দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের তথ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের তথ্য

দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭ হাজার ৩১২। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৪৭০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হলো ৫ লাখ ২ হাজার ১৮৩ জন।

আজ সোমবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য জানানো হয়।

সংস্থার অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, এ দিন সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১৬৭ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৬৯৪ জন।

এর আগে রোববার (২০ ডিসেম্বর) দেশে ১ হাজার ১৫৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এ ছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আরো ৩৮ জন।


এবার ‘ওলে ওলে’ গান নিয়ে হাজির হিরো আলম (ভিডিও)

সৌদি আরবে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত

এবার চালকবিহীন যুদ্ধ হেলিকপ্টার তৈরি করল তুরস্ক

সাংবাদিকদের জন্য ইউএসএআইডির সিরিজ কর্মশালা


নিউজ টোয়েন্টিফোর / কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক

‌‘আমরা একসঙ্গে সীমান্ত হত্যা বন্ধে সফল হবো’

অনলাইন ডেস্ক

‌‘আমরা একসঙ্গে সীমান্ত হত্যা বন্ধে সফল হবো’

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বৃহস্পতিবার এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করছেন এস জয়শঙ্কর ।

এ দেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং মুজিববর্ষ আমাদের দেশের জন্যও অত্যধিক গুরুত্বপূর্ণ জানিয়ে বাংলাদেশে সফররত ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে অনেক অগ্রগতি হয়েছে। বাংলাদেশ আমাদের কাছে শুধু একজন প্রতিনিধি না বরং সারাবিশ্বের মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক অংশীদার। আমাদের সম্পর্ক এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে আমরা শুধু আলোচনার মাধ্যমেই যেকোনো সংকটের সমাধান করতে পারি।

বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান বাংলাদেশে  সফররত ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা একসঙ্গে সীমান্ত হত্যা বন্ধে সফল হবো- এ বিষয়ে আমাদের আলোচনা চলছে।

তিস্তা নদীর পানি বন্টনের বিষয়ে শিগগিরই বাংলাদেশ ও ভারতের পানি সম্পদ সচিবদের মধ্যে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর।


১০ মাস পর জামিনে মুক্ত কার্টুনিস্ট কিশোর

আইফোনে ১ টেরা স্টোরেজ!

বোমা আতঙ্ক তাজমহলে

আমি শিক্ষামন্ত্রীর ষড়যন্ত্র ও রাজনীতির শিকার: ভিসি কলিমুল্লাহ


সংবাদ সম্মেলনে ড. এস জয়শঙ্কর বলেন, শুধু কৌশলগত নয় গভীর জায়গায় পৌঁছেছে ভারত বাংলাদেশের সম্পর্ক। করোনার মধ্যেও বাংলাদেশ-ভারতের বন্ধুত্ব আরও জোরালো হয়েছে। বিশ্বস্ত ও পরীক্ষিত বন্ধু হিসেবে ভারত সবসময় বাংলাদেশের থাকবে।

এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে একম ঢাকা-দিল্লি। বাণিজ্য, অভিন্ন নদীর পানিরবন্টনসহ বিভিন্ন ইস্যুতে ভারত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

এক দিনের সফরে আজ সকাল ১০টার দিকে ঢাকায় এসেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ভারতীয় বিমানবাহিনীর একটি বিশেষ ফ্লাইটে এস জয়শংকর আজ সকালে দিল্লি থেকে ঢাকায় আসেন।  তাঁকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০তম বার্ষিকী, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশ-ভারত কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশতম বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগামী ২৬-২৭ মার্চ বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে। মূলত, নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের সূচি চূড়ান্ত করতে ঢাকায় এলেন এস জয়শংকর।

সফরকালে এস জয়শংকর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে গতকাল বুধবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এস জয়শংকরের সফর সম্পর্কে দেওয়া তথ্যে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আমন্ত্রণেই ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঢাকা আসছেন। গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর দুদেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল বৈঠকের সিদ্ধান্তগুলোর বাস্তবায়নের অগ্রগতি পর্যালোচনা এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করতে এস জয়শংকরের এ সফর।

আজ রাতেই এস জয়শংকরের দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কম বেতন ও কাজের চাপে পেশা বদলাতে চান ৭১ শতাংশ সাংবাদিক

অনলাইন ডেস্ক

কম বেতন ও কাজের চাপে পেশা বদলাতে চান ৭১ শতাংশ সাংবাদিক

একটা সময় তরুণ-তরুণীদের স্বপ্নের পেশা ছিল সাংবাদিকতা। সাহসী ও চ্যালেঞ্জিং পেশা হিসেবে সাংবাদিকতাকেই বেছে নিতেন তারা। পড়াশোনা শেষে যারা এই পেশায় এসেছেন, তাদের অনেকেই এই পেশা ছেড়েছেন, আর যারা আছেন, তাদের কেউ কেউ ছাড়ার অপেক্ষায় আছেন। সুযোগ পেলেই অন্য কোনও চাকরিতে চলে যাচ্ছেন তারা। বাংলাদেশের ৪২.০৯ শতাংশ সাংবাদিকই তার পেশা নিয়ে বিষণ্নতায় ভুগছেন। আর ৭১.০৭ শতাংশ সাংবাদিক এ পেশা ছেড়ে দিতে চান। 

সম্প্রতি দেশের সংবাদপত্র, স্যাটেলাইট টেলিভিশন ও অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোতে কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে পরিচালিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন ভয়াবহ তথ্য উঠে এসেছে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষক আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে সম্প্রতি ‘অ্যান ইনভেস্টিগেশন ইনটু রিস্ক টু মেন্টাল হেলথ অব বাংলাদেশি জার্নালিস্টস’ শীর্ষক এ গবেষণা পরিচালিত হয়। গবেষক দলে আরও ছিলেন একই বিভাগের শিক্ষক ড. সরকার বারবাক কারমাল ও সাবেক শিক্ষার্থী আপন দাস।


১০ মাস পর জামিনে মুক্ত কার্টুনিস্ট কিশোর

আইফোনে ১ টেরা স্টোরেজ!

বোমা আতঙ্ক তাজমহলে

আমি শিক্ষামন্ত্রীর ষড়যন্ত্র ও রাজনীতির শিকার: ভিসি কলিমুল্লাহ


সাংবাদিকদের এমন বিষণ্নতা আর চাকরিবিমুখতার পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে উঠে এসেছে চাকরির অনিশ্চয়তা। যার হার ৮৫ শতাংশ। এছাড়া অন্যান্য কারণের মধ্যে রয়েছে সময়মতো প্রমোশন না পাওয়া, কম বেতন এবং অত্যাধিক কাজের চাপ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত ১৯১ জন সাংবাদিকের ওপর এ গবেষণা পরিচালিত হয়েছে। অংশগ্রহণকারী সাংবাদিকদের ৭৯.১ শতাংশই নিজের পেশা নিয়ে সন্তুষ্ট নয়। আর বিষণ্নতায় ভুগছেন ৪২.৯ শতাংশ সাংবাদিক। তাদের মধ্যে নারী ৪৮.৪৮ আর পুরুষ ৪১.৭৭ শতাংশ। 

গবেষণায় আরও বলা হয়েছে, সাব-এডিটর বা কপি এডিটরদের থেকে বাইরে কাজ করা রিপোর্টারদের মধ্যে বিষণ্নতা বেশি। তবে রিপোর্টার ও সাব-এডিটরের থেকে নিউজ এডিটর তুলনামূলকভাবে কম বিষণ্নতায় ভোগেন। এ হারে রিপোর্টার ৪৪.৩২, কপি এডিটর ৩৪ এবং নিউজ এডিটর ২৮.৫৭ শতাংশ।

এ প্রসঙ্গে গবেষক দলের প্রধান আমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, সাংবাদিকদের মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। তবে এ নিয়ে দেশে সচেতনতার মাত্রা খুবই কম। সাংবাদিকতা পেশা ও সাংবাদিকদের জীবনমান উন্নয়ন প্রশ্নে কর্মক্ষেত্রে তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টি অবশ্যই গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে হবে।

সংসদে দেওয়া তথ্যমন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন দৈনিক পত্রিকা রয়েছে এক হাজার ২৪৮টি, এরমধ্যে ঢাকায় ৫০২টি এবং সারাদেশে ৭৪৬টি। টেলিভিশন চ্যানেল রয়েছে ৩২টি। এছাড়া সারাদেশে সাপ্তাহিক পত্রিকা রয়েছে এক হাজার ১৯২টি, মাসিক ৪১৪টি। এর বাইরে ২ হাজার ২১৭টি অনলাইন মিডিয়া রয়েছে। আরও আছে, অনলাইন পত্রিকা, অনলাইন টেলিভিশন ও রেডিও। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

১০ মাস পর জামিনে মুক্ত কার্টুনিস্ট কিশোর

অনলাইন ডেস্ক

১০ মাস পর জামিনে মুক্ত কার্টুনিস্ট কিশোর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় ১০ মাস কারাগারে থেকে জামিনে মুক্ত হয়েছেন কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির।  

বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে কাশিমপুর কারাগার (পার্ট-২) থেকে কিশোরকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। সাড়ে ১২টার দিকে তিনি একটি সাদা রঙের গাড়িতে চড়ে কারাগার এলাকা ত্যাগ করেন। এ সময় কিশোর কারও সঙ্গে কথা বলেননি।

কিশোরকে মুক্তি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাশিমপুর কারাগার-২-এর জেল সুপার আবদুল জলিল।


আইফোনে ১ টেরা স্টোরেজ!

বোমা আতঙ্ক তাজমহলে

আমি শিক্ষামন্ত্রীর ষড়যন্ত্র ও রাজনীতির শিকার: ভিসি কলিমুল্লাহ


জেল সুপার জানান, আহমেদ কবির কিশোরের জামিনের কাগজ বেলা ১১টার দিকে কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছায়। পরে তা যাচাই-বাছাই শেষে কিশোরকে মুক্তি দেওয়া হয়। এ সময় কারাফটকে কিশোরের স্বজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে কিশোরের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে গতকাল বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ জামিনাদেশ দেন।

মুশতাক আহমেদ ও কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরকে গত বছরের মে মাসে গ্রেফতার করে র‌্যাব। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কথাবার্তা ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তারাসহ মোট ১১ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়।

একই মামলায় একসঙ্গে গ্রেপ্তার হওয়া কারাবন্দী লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মারা যান। তিনি গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারীরাই দেশকে অস্থিতিশীল করে: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারীরাই দেশকে অস্থিতিশীল করে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, গণতন্ত্র ধ্বংস করে যারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় বসে তারাই দেশকে অস্থিতিশীল করে। বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) ‘বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ’, এনএসটি ফেলোশিপ এবং গবেষণা-অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন।

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্বে এখন আমরা মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত। আমাদের অগ্রযাত্রা কেউ থামিয়ে দিতে পারবে না। করোনাভাইরাস যখন পারেনি, কেউ আর পারবে না। এটাই আমার বিশ্বাস।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যেক বিভাগে নভোথিয়েটার করে দেব। যাতে প্রতিটি শিক্ষার্থী বিজ্ঞান জানতে পারে। আমরা গবেষণার ওপর জোর দিচ্ছি। এর মাধ্যমে ব্যয় কমানো, উৎপাদনশীলতা বাড়ানো ও বাজারজাতকরণ সহজ হয়। নতুন নতুন পণ্য সৃষ্টি বা উদ্ভাবন করা যায়।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজকে জলমগ্ন ধান গবেষণা হচ্ছে। স্ট্রবেরিসহ বিভিন্ন ফলের উৎপাদন দেশে হয়। এগুলো সবই গবেষণার ফসল। আমাদের মানুষ ও উর্বর মাটি আছে। সেগুলোকে কাজে লাগিয়ে উন্নত দেশ গড়বো।’

তিনি আরও বলেন, ‘পঁচাত্তরের পর যারা ক্ষমতায় ছিল তারা শিক্ষার উন্নতির পরিবর্তে অবনতি করেছে। শিক্ষাঙ্গণে অস্ত্রের ঝনঝনানি, শিক্ষার্থীদের হাতে অস্ত্র ও টাকা তুলে দিয়ে তাদের বিপথগামী করেছে। ক্ষমতা ধরে রাখতে তাদের ব্যবহার করেছে।’

আরও পড়ুন:


আইটেম গার্ল জেরিন খান এখন ড. জেরিন খান

রাজধানীর খিলক্ষেতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

মা হচ্ছেন শ্রেয়া ঘোষাল, বেবি বাম্পের ছবি ভাইরাল


শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে শিক্ষানীতি করে শিক্ষাকে বহুমুখী করেছি। দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলছি। আমাদের সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে হয়নি। শুধু করোনা মহামারি পরিস্থিতির কারণে গত বছর এ সমস্যা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের সুস্থতার জন্য বন্ধ রাখতে হয়েছে। অবশ্য মার্চের শেষে খুলে দেয়া হবে।’

৯৮৬ গবেষককে বৃত্তি ও ফেলোশিপ দেয়া হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ফেলোশিপের টাকা জনগণের। এটা যেন জনগণের কাজে লাগে, মাথায় রাখতে হবে।’

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক

সিরাজগঞ্জে এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা সম্পন্ন

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের প্রথম জানাজা সিরাজগঞ্জে সম্পন্ন হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার মরদেহ সিরাজগঞ্জের সোনতলা তফছির মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে এয়ার অ্যাম্বুলেন্স নেয়া হয়। পরে উল্লাপাড়া পৌর শহরের সরকারি আকবর আলী কলেজ মাঠে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার জানাজা নামাজ সম্পন্ন হয়।

জানাজায় স্বজন, এলাকাবাসীসহ হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষ অংশ নেন। সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহমেদ ও উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেওয়ান মওদুদ আহমেদ, সিরাজগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সরাফত হোসেন, উল্লাপাড়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

আরও পড়ুন:


মা হচ্ছেন শ্রেয়া ঘোষাল, বেবি বাম্পের ছবি ভাইরাল

নন-ক্যাডারে নিয়োগ দেবে পিএসসি

মা হওয়ার জন্য মোটা হওয়া গর্বের: শুভশ্রী (ভিডিও)

মোদির দলে যোগ দেয়া নিয়ে কী সিদ্ধান্ত নিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়?


পরে সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ, উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ, দলটির সহযোগী সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান, সুধীজনসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা তার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তার মৃত্যুতে তার নিজ গ্রাম সোনতলাসহ উল্লাপাড়ায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতারা শোক প্রকাশ করেছেন। উপদেষ্টাপুত্র উল্লাপাড়া আসনের সংসদ সদস্য তানভীর ইমাম তার বাবার জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর