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হতে হচ্ছে অভিনেত্রীকে।

বিনোদন জগত ছাড়ার কথা ঘোষণা করার সময় সানা বলেছিলেন তিনি গ্ল্যামার জগত সম্পূর্ণভাবে ত্যাগ করছেন। কিন্তু এই কথা বলার পরেও কিভাবে তিনি এত দামি লেহেঙ্গা পরে বিয়ে করছেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। তাহলে কি রুপোলি দুনিয়ার গ্ল্যামারের মোহ ত্যাগ করতে পারেননি অভিনেত্রী? প্রশ্ন তুলছেন নেটিজেনরা। অনেকেই বলছেন, এই অর্থ জনসেবার কাজেও ব্যবহার করতে পারতেন কারণ তিনি এখন ধর্মের পথ অনুসরণ করছেন বলে জানিয়েছিলেন।

বিয়ে উপলক্ষে একের পর এক দামী পোশাকের ছবিও পোস্ট করছেন সানা। আর তাই নেটিজেনদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হচ্ছে তাকে।

news24bd.tv কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হৃত্বিক-কঙ্গনা সাইবার মামলা : হৃত্বিকে ক্রাইম ব্রাঞ্চের তলব

অনলাইন ডেস্ক

হৃত্বিক-কঙ্গনা সাইবার মামলা : হৃত্বিকে ক্রাইম ব্রাঞ্চের তলব

কঙ্গনার ইমেইলকাণ্ডে সুপারস্টার হৃত্বিক রোশনকে শনিবার হাজিরা দিতে বলেছে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চের 'ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট'। ২০১৬ সালে ইমেলইকাণ্ড মুম্বাই পুলিশের সাইবার সেলে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন হৃত্বিক রোশন। সেই মামলাতেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং জবানবন্দি রেকর্ড করা হবে।

হৃত্বিক অভিযোগ জানিয়েছিলেন, কে বা কারা তার নাম করে কোনও ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে কঙ্গনাকে ইমেল করতেন। 


নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে কে?

মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্টে উঠে এল খাসোগি হত্যার গোপন তথ্য

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল

অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে


যদিও কঙ্গনা রানাউত দাবি করেছিলেন, ওই ইমেল আইডি-টি হৃত্বিক নিজেই ২০১৪ সালে তাকে দিয়েছিলেন। ২০১৩-১৪ সালেও তার ও কঙ্গনার মধ্যে ওই একই আইডি থেকে ইমেল চালাচালি হয়েছিল। ২০১৬ সালে কঙ্গনা হৃত্বিককে 'Silly Ex' (বোকা প্রাক্তন) বলে কটাক্ষ করেন। যাতে অভিনেত্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন হৃত্বিক। কঙ্গনার সঙ্গে কোনোরকম সম্পর্কে থাকার কথাও অস্বীকার করেছিলেন তিনি।

সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই শনিবার অভিনেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন মুম্বাই পুলিশের অপরাধ দমন শাখার ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিট।

প্রসঙ্গত, কঙ্গনা-হৃত্বিক একে অপরের সঙ্গে ২০১০ সালে 'কাইটস' ২০১৩ সালে 'কৃষ-৩'তে অভিনয় করেন। তখনই তাদের মধ্যে সম্পর্কের সূত্রপাত বলে দাবি করেছিলেন কঙ্গনা। হৃত্বিক ২০১৬তে অভিযোগ করেছিলেন, কঙ্গনা তাকে ২০১৩-১৪ সালের মধ্যে ১৪৩৯টি অদ্ভুত ইমেল পাঠাতেন, যাতে তার ওপর মানসিক চাপ তৈরি হয়। সেসময় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির নামে সাইবার সেলে মামলা রুজু হয়।

সেসময়ই তদন্তের জন্য হৃত্বিকের ফোন, ল্যাপটপ সবকিছু বাজেয়াপ্ত করেছিল সাইবার সেল। পরবর্তীকালে সেই মামলা মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ইনটেলিজেন্স ইউনিটে স্থানান্তরিত হয়।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তুলসীর যে গানের ভিউ ১০ কোটি পার

অনলাইন ডেস্ক

তুলসীর যে গানের ভিউ ১০ কোটি পার

সংগীত অঙ্গনে ঝড় তুলেছেন ভারতের তুলসী কুমার। তাঁর যেকোনো গান ইউটিউবে প্রকাশের কিছু সময়ের মধ্যে লাখো ভিউ পার হয়। কণ্ঠ আর রূপমাধুরী দিয়ে সংগীতাঙ্গন মাতিয়ে রেখেছেন তুলসী। এবার একটি মাইলফলক ছুঁলো তুলসীর গাওয়া গান।

ভারতের বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বলিউড বাবলের খবর, ২০২০ সালের নভেম্বরে মুক্তি পেয়েছিল তুলসী কুমারের মিউজিক ভিডিও ‘তানহাই’। একাকিত্বের গল্পের সেই ভিডিওটির ভিউ ১০০ মিলিয়ন বা ১০ কোটি অতিক্রম করেছে।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


‘তানহাই’ গানের মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করেছেন তুলসী, সঙ্গে ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা জৈন ইমাম। গানটির সুর করেছেন সংগীত-যুগল সচেত-পরম্পরা। গানটির গীতিকার সৈয়দ কাদরি। ভিডিওচিত্র পরিচালনা করেছেন স্নেহা শেঠি কোহলি।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডিরেক্টর’স গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর

অনলাইন ডেস্ক

ডিরেক্টর’স গিল্ডের সভাপতি লাভলু, সম্পাদক সাগর

টেলিভিশন নাটক নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টর’স গিল্ডের নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো সভাপতি পদে জয়লাভ করেছেন সালাহউদ্দিন লাভলু। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন কামরুজ্জামান সাগর। ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভোটগণনার পর শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

সভাপতি পদে সালাহউদ্দিন লাভলু পেয়েছেন ১৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অনন্ত হিরার ঘরে এসেছে ১৪৯ ভোট। এছাড়া দীপু হাজরাকে ১২ জন ভোট দিয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। ১৭০ ভোট পেয়ে বিজয়ীর হাসি হেসেছেন কামরুজ্জামান সাগর। একই পদে নির্বাচন করা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পেয়েছেন ১৬১ ভোট।

যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক পদে ২৬০ ভোট নিয়ে পিকলু চৌধুরী এবং ২০৮ ভোট পেয়ে ফিরোজ খান নির্বাচিত হয়েছেন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১৭১ ভোট নিয়ে ফেরারী অমিত এবং প্রচার সম্পাদক পদে মো. সহিদ-উন-নবী ১৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


অর্থ সম্পাদক পদে মো. সাজ্জাদ হোসেন সনি এবং কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য হিসেবে আবু হায়াত মাহমুদ, ইমরাউল হুদা রাফাত, একেএম আনিসুজ্জামান আনিস, কেএম মাহমুদুন্নবী (রিপন নবী), তারিক মুহাম্মাদ হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান সুমন ও হাফিজুর রহমান সুরুজ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

আজ ঢাকায় বিএফডিসির চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে সকাল ৯টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। উৎসবমুখর পরিবেশে নির্মাতারা ভোট দিয়েছেন। বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৩৩১টি। 

এর মধ্যে কোনো ব্যালট বাতিল হয়নি। ডিরেক্টর’স গিল্ডের এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছিলেন এসএম মহসীন। এছাড়া নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন নরেশ ভূঁইয়া ও মাসুম রেজা।

একনজরে ডিরেক্টর’স গিল্ড নির্বাচন-২০২১

সভাপতি

সালাহউদ্দিন লাভলু: ১৭০ ভোট (বিজয়ী)

অনন্ত হিরা: ১৪৯ ভোট

দীপু হাজরা: ১২ ভোট

সহসভাপতি

মাসুম আজিজ: ২৬৮ ভোট (বিজয়ী)

রফিক উল্লাহ সেলিম: ১৮৯ ভোট (বিজয়ী)

ফরিদুল হাসান: ১৯৯ ভোট (বিজয়ী)

শিহাব শাহীন: ১৮২ ভোট

প্রানেশ চন্দ্র চৌধুরী: ১৫৫ ভোট

সাধারণ সম্পাদক

কামরুজ্জামান সাগর: ১৭০ ভোট (বিজয়ী)

মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ: ১৬১ ভোট

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক

পিকলু চৌধুরী (রকিবুল হাসান চৌধুরী): ২৬০ ভোট (বিজয়ী)

ফিরোজ খান: ২০৮ ভোট (বিজয়ী)

চয়নিকা চৌধুরী: ১৯৪ ভোট

সাংগঠনিক সম্পাদক

ফেরারী অমিত: ১৭১ ভোট (বিজয়ী)

তুহিন হোসেন: ১৩৯ ভোট

এস.এম. মাসুম করিম: ২১ ভোট

অর্থ সম্পাদক

মো. সাজ্জাদ হোসেন সনি (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক

মো. সহিদ-উন-নবী: ১৮২ ভোট (বিজয়ী)

মনিরুজ্জামান নাহিদ (নাহিদ জামান): ১৪৯ ভোট

দফতর সম্পাদক

গোলাম মুক্তাদির (শান): ১৮৩ ভোট (বিজয়ী)

মুক্তি মাহমুদ: ১৪৮ ভোট

প্রশিক্ষণ ও আর্কাইভ বিষয়ক সম্পাদক

মোস্তফা মনন: ১৮৬ ভোট (বিজয়ী)

এসএম শহিদুল ইসলাম রুনু: ১৪৫ ভোট

তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক

মো. আনিসুল ইসলাম ইমেল: ১৯১ ভোট (বিজয়ী)

সঞ্জয় বড়ুয়া: ১৪০ ভোট

আইন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক

নিয়াজ মাহমুদ আক্কাস (মাহমুদ নিয়াজ চন্দ্রদীপ): ১৬৭ ভোট (বিজয়ী)

সাঈদ রহমান (মো. সাইদুর রহমান আরিফ): ১৬৪ ভোট

কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্য (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)

আবু হায়াত মাহমুদ

ইমরাউল হুদা রাফাত

একেএম আনিসুজ্জামান আনিস

কেএম মাহমুদুন্নবী (রিপন নবী)

তারিক মুহাম্মাদ হাসান

মোস্তাফিজুর রহমান সুমন

হাফিজুর রহমান সুরুজ

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অনলাইন ডেস্ক

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ইয়াসমিন বুবলীকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। 

বুবলি জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ ঘটনা ঘটলেও এটা ছিল তৃতীয়বারের মতো। গাড়ি দিয়ে সরাসরি তার গাড়িকে হত্যার উদ্দেশে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

অভিনেত্রী বুবলী গণমাধ্যমকে বলেন, গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাতে যখন একটি কালো গ্লাসঘেরা গাড়ি আমার গাড়িকে সরাসরি আঘাত করার চেষ্টা করে, তখনই বুঝে ফেলি কিছু একটা ঘটানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আমি এখনও ট্রমার মধ্যে আছি। ভাবতে গেলেই শিউরে উঠছি। আমার চালক বলছেন, ম্যাডাম এটা কোনোভাবেই হতে পারে না, এটা আমাদের গাড়িকে আঘাত করে দুর্ঘটনা ঘটানোর একটা চেষ্টা করা হয়েছে।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে বুবলী বলেন, কাল রাতে (বৃহস্পতিবার) আমি বাড়ি ফিরছিলাম। বলতে গেলে সতর্কভাবেই বাড়ি ফিরছিলাম, যেই বাড়ির রাস্তায় ঢুকেছি অমনি মনে হলো একটা থেমে থাকা গাড়ি আমার গাড়িকে আঘাত করার জন্য তীব্রবেগে ছুটে আসে। অবস্থা বুঝে আমার চালক কঠিনভাবে ব্রেক কষে ধরেন। জাস্ট ভাবতে পারছিলাম না কী হতে যাচ্ছিল। এর আগেও গাড়ি দিয়ে দুইবার একই ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করা হয়। দুইদিন আগে একবার আর করোনার মহামারির কিছুদিন আগে একবার। সেইম ঘটনাই ঘটেছিল। কাল রাতের ঘটনায় নিশ্চিত হলাম, যদিও আমি আগে থেকেই টের পাচ্ছিলাম।


অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?

ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী


অভিনেত্রী বলেন, বার বার আমার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আমি বুঝতে পারছি না কেন আমার সঙ্গে এরকমটা ঘটছে, তবে এতটুকু বুঝতে পারছি কেউ আমাকে মারার চেষ্টা করছে। শুধু গাড়ি দিয়ে নয়, নানাভাবেই এই চেষ্টা চালানো হচ্ছে। আপনার সঙ্গে যখন একটা ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে তখন আপনি ফিল করতে পারবেন। এর আগে আমি বাসায় চিন্তা করবে ভেবে বলিনি। কিন্তু কাল রাতে আমি বলতে বাধ্য হয়েছি- কেননা স্বাভাবিক থাকতে পারছিলাম না।

বুবলী নিজের আশঙ্কার কথা জানিয়ে বলেন, আমি যদি আজ এটা না বলি- তাহলে দেখা গেল গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেলাম- সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু বলে চালিয়ে দেওয়া হবে। এর পেছনে যে একটা সুক্ষ্ম ষড়যন্ত্র ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত রয়েছে বা ছিল তা কেউ জানতে পারতো না। এ জন্য ভাবলাম বিষয়টা সকলকে জানানো দরকার। এজন্য ফেসবুকে লিখেছি। আমার সাথে যা ঘটেছে সেই অবস্থার বর্ণনা হয়তো আমি তুলে ধরতে পারিনি। কিন্তু ফেসবুকে যা লিখেছি তার চেয়েও কয়েকগুণ ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটেছে আমার সঙ্গে।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বুবলী বলেন, গত চার-পাঁচদিন আমি ‘চোখ’ নামে একটি সিনেমার শুটিং করছিলাম, যথারীতি শুটিং শেষে রাতে বাসায় ফেরার পথে বিপরীত রাস্তা থেকে কোনো হর্ন না বাজিয়ে, কোনো সিগনাল না দিয়ে আমার গাড়ির সামনে প্রচণ্ড বেগে তেড়ে এসেছে একটি প্রাইভেট কার যার গ্লাস ছিল ব্ল্যাক পেপার দিয়ে মোড়ানো এবং কোনো নাম্বার প্লেট ছিল না। আমার ড্রাইভার হার্ড ব্রেক না করলে হয়তো অন্য কিছু হতে পারতো। আর আমি নিজেও ড্রাইভিং জানি তাই কোনটি দুর্ঘটনা আর কোনটি ইচ্ছাকৃত তা বোঝার ক্ষমতা নিশ্চয়ই একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের মতো আমারও আছে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বুবলী তার ফেসবুক পেইজে লিখেছেন, ‘সব সড়ক দুর্ঘটনাই দুর্ঘটনা নয়, অনেক সময় পরিকল্পিতও হয় তা গত দুদিন টের পেয়েছি। উপলব্ধি করেছি আমরা যা দেখি বা যা শুনি তার পেছনেও অন্য এক অজানা সত্য থাকে। মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখলাম আর ভাবছিলাম আজকের দিনটি তো আমাকে নিয়ে অন্য রকম সংবাদও হতে পারতো। হয়তো আল্লাহর রহমত, মা-বাবা ভাই-বোনদের দোয়া আর আপনাদের ভালোবাসায় এ যাত্রায় ভালো আছি।’

এই অভিনেত্রী ফেসবুক পোস্টে আরও লেখেন, 'প্রথম দিন সব বুঝতে পেরেও মনকে সান্ত্বনা দিয়েছিলাম হয়তো বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ি এতো জোরে আসার কারণে কন্ট্রোল রাখতে পারেনি কিন্তু একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে তো সেটি আর বুঝতে বাকি থাকে না যে এটি উদ্দেশ্যমূলকভাবেই করানো হচ্ছে। অনেক দিন ধরেই আমি নানাভাবে নানান কিছু বুঝতে পারছি, শুনতে পারছি।'

আইনগত ব্যবস্থা নেবেন জানিয়ে বুবলী বলেন, যারাই এসব ন্যাক্কারজনক অপরাধের সাথে জড়িত থাকবেন, তারাও নিশ্চয়ই বারবার সুযোগের অপেক্ষায় থাকবেন। কিন্তু মনে রাখবেন কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন, আর আল্লাহ তো একজন আছেন যিনি সবই দেখেন। শিগগিরই আমি ব্যবস্থা নিব এ ব্যাপারে । দোয়া করবেন আমার জন্য।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে জিতের বিবাহবার্ষিকী

অনলাইন ডেস্ক

মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে জিতের বিবাহবার্ষিকী

২০০১ সালে রূপালি পর্দায় অভিনয় শুরু করেন টলিউডের হ্যান্ডসাম নায়ক জিৎ। পরিচালক হারানাথ চক্রবর্তীর হাত ধরে ‘সাথী’ সিনেমা দিয়ে টলিউডে অভিষেক করেন এই হিরো।

আর সাথী সিনেমা সেই সময় সুপার ডুপার হিট। প্রথম ছবি থেকেই একেবারে মন জয় করে নিয়েছেন দর্শকদের। এরপর একের পর এক হিট সিনেমায় কাজ করেছেন জিৎ।

জিতের অভিনয় কি শুধু কী দর্শকদের মন জয় করেছে। সাথে বক্স অফিসেও জিতের বাজিমাত হামেশাই লেগে থেকে। যখনই জিৎ আসেন নতুন ছবি নিয়ে হইহই তো পড়েই যায়। আর জিতের সিনেমা দেখার জন্য এক দল সিনেমা প্রেমী অপেক্ষা করে থাকেন।


অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?

ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী


তাঁর অভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে হিট সিনেমা হলেঅ ‘জোশ’, ‘শত্রু’, ‘দুই পৃথিবী’, ‘ফাইটার’ ‘পাওয়ার’, ‘আওয়ারা’, ‘বচ্চন’, ‘১০০% লাভ’, ‘সুলতান দ্য সেভিয়ার’, ‘কৃষ্ণকান্তের উইল’। সব সিনেমাতেই নিজের অভিনয় দিয়ে হাজারো প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

২০১১ সালে এই হ্যান্ডসাম হিরো মোহনাকে বিয়ে করেন। জিৎ টলিউড ইন্ডাস্ট্রির নামী নায়ক হিসেবে পরিচিতি থাকলেও তবে সেভাবে মোহনার কোনও আলাদা পরিচয় ছিল না সেই সময়৷ মোহনা ছিলেন পেশায় এক স্কুলের শিক্ষিকা তাও আবার লখনউয়ের৷ প্রবাসী এই সুন্দরীকে নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে মনোনীত করেন জিৎ।

মোহনাও সুন্দরী। কোনও নায়িকার থেকে কম নন। বিয়ের বছর খানেক বাদে জিৎ-মোহনার জীবনে আসে তাদের ছোট্ট মেয়ে। মেয়ে আর স্ত্রীকে নিয়ে দিব্যি আছেন জিৎ।

দেখতে দেখতে ১০ বছর পার করল তাঁদের দাম্পত্য জীবন। বেশ সুখের সংসার ছিল এই দম্পতির। এবারে নিজেদের ১০ বছরের বিবাহবার্ষিকি স্ত্রী আর মেয়ের সাথে একান্তে কাটালেন। সেই মুহূর্ত নিজের ইন্সটাগ্রাম হ্যান্ডেলে শেয়ার করলেন।

ভিডিওতে দেখা যায়- একটি ঘরের টেবিল মোমবাতি আর গোলাপ ফুল দিয়ে সাজানো। দুজনে একসাথে ফলের জ্যুস খেতে খেতে চির্য়াস করছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর