দশ মাস হুতি বিদ্রোহীদের হাতে বন্দী থাকার পর মুক্ত হলেন পাঁচ বাংলাদেশি

অনলাইন ডেস্ক

দশ মাস হুতি বিদ্রোহীদের হাতে বন্দী থাকার পর মুক্ত হলেন পাঁচ বাংলাদেশি

প্রায় দশ মাস ইয়েমেনে হুতি বিদ্রোহীদের হাতে বন্দী থাকার পর কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের সহযোগিতায় মুক্ত হলেন পাঁচ বাংলাদেশি। 

তাঁরা হলেন রাউজান- চট্টগ্রামের মোহাম্মদ আবু তৈয়ব, মিরসরায়ের মোহাম্মদ রহিম উদ্দিন, মোহাম্মদ আলা উদ্দিন, মোহাম্মদ ইউসুফ, এবং মোহাম্মদ আলমগীর।

আরও পড়ুন:


অভিনয় ছেড়ে আলেমকে বিয়ে সানা খান, কে এই মৌলানা মুফতি!

সমুদ্রতীরে উত্তাপ ছড়াচ্ছেন হিনা খান, ছবি ভাইরাল

প্রেমিকার উড়না দিয়ে প্রেমিকের আত্মহত্যা, ৩ দিন পর প্রেমিকাও

যে দোয়া পড়লে কখনো বিফলে যায় না!


কুয়েতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান বাংলাদেশ টিভি জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনের সংবাদকর্মিদের জানান, ইয়েমেনে আটক পাঁচ জন বাংলাদেশির মুক্তি থেকে শুরু করে হোটেলে থাকা, হাত খরচ ও বিমানের টিকেট সহ সকল প্রকার সাহায্য বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো হয়েছে। এ সময় দূতালয় প্রধান নিয়াজ মুর্শেদ এবং শ্রম কাউন্সিলর আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

আবুধাবিতে অস্ত্র প্রদর্শনিতে অংশ নিল বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ

অনলাইন ডেস্ক

আবুধাবিতে অস্ত্র প্রদর্শনিতে অংশ নিল বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫ দিনব্যাপী অস্ত্র প্রদর্শনী। ৯শ’ প্রদর্শনকারীর অংশগ্রহণে রোববার মধ্যপ্রাচ্যের বৃহত্তম অস্ত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান। 

দ্বি-বার্ষিক এই ইন্টারন্যাশনাল ডিফেন্স এক্সিবিশন অ্যান্ড কনফারেন্স করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর আমিরাতের প্রথম সরাসরি অনুষ্ঠিত বৃহৎ অনুষ্ঠান। সাঁজোয়া যান থেকে ব্যালিস্টিক মিসাইল পর্যন্ত সর্বাধুনিক অস্ত্রশস্ত্র ও যুদ্ধ সরঞ্জাম প্রদর্শন করা হচ্ছে। ৭০ হাজার অংশগ্রহণকারী এ প্রদর্শনীতে অংশ নেন।


কার সাথে কার পরকিয়া তা চিন্তা করে মাথা নষ্ট করবেন না : আঁখি আলমগীর

নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

তামিমার সাবেক স্বামীকে বাটপার বলছে মিম


 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংযুক্ত আরব আমিরাত জানায়, দক্ষিণ আফ্রিকার ড্রোন থেকে সার্বিয়ার কামান পর্যন্ত বিভিন্ন অস্ত্র আমিরাতের সামরিক বাহিনীকে সরবরাহের জন্য দেশটি এক দশমিক তিন ছয় বিলিয়ন ডলারের অস্ত্রচুক্তি সম্পন্ন করেছে।

প্রদর্শনীতে অতিথি হিসেবে অংশ নেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্রধান এবং প্রদর্শিত হচ্ছে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘প্রত্যয়’। আন্তর্জাতিক অস্ত্র প্রদর্শনী চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সুদানে শান্তিরক্ষায় কঠোর পরিশ্রমের স্বীকৃতি পেলেন মাসুক মিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুদানে শান্তিরক্ষায় কঠোর পরিশ্রমের স্বীকৃতি পেলেন মাসুক মিয়া

সুদানের দারফুরে শান্তিরক্ষায় ‘কঠোর পরিশ্রম’ আর ‘অসাধারণ কর্মদক্ষতার’ জন্য ‘প্রশংসা সনদ’ পেলেন সেখানে বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিটে অপারেশন অফিসার হিসেবে কর্মরত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুক মিয়া, পিপিএম।

আজ (২৫ ফেব্রুয়ারি) দারফুরে এলফেশার সুপার ক্যাম্পের বঙ্গবন্ধু ক্যাম্পে তার কাছে এই সনদ হস্তান্তর করেন সুদানে নিযুক্ত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার ড. সুলতান আজম তিমুরি।

মাসুক মিয়া ২০১৯ সালের ২৫ মে সুদানের দারফুরে শান্তিরক্ষা মিশনে যোগদানের পর নিয়ালা সুপার ক্যাম্পের নিরাপত্তা প্রদান এবং সফলভাবে সুদান সরকারের কাছে ক্যাম্প হস্তান্তর করেন। কুটুম টিম সাইটের ফাতাবর্ন আইডিপি ক্যাম্পে বাস্তুচ্যুত মানুষকে নিরাপত্তা প্রদান করে প্রশংসা কুড়ান। এরপর এলফেশার সুপার ক্যাম্পের নিরাপত্তা প্রদান ছাড়াও করোনাকালীন সময়ে জাতিসংঘের কোভিড-১৯ গাইডলাইন মেনে দক্ষতার সাথে অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচালনাসহ জাতিসংঘ হেডকোয়ার্টাস থেকে আগত বিভিন্ন ভিআইপিদের এসকর্ট প্রদান করেন।


গণধর্ষণের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে কলেজছাত্রীর গায়ে আগুন

বাবার সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে রাতধর ধর্ষণের শিকার মেয়ে

৩০-৩২ গার্লফ্রেন্ড থাকার পরও আমাকে ভালোবাসত নাসির: তামিমা

আমার সব প্রশ্নের জবাব ইসলামে পেয়েছি: কানাডিয়ান নারী


সুদানে শান্তিরক্ষায় বিশেষ অবদানের জন্য এ মাসের শুরুতে ‘জাতিসংঘ শান্তি পদকে’ ভূষিত হয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের এই কর্মকর্তা। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক এই শিক্ষার্থী সুদানে শান্তিরক্ষা মিশনে সফলভাবে দায়িত্বপালন শেষে আগামী মাসের ১১ তারিখ দেশে ফিরবেন।

মাসুক মিয়া নিউজ টোয়েন্টিফোরকে জানান, ‘সুদানের দারফুরে জাতিসংঘ এবং আফ্রিকান ইউনিয়ন যৌথভাবে শান্তিরক্ষায় কাজ করছে। বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিটের একজন সদস্য হিসেবে এই মিশনে কাজ করার সৌভাগ্য হয় আমার। দায়িত্ব পালনকালে শান্তিরক্ষার পাশাপাশি বাংলাদেশ পুলিশের ইতিবাচক ইমেজ তৈরি হয় এমন কাজ করার চেষ্টা করেছি যার স্বীকৃতি হিসেবে আমাকে এই ‘প্রশংসা সনদ’ দেওয়া হয়েছে।’

প্রশংসা সনদ পাওয়ার দিনটিকে অত্যন্ত আনন্দের দিন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‌‌একজন শান্তিরক্ষী হিসেবে মিশনে অনেক প্রতিকূল পরিবেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়েছে। এই সনদ প্রাপ্তি আমার সকল কষ্ট ভুলিয়ে দিয়েছে। এরকম ‘প্রশংসা সনদ’ মিশনে কর্মরত অন্যদেরও কাজের ক্ষেত্রে অনেক বেশি উৎসাহ যোগাবে বলে মনে করি।'

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লেবানন বিএনপির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত

অনলাইন ডেস্ক

লেবানন বিএনপির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত

লেবানন বিএনপির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির উদ্যোগে ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় প্রধান আহ্বায়ক আমীর হোসেন কলিমের সভাপিতত্বে ও সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম মজুমদার এবং আহ্বায়ক সদস্য আমিনুল ইসলাম আইমানের যৌথভাবে সঞ্চালনা করেন।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা, সাবেক চিপ হুইপ জয়নাল আবেদীন ফারুক। বিশেষ অতিথি ছিলেন অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য ড. নিলুফার চৌধুরী মনি, বিএনপির সহ-জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এস এম সাইফুল আলম, ঢাকা জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি রুবেল তালুকদার প্রমুখ।

আরও পড়ুন:


বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কেটে ফেলা হল কিষানীর তিন হাজার গাছ

তামিমার পাসপোর্ট আসল কিনা মুখ খুললেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

একসাথে রাম চরণ ও কোরিয়ান নায়িকা সুজি!

রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না আজ


এছাড়া সভামঞ্চে উপস্থিত ছিলেন লেবানন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল কাদের ভূইয়া, সদস্য সচিব হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুজিবল হক মুজিব, আহ্বায়ক সদস্য জাকির হোসেন জাকির, আবুবক্কর সিদ্দিক, আরমান হোসেন আমান, জসিম উদ্দীন, উপদেষ্টা সদস্য মনির হোসেন সরকার, লেবানন মহিলা দলের সভাপতি সুলতানা নুরসহ অনেকে।

এতে আরও অংশ নেন  বিএনপির লেবানন আহ্বায়ক কমিটির সব সদস্যসহ বিভিন্ন দেশের প্রবাসী নেতারা। 

প্রধান অতিথির বক্তবে জয়নাল আবেদিন ফারুক লেবানন বিএনপির নেতাদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে আহ্বান করেন। জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব বাতিলের প্রস্তাবে সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। এছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান বক্তারা।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে ‘লুটেরা রুখো স্বদেশ বাঁচাও’আন্দোলনের শোক

লায়লা নুসরাত, কানাডা

  খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে ‘লুটেরা রুখো স্বদেশ বাঁচাও’আন্দোলনের শোক

বিশিষ্ট ব্যাংকার এবং বাংলাদেশের আর্থিকখাত বিশেষজ্ঞ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে কানাডাভিত্তিক অর্থ পাচার ও লুটেরা বিরোধী আন্দোলন- ‘লুটেরা রুখো স্বদেশ বাঁচাও’গভীর শোক প্রকাশ করছে। 

বাংলাদেশের আর্থিকখাতের অনাচার, দুরাচার নিয়ে যে কয়জন স্বোচ্চার ছিলেন তার মধ্যে খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ অন্যতম। ঋণখেলাপীদের বিরুদ্ধে, ব্যাংকিং খাতের সুশাসনের পক্ষে, শেয়ারবাজারের কারসাজির বিরুদ্ধে ও অর্থপাচারের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন অকুতোভয় যোদ্ধা। 


যে শর্ত মানলে ইরানের পরমাণু স্থাপনা পরিদর্শনের সুযোগ পাবে আইএইএ

যে সূরা নিয়মিত পাঠ করলে কখনই দরিদ্রতা স্পর্শ করবে না

বঙ্গবন্ধুর খুনিকে ফেরত চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে আবারও অনুরোধ

নিউজিল্যান্ডে পৌঁছেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল


খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ ছিলেন অর্থ পাচার ও লুটেরা বিরোধী সত্যবচনে আপসহীন।‘লুটেরা রুখো স্বদেশ বাঁচাও’ তাঁকে ও তাঁর ভূমিকা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ রাখবে।

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বাংলার ছেলে কাতার প্রবাসী জালালের সফলতা

অনলাইন ডেস্ক

বাংলার ছেলে কাতার প্রবাসী জালালের সফলতা

মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ সম্ভাবনাময় দেশ কাতারে অনেক সংখ্যক বাংলাদেশি আছেন। কেউ ব্যবসা আবার কেউ চাকরি করছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে।

দেশটিতে বর্তমানে কর্মরত আছেন চার লাখের বেশি প্রবাসী বাংলাদেশি। এদের অনেকেই ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন খাতে সুনামের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন।

কাতারে বসবাসরত রেসিডেন্সধারী বাংলাদেশি প্রবাসী জালাল আহমেদ সিআইপি, তিনি দীর্ঘদিন কাতারে সুনামের সাথে ব্যবসা করে যাচ্ছেন। তিনি কাতার থেকে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স প্রেরণ করে বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে সিআইপিও নির্বাচিত হয়েছেন। 

বাংলাদেশের চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ উপজেলার এ কৃতী সন্তান কাতারে স্থায়ী বসবাসের একমাত্র রেসিডেন্সি পাওয়া বাংলাদেশি ব্যক্তি, কাতার সরকার একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে জালাল আহমেদকে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দিয়েছে দেশটিতে।

কাতার প্রবাসী মোহাম্মদ জালাল আহমেদ সিআইপি, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলা পৌর এলাকার মিয়াজি বাড়ীর হাজী আব্দুর রশিদ মিয়াজির বড় ছেলে, তিনি কাতারে গোল্ডেন মার্বেল কোম্পানির কর্ণধার। জালাল আহমেদ ২ ভাই ৫ বোনের মধ্যে প্রথম তিনি, তার এক বোন মাজেদা বেগম বর্তমানে ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন। জালাল আহমেদ তিন মেয়ে আর এক পুত্রের জনক বর্তমানে সবাই সপরিবারে কাতারে থাকেন।

কঠোর পরিশ্রম আর মেধা দিয়ে কাতারে গড়ে তুলছেন গোল্ডেন মার্বেল কোম্পানি, গোল্ডেন মার্বেল কোম্পানি কাতারে মধ্যেই এক নাম্বার কোম্পানি।

নিজ জন্মস্থান চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ থানার মানুষকেও কাতারে এনে স্বাবলম্বী করেছেন। পরিবারের অনেক সদস্য বর্তমানে কাতারে রয়েছেন তার। 

প্রায় ৩২ বছরের কাতারের প্রবাস জীবনে সুনামের সঙ্গে প্রতিষ্ঠিত এ ব্যবসায়ী সফলভাবে ব্যবসা করে যাচ্ছেন। কাতারে তার মালিকানাধীন চারটি মার্বেল পাথরের কারখানা রয়েছে, এছাড়া বাংলাদেশের খুলনার মোংলায় তার একটি মার্বেল ফ্যাক্টরি রয়েছে।

আরও পড়ুন:


দলের শৃঙ্খলা কেউ নষ্ট করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: কাদের

লিবিয়া থেকে ফিরলেন ১৪৮ বাংলাদেশি, সঙ্গে ৭ মরদেহ

ঠাকুরগাঁওয়ে আবারও বিরল প্রজাতির নীলগাই উদ্ধার

খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক


জালাল আহমেদ বলেন, কাতারে বাংলাদেশিদের ব্যবসায়িক সাফল্যের জন্য বেশি করে পরিশ্রম করতে হবে, এখানে অর্থ অপচয়ের প্রচুর জায়গা রয়েছে, এসব জায়গায় থেকে নিজেদের দূরে রাখতে হবে, কাজকেই বেশি প্রাধান্য দিতে হবে। মনে রাখতে হবে, আমরা এখানে কাজ করতে এসেছি আর কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে এসেছি। 

এই সফল প্রবাসী আরও বলেন, কাতারে বাংলাদেশিদের ছোট ছোট অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছেন। আমার কাছে যারা আসে আমি সবাইকে সবসময় উৎসাহ দেই। বলি আরো বড় হতে হবে, কাতারে প্রচুর কাজ রয়েছে, কাজের জন্য সবসময় চেষ্টায় থাকতে হবে নিজের ভিতর।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর