শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের যাবতীয় লেনদেন ব্যাংক হিসেবে

অনলাইন ডেস্ক

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের যাবতীয় লেনদেন ব্যাংক হিসেবে

এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন, ভর্তি ফি, সেশন ফি এবং বোর্ড পরীক্ষার ফরমপূরণ ফি সব লেনদেন হবে নির্ধারিত ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে। যাবতীয় আয়-ব্যয়ের স্বচ্ছতা নিশ্চিতে এমন নীতিমালা তৈরি করতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। 

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এ নীতিমালা প্রণয়ন করা হচ্ছে বলে সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, কোনোভাবেই শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে নগদ অর্থ আদায় করা যাবে না। সব ধরনের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ নীতিমালা কার্যকর হবে।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) ‘এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আয় ও ব্যয় সংক্রান্ত নীতিমালা ২০২০’ নামের একটি খসড়া নীতিমালা চূড়ান্ত করতে এক ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

সভায় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক গোলাম ফারুকসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

নীতিমালায় বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীদের মাসিক টিউশন ফি ও বেতন নির্ধারিত ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে গ্রহণ করতে হবে। নগদ অর্থ আদায় করতে পারবে না কর্তৃপক্ষ। এজন্য সব প্রতিষ্ঠানকে ব্যাংকে হিসাব চালু করতে হবে। এমপিওভুক্ত স্কুলে ম্যানেজিং কমিটি এবং কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির সভাপতির নেতৃত্বে তিনজন জ্যেষ্ঠ শিক্ষকের সমন্বয়ে একটি অর্থ কমিটি গঠন করতে হবে। কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সিনিয়র শিক্ষকের সমন্বয়ে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি সব ধরনের ফি ও বেতন আদায় সম্পর্কিত মাসিক প্রতিবেদন কমিটি বরাবর দাখিল করবে।

আরও বলা হয়েছে, এমপিওভুক্ত কলেজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ অথবা প্রধান শিক্ষক প্রতি মাসের শুরুতে দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনায় প্রয়োজনীয় অর্থের জন্য রিকুইজিশন (আবেদন) দেবেন, রিকুইজিশনের সঙ্গে পূর্ববর্তী মাসের বিল ভাউচারসহ হিসাব বিবরণী দাখিল করতে হবে। অর্থ কমিটি যাচাই-বাছাই করে সে অর্থ ছাড় করবে। গভর্নিং বডির কাছে উপস্থাপনের জন্য সব বিল ভাউচার সংরক্ষণ করতে হবে।

আরও পড়ুন: নুরকে ‌‘গাড়িচাপার চেষ্টা’, আসিফ নজরুলের স্ট্যাটাস

‘সাঈদী ওয়াজে বলতেন মন্দিরে দান শেরকী, অথচ তিনি পুজামন্ডবে গেছেন’

পাঁচ সন্তানের মাকে ধর্ষণ করল ১৭ মাতাল

‌‌‘এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজের তিনজন শিক্ষকের সমন্বয়ে একটি অভ্যন্তরীণ অডিট কমিটি গঠন করতে হবে। অডিট কমিটি পরের বছরের ৩১ জানুয়ারির মধ্যে নিরীক্ষা প্রতিবেদন প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটি এবং মাউশিতে জমা দেবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অর্থ কমিটির সভাপতি ও অপর একজন সদস্যের যৌথ স্বাক্ষরে কলেজের হিসাব পরিচালিত হবে বলে নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়েছে।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাত কলেজের নতুন রুটিন, দুটি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন

অনলাইন ডেস্ক

সাত কলেজের নতুন রুটিন, দুটি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহলুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিত এ রুটিন প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের ২০১৯ সালের তৃতীয় বর্ষ স্নাতক পরীক্ষার্থীদের স্থগিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষাগুলো ২৮ ফেব্রুয়ারি, ৩, ৬, ৯ ও ১৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন সকাল ৯টায় পরীক্ষা শুরু হবে।

অপরদিকে, স্নাতক চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষাগুলো ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২, ৪ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এ বর্ষের পরীক্ষাও প্রতিদিন সকাল ৯টায় শুরু হবে।

নতুন যে রুটিনটি দেওয়া হয়েছে তাতে দুটি পরীক্ষার তারিখে পরিবর্তন আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন একজন শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, আজকের (বুধবার) এবং আগামীকাল বৃহস্পতিবারের পরীক্ষার জন্য নতুন তারিখ দেওয়া হয়েছে। আজ চতুর্থ বর্ষের একটি পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল এবং আগামীকাল বৃহস্পতিবার তৃতীয় বর্ষের একটি পরীক্ষার তারিখ ছিল। এ দুটি তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে।


নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

বউ যেন এদিক-ওদিক ভাইগা না যায় : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা (ভিডিও)

নাসির-তামিমার জন্য ভালোবাসা ও দোয়া : শবনম ফারিয়া


ওই শিক্ষার্থী আরও বলেন, আজকে চতুর্থ বর্ষের যে পরীক্ষাটি হওয়ার কথা ছিল সেটি আগামী ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া আগামীকাল তৃতীয় বর্ষের যে পরীক্ষাটি হওয়ার কথা ছিল, সেটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৩ মার্চ।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাবি অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের সব পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দেওয়া হয়। ফলে চলমান ২০১৯ সালের স্নাতক চতুর্থ বর্ষ, ২০১৯ সালের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের লিখিত পরীক্ষা এবং ২০১৭ সালের মাস্টার্স শেষ পর্বের মৌখিক পরীক্ষাও স্থগিত হয়ে যায়। এর পরই ওই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সড়কে নামে শিক্ষার্থীরা।

সাতটি কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও দাবি-দাওয়ার মুখে আজ বুধবার জরুরি সভা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ভার্চুয়াল এ সভায় অংশ নেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য ও সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক অধ্যাপক এ এস এস মাকসুদ কামাল ও সাত কলেজের অধ্যক্ষ।

সভা শেষে জানানো হয়, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাতটি সরকারি কলেজের চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষাসমূহ শর্তসাপেক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। শর্তসমূহ হলো, পরীক্ষা চলাকালে হোস্টেল খোলা হবে না এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।’

এরপর শিক্ষার্থীরা রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক থেকে তাদের অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।

এর আগে চলমান পরীক্ষাসমূহ নেওয়ার দাবিতে আজ সকাল থেকে নীলক্ষেত ও নিউমার্কেট সড়কে অবস্থান নেয় সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। এতে আজিমপুর, নিউমার্কেট ও নীলক্ষেতসহ আশপাশের এলাকার রাস্তায় যান চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়ে গন্তব্যমুখী নগরবাসী। এ ছাড়া সদরঘাটে কবি নজরুল সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরাও কলেজের সামনে অবস্থান নেয়।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জাবির সব আবাসিক হলে তালা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সব আবাসিক হলে তালা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গতকাল রাতে ৮টি ও আজ সকালে ৮টি  হল সিলগালা করে দেয়া হয়। এসব সব হল ছেড়ে চলেও গেছেন শিক্ষার্থীরা।  

প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্য করে গেল শনিবার থেকে হলে অবস্থান করছিলেন শিক্ষার্থীরা ।  গেল কয়েকদিন ধরে কয়েক দফা চেষ্টা করেও তাঁদের হলছাড়া করতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।


উই আর ইনোসেন্ট: সংবাদ সম্মেলনে নাসিরের স্ত্রী তামিমা

টুইটারের নিয়ম ভঙ্গের অভিযোগে ইরান, রাশিয়া ও আর্মেনিয়ায় ৩৭৩টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ

সাংবাদিক বুরহান গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনাস্থলে পিবিআই

গুজব ছড়াবেন না, তামিমাকে খুব ভালো করেই চিনি: নাসির


শুক্রবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গেরুয়া এলাকায় স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। এরপরই শনিবার আল বেরুনি, ফজিলাতুন্নেসা সহ ১৬ হলের সবগুলোরই তালা ভেঙে ভেতরে  প্রবেশ করেন আন্দোলনকারীরা। 

এছাড়া হল-ক্যাম্পাস খুলে  দেয়া সহ সাত দফা দাবিতে আন্দোলনেও নামেন শিক্ষার্থীরা। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে মঙ্গলবার সব কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণাও দেন তারা।  

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৭ কলেজের পরীক্ষা হবে, তবে শর্তসাপেক্ষে

অনলাইন ডেস্ক

৭ কলেজের পরীক্ষা হবে, তবে শর্তসাপেক্ষে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সাতটি সরকারি কলেজের চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষাসমূহ শর্তসাপেক্ষে অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও সাত কলেজের অধ্যক্ষদের এক ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শর্তসমূহ হলো পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে হোস্টেল খোলা হবে না এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

আরও পড়ুন:


সিইসি-রেজাউল, নির্বাচন কর্মকর্তা ও অন্য ছয় মেয়রপ্রার্থীর নামে মামলা

প্রতিদিন নতুন নারী লাগত তার, পরতেন ত্রিশ দিনে ৩০ সানগ্লাস

স্ত্রীকে সৌদি পাঠিয়ে ৮ বছরের মেয়েকে নিয়মিত ধর্ষণ করে বাবা

বন্ধুর স্ত্রীর ‘গোপন ভিডিও’ ধারণ, ভয় দেখিয়ে আটমাস ধরে ‘ধর্ষণ’


এর আগে সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও দাবির বিষয়ে জরুরিভিত্তিতে ভার্চুয়ালি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ভার্চুয়ালি সভায় যুক্ত আছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) ও সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল, সাত কলেজের সমন্বয়কসহ কলেজের অধ্যক্ষরা।

চলমান পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার, হল ও ক্যাম্পাস খুলে দেয়ার দাবিতে নীলক্ষেত মোড়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। সকাল ৯টা থেকে নীলক্ষেতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। দুপুর ১২টার দিকে সেখানে আসেন সাত কলেজের সমন্বয়ক ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দুই এক দিনের মধ্যেই স্কুল কলেজ খোলা নিয়ে বৈঠক: দিপু মনি

অনলাইন ডেস্ক

দুই এক দিনের মধ্যেই স্কুল কলেজ খোলা নিয়ে বৈঠক: দিপু মনি

আগামী দুই একদিনের মধ্যে স্কুল কলেজ খোলা নিয়ে আন্ত:মন্ত্রণালয় বৈঠক হবে - দিপু মনি।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষা হবে গুচ্ছ পদ্ধতিতে

অনলাইন ডেস্ক

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষা হবে গুচ্ছ পদ্ধতিতে

আগামী ২৯ মে দেশের সব কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কৃষিশিক্ষা প্রাধান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছ পদ্ধতিতে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর এই পরীক্ষা কার্যক্রমে লিড দেবে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়।  

পরীক্ষার পদ্ধতি:
ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের যোগ্যতা এসএসসি ও এইচএসসিতে ন্যূনতম মোট জিপিএ-৮ (চতুর্থ বিষয় বাদে) থাকতে হবে। পৃথকভাবে এসএসসিতে জিপিএ-৩.৫ এবং এইচএসসিতে জিপিএ-৩.৫ থাকতে হবে। পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা। বেলা ১১টায় শুরু হয়ে পরীক্ষা চলবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। এমসিকিউ পদ্ধতিতে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তিসংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পরে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।


বুধবার রাজধানীর যেসব এলাকার মার্কেট বন্ধ থাকবে

আমেরিকার ইরানবিরোধী নীতি ব্যর্থ হয়েছে: রাশিয়া

টিকা নিয়ে এ পর্যন্ত ৬৩০ জনের শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

‘ইসরাইল যেকোন ভুল পদক্ষেপ নিলেই মাশুল গুণতে হবে’


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক মো. গিয়াসউদ্দীন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক লুৎফুল হাসান, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক গৌতম বুদ্ধ দাশ, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক মো. মতিয়ার রহমান হাওলাদার এবং খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক মো. শহীদুর রহমান খান ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলরের প্রতিনিধি হিসেবে অধ্যাপক পূর্ণেন্দু বিশ্বাস সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও বশেমুরকৃবির রেজিস্ট্রার এবং আইটি বিশেষজ্ঞরা সভায় উপস্থিত ছিলেন। 

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর