সাংবাদিকদের জন্য ইউএসএআইডির সিরিজ কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাংবাদিকদের জন্য ইউএসএআইডির সিরিজ কর্মশালা

ইউএসএআইডির মিশন ডিরেক্টর ডেরিক এস. ব্রাউন

সাংবাদিকতার মান বৃদ্ধিবিষয়ক একটি সিরিজ কর্মশালা শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়নবিষয়ক সংস্থা-ইউএসএআইডি। বাংলাদেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক বিষয় নিয়ে কাজ করা সাংবাদিকদের এই কর্মশালায় প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

শনিবার (১২ ডিসেম্বর) ঢাকার ডেইলি স্টার সেন্টারে প্রথম কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়।কর্মশালার উদ্বোধন করেন ইউএসএআইডির মিশন ডিরেক্টর ডেরিক এস. ব্রাউন।

এতে প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার ১০ জন সাংবাদিক অংশ নেন। প্রথম কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন নিউইয়র্ক টাইমস’র ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক জুলফিকার আলী মানিক, ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ডিক্যাব) সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টি এবং ইউএসএআইডির সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা।

জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা বিষয়ে প্রথম কর্মশালা আয়োজনের লক্ষ্য ছিল ‘জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে ১৬ দিন’ নামক ক্যাম্পেইনের সঙ্গে কর্মশালার সমন্বয় করা, যা প্রতি বছর ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত পালিত হয়। জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে গণমাধ্যমের ভূমিকা এবং সামাজিক বিভিন্ন ইস্যুতে প্রতিবেদনের কৌশল নিয়ে সাংবাদিকরা এতে আলোচনা করেন।


শীতে কাঁপছে দেশ, শৈত্যপ্রবাহ থাকতে পারে আরও দু’দিন

তাবিজ-কবচ ব্যবহার করা কি জায়েজ?

করোনামুক্ত হলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি


কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইউএসএআইডির মিশন ডিরেক্টর ডেরিক এস. ব্রাউন বলেন, ‘সাংবাদিক হিসেবে আপনারা সরাসরি সাধারণ জনগণের সঙ্গে যোগাযোগ করতে এবং দেশ ও বিশ্বজুড়ে কী ঘটছে সে সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারেন। ঠিক এ কারণেই ইউএসএআইডি বিশ্বাস করে, এই কাজটি সঠিকভাবে সম্পাদন করার জন্য সাংবাদিকদের সঠিক সরঞ্জাম এবং কৌশল সরবরাহ করা অপরিহার্য।’

এসব কর্মশালার মাধ্যমে ইউএসএআইডি মূলত উন্নয়নের মূল বিষয়ের প্রতি বাংলাদেশি সাংবাদিকদের বোঝার গভীরতা, সংবাদযোগ্য ঘটনা শনাক্তকরণ এবং বিশ্লেষণমূলক প্রতিবেদন লেখার দক্ষতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। পাশাপাশি এর মাধ্যমে সাংবাদিকরা বাংলাদেশে ইউএসএআইডি অর্থায়িত উন্নয়ন কর্মসূচির সঙ্গেও পরিচিত হওয়ার সুযোগ পাবেন।

ইউএসএআইডি সারাদেশে আটটি বিভাগে একই ধরনের কর্মশালা আয়োজন করবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জেলের জালে সাড়ে তিন মণ ওজনের কৈবোল

দাম এক লাখ ৩০ হাজার টাকা

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

জেলের জালে সাড়ে তিন মণ ওজনের কৈবোল

খুলনার রূপসা পাইকারি মাছ বাজারে আজ (সোমবার) সাড়ে তিনমণ ওজনের কৈবোল মাছ বিক্রি হয়েছে। বিশাল আকৃতির এই মাছটি ভূপাল নামের এক জেলের জালে ধরা পড়ে। মাছটি প্রতি কেজি এক হাজার টাকা দরে এক লাখ ৩০ হাজার টাকায় কিনে নেন স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ীরা।

রূপসা পাইকারি মৎস্য বাজার সমবায় সমিতির নির্বাহী পরিচালক মো. রমজান আলী হাওলাদার জানান, এতো বিশাল আকৃতির মাছ কম পাওয়া যায়। এ কারণে মানুষের মধ্যে মাছটি নিয়ে আগ্রহ বেশি। তিনজন কসাই কয়েক ঘণ্টা সময়
ব্যয় করে মাছটি কেটে পরিষ্কার করেন। পরে ক্রেতারা তা’ কিনে নেন।


এক নারী দিয়ে হতো না, প্রতিদিন নতুন নারী লাগত তার

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর

নাসির বিয়ে করেছেন আপনার খারাপ লাগে কেন?

ঘুমন্ত স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটলেন স্ত্রী


জেলে ভূপাল জানান, গত শুক্রবার বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গেলে এই বিশাল মাছটি তার জালে ধরা পড়ে। মাছটি বিক্রি করে অধিক দাম পাওয়ার আশায় তিনি সরাসরি খুলনায় নিয়ে আসেন। এই মাছে তার ভাগ্য খুলে গেছে।

রূপসা পাইকারি মাছ বাজার সচিব এস এম ইব্রাহিম খলিল জানান, কৈবোল মাছ খেতে খুব সুস্বাদু। এর আগে ২০১৯ সালে ১৩০ কেজি ওজনের একটি কৈবল মাছ এসেছিল এ বাজারে। সেটিও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা প্রতি কেজি এক হাজার টাকা দরে কিনে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছিলেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

ফাতেমা জান্নাত মুমু, চট্টগ্রাম:

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে মাদক দ্রব্য পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। শুধু মাদক নয়, অবৈধ অনুপ্রবেশ, মালামাল চোরাচালান রোধেসহ সীমান্তবর্তী স্পর্শকাতর এলাকা চিহ্নিত করে উভয় দেশে সীমান্তে সচেতনতা বৃদ্ধি করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিজিবি ও বিএসএফ।

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর ও ভারতের অভ্যন্তরে ১৩১ বিএসএফ
ব্যাটালিয়নে বিন্দাছড়া এলাকায় ভারত বাংলাদেশের সেক্টর কমান্ডার বিজিবি বান্দরবান, রাঙামাটি এবং ডিআইজি বিএসএফ, আইজল সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে সীমান্ত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এসময় বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিজিবি বান্দরবানের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. কোরবান আলী ও বিএসএফ এর পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিএসএফ আইজল সেক্টরের ডিআইজি কুলদীপ সিং।

এছাড়া বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবি বান্দরবান, খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটি সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. সাহীদুর রহমান ওসমানী সহ ৫জন কর্মকর্তা ও বিএসএফ এর পক্ষে ৭ জন কর্মখর্তা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয় নিয়ে বিষদ আলোচনা হয়। এছাড়া সার্বক্ষণিক সীমান্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার কার্যক্রম গ্রহণের বিষয়ে বিজিবি-বিএসএফ উভয়পক্ষ একমত পোষণ করেন। রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বৈঠকটি শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাজশাহীতে বিএনপির সম্মেলন কাল, সব রুটে বন্ধ বাস চলাচল

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহীতে বিএনপির সম্মেলন কাল, সব রুটে বন্ধ বাস চলাচল

রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সম্মেলন কাল। এরই মধ্যে রাজশাহীর সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিএনপির অভিযোগ, সমাবেশে জনসমাগম ঠেকাতে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে সরকার।

রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, আগামীকাল ৩টায় রাজশাহী শহরের সাহেব বাজার, গণকপাড়া ও সোনাদিঘির মোড়ে বিভাগীয় সম্মেলনের জন্যে অনুমতি চাওয়া হয়েছে। এখনো অনুমতি পাইনি। এর ওপর বাস বন্ধ রাখা হয়েছে। বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে ব্যাপক জনসমাগম হবে। জনস্রোত ঠেকাতেই এ কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।


পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো হয়, প্রশ্ন আইজিপির

আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ


এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, বগুড়ায় এক পরিবহন শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে। এর প্রতিবাদ এবং জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে বাস বন্ধ রেখেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। এটি তাদের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি। তবে দূরপাল্লার বাস চলাচল করছে।

এদিকে, পূর্ববর্তী কোন ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে বাস বন্ধ করে দেওয়ায় এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। সকাল থেকেই বন্ধ ছিল রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটের বাস চলাচল। দুপুরের দিকে অন্যান্য জেলার বাসও বন্ধ করে দেয় শ্রমিকরা। ফলে বিভিন্ন স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে যাত্রীদের। বিকল্প যানবাহ থাকলেও ভাড়া বেশি হওয়ায় বাধ্য হয়ে ফিরে যান অনেকে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পাঞ্জাবি-টুপি কিনে দিয়ে দুই গাঁজাসেবীকে তাবলীগে পাঠালো পুলিশ

জুবাইদুল ইসলাম, শেরপুর

পাঞ্জাবি-টুপি কিনে দিয়ে দুই গাঁজাসেবীকে তাবলীগে পাঠালো পুলিশ

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে দুই বৃদ্ধ গাঁজাসেবীকে আটকের পর তাবলীগে পাঠিয়েছে ঝিনাইগাতী থানা পুলিশ।  

গতকাল দুপুরে আটকের পর তারা নিয়মিত গাঁজা সেবনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে তাদের তাবলীগে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান। 

ওসির নিজ অর্থায়নে তাদের জন্য নতুন পাঞ্জাবি-পাজামা ও টুপি কিনে দিয়ে আজ সকালে ঝিনাইগাতী থানা জামে মসজিদের পেশ ইমামের মাধ্যমে তাবলীগে পাঠানো হয়। 

মাদকসেবী দুইজন হচ্ছেন উপজেলার উত্তর ধানশাইল চকপাড়া এলাকার মৃত রহিম মণ্ডলের ছেলে কাঁচামাল ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান হবি (৬৫) ও পশ্চিম বাকাকুড়া এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে ওমর মিয়া (৬৫)। 

এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানার ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান বলেন, ওই দুই গাঁজাসেবী ইতোপূর্বে গাঁজা সেবনের দায়ে হাজত খেটেছেন। রবিবার আটকের পর তারা সুস্থ জীবনে ফেরার অনুরোধ করলে তাদের তাবলীগে পাঠানোর প্রস্তাব দিই। ওইসময় তারা দুইজন খুশি মনে রাজি হয়ে যায়। পরবর্তীতে সকল প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পর হুজুরের মাধ্যমে সোমবার সকালে তাদের তাবলীগে পাঠানো হয়।


পুলিশকে কেন প্রতিপক্ষ বানানো হয়, প্রশ্ন আইজিপির

আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ


তিনি বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছি। আমরা চাই স্থানীয়ভাবে যাতে কোন মাদকসেবী মাদক গ্রহণ ও ব্যবসা করতে না পারে। এজন্য আমাদের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে ও থাকবে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নেত্রকোনায় ফ্রি হেলমেট বিতরণ

সোহান আহমেদ কাকন, নেত্রকোনা

নেত্রকোনায় ফ্রি হেলমেট বিতরণ

‘একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না, নিজে আইন মানি অপরকে উৎসাহিত করি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে নেত্রকোনায় জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মোটরবাইক চালকদের ফ্রি হেলমেট বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে এই হেলমেট বিতরণ করা হয়। কর্মসূচিটির উদ্বোধন করেন জেলা পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী।


আমাকে ‘বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

বিমা খাতে সচেতনতা সৃষ্টির ক্ষেত্রে আরও প্রচার প্রয়োজন: প্রধানমন্ত্রী

পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেললো বাংলাদেশ

৩০ মার্চের মধ্যে শিক্ষকদের টিকা নিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী


বিতরণ অনুষ্ঠানে বিআরটিএর সহকারী পরিচালক মোবারক হোসেন, নেত্রকোনা ট্রাফিক ইনস্পেক্টর আবু নাসের মোহাম্মদ জহির, পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন কাজলসহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর