চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জে যুবকের মরদেহ উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে গোমস্তাপুর উপজেলায় মেহেরুল (৩৩) নামে এক যুবককে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত মেহেরুল উপজেলার রাজারামপুর বালুগ্রাম এলাকার মৃত কবিরুলের ছেলে। 

স্থানীয়রা জানান, মেহেরুল নাচোলে একটি পিয়ারা বাগানে কাজ করত। গতকাল রোববার সে বাড়িতে আসে। এদিকে আজ সোমবার সকালে গোমস্তাপুর বেগমনগর মহিলা মাদরাসার পেছনে একটি আম বাগানে তার লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

গোমস্তাপুর থানার ওসি দিলিপ কুমার দাস জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে দুপুরে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার চোখসহ শরীরের কয়েকটি স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এটি একটি হত্যাকাণ্ড। তবে কি কারণে বা কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 


এবার ‘ওলে ওলে’ গান নিয়ে হাজির হিরো আলম (ভিডিও)

সৌদি আরবে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত

এবার চালকবিহীন যুদ্ধ হেলিকপ্টার তৈরি করল তুরস্ক

সাংবাদিকদের জন্য ইউএসএআইডির সিরিজ কর্মশালা


নিউজ টোয়েন্টিফোর / কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ফরিদপুর কুয়াকাটা মহাসড়কের ৬ লেন নির্মাণ কাজ আটকে আছে

রাহাত খান

ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত ২৩৬ দশমিক ৭৪ কিলোমিটার ৬ লেন মহাসড়ক নির্মান কাজ আটকে আছে প্রশাসনিক জটিতলায় । এখন পর্যন্ত জমি অধিগ্রহন করতে পারেনি সরকার। তবে  নগরীর পাশ দিয়ে বাইপাস সড়কের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। আর এ বিষয়ে যুগপোযোগী সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বলছেন সড়ক বিভাগের কর্মকর্তারা।

ফরিদপুরের ভাঙ্গা থেকে কুয়াকাটা পর্যন্ত ২৩৬ দশমিক ৭৪ কিলোমিটার ৬ লেন মহাসড়ক নির্মানের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। বর্তমান মহাসড়কের দুই পাশে প্রশস্ত করে ১১০ফিট প্রশস্ত ৬ লেন মহাসড়ক নির্মানের জন্য ৪ জেলায় মোট ৩০২.৭ একর জমি অধিগ্রহণ করবে সড়ক বিভাগ।

২০১৮ সালে জমি অধিগ্রহনের প্রকল্প অনুমোদন হলেও নানা প্রশাসনিক জটিলতায় এখন পর্যন্ত জমি অধিগ্রহন করতে পারেনি সরকার। নগরীর পাশ দিয়ে বাইপাস সড়কের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। এরই মধ্যে নানা কর্মসুচীও পালন করেছে তারা। 


ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু- শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা


জনগনের ক্ষতি না করে ৬ লেন মহাসড়ক নির্মানের পক্ষেই কথা বললেন স্থানীয় সংসদ সদস্য। কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক, বরিশাল সদর আসনের এমপি ও পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

এ বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছেন সংশ্লিস্টরা। মো. মাসুদ খান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, পটুয়াখালী সড়ক বিভাগ। 

বর্তমান মহাসড়কের দুই পাশে ৬ লেন মহাসড়ক করার জন্য ২০১৮ সালের ৩১ অক্টোবর এই প্রকল্প অনুমোদন দেয় মন্ত্রনালয় । 

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

মাদারীপুর প্রতিনিধি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

মাদারীপুরের শিবচরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে মাদারীপুরের সকল উপজেলা প্রশাসন, সকল ইউনিয়ন ,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার নারী পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে মাদারীপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিসনের সহযোগিতায় পদ্মা সেতুর টৌল প্লাজা থেকে পদ্মাসেতুর এ্যাপ্রোচ সড়কে আনুষ্ঠানিক ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতার শুভ উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নুর ই আলম চৌধুরী এমপি।

পরে টোলপ্লাজা থেকে দৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে শিবচরের কাঠালবাড়ি এলাকা পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার পথ গিয়ে ইউটার্ন হয়ে আবার টোলপ্লাজায় এসে শেষ হয়। পরে পাঁচটি গ্রুপে ৩ জন করে বিজয়ী ১৫ জনকে পুরস্কার দেয়া হয়।

ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ও প্রথম স্থান অধিকারী কাঠালবাড়ি ইউনিয়নের আবু বক্কর জানান, আমি ৫ কিলোমিটার ম্যারাথন দৌড়ে অংশগ্রহণ করে প্রথম হয়েছি। এতে আমি গর্বিত। সেনাবাহিনীর এমন আয়োজন অংশ নিতে পেরে খুব ভালো লেগেছে।


ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু- শনাক্তের সর্বশেষ তথ্য

মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ১০ টাকা


ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী ও দ্বিতীয় স্থান অধিকারী কুতুবপুর ইউনিয়নের ইমন মিয়া বলেন, ম্যারাথনে সব বয়সের নারী-পুরুষের অংশ গ্রহণে খুব সুন্দর একটি আয়োজন করেছেন মাদারীপুর জেলা প্রশাসন। সেখানে অংশ নিতে পেরে খুবই আনন্দিত। প্রতি বছর যদি এমন আয়োজন করা হয় তবে আমরা অবশ্যই অংশগ্রহণ করব।

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড.রহিমা খাতুন বলেন " এ প্রতিযোগিতায় সকল স্কুল, কলেজেরে ছেলে মেয়েসহ সাধারন জনগন স্বতস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেছে এতে তারা একটি ফেষ্টিভ মুড পেয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে যে আয়োজনটা সবকিছু মিলিয়ে খুব সুন্দর হইছে"

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, লে. কর্ণেল মো. ফারুক আহমেদ ভূঁইয়া (পিএসসি, অধিনায়ক ৮ বীর, ৯ম পদাতিক ডিভিশন), মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনির চৌধুরী, জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসাদুজ্জামান, মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন গিয়াস প্রমুখ।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকার রক্ষা; সাহসী উদ্যোগ বৈশাখী টিভির

অনলাইন ডেস্ক

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকার রক্ষা; সাহসী উদ্যোগ বৈশাখী টিভির

তাসনুভা আনান।

টেলিভিশনে প্রথমবারের মতো সংবাদ পাঠ করলেন দেশের প্রথম ট্রান্সজেন্ডার নারী তাসনুভা আনান। স্বাধীনতার মাস মার্চ ও সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরে নজিরবিহীন এই দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে বৈশাখী টেলিভিশন। 

ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে বৈশাখী টিভি কর্তৃপক্ষ বলছে, আমরা জানি, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূলমন্ত্র ছিল দেশের মানুষের মুক্তি, সবার জন্য বাসযোগ্য, বৈষম্যহীন একটি সমাজ গড়ে তোলা। স্বাধীনতার ৫০ বছরে গর্ব করার মতো অনেক অর্জন থাকলেও বৈষম্যহীন ও সবার জন্য নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। এই ব্যর্থতার কারণে সবচে বড় অবহেলিত জনগোষ্ঠীগুলোর মধ্যে ট্রান্সজেন্ডাররা অন্যতম, যাদের চিরাচরিতভাবে হিজড়া বললে আমাদের সমাজে সকলেই বোঝেন।

জন্মগতভাবে এই শারীরিক সীমাবদ্ধতা নিয়ে যারা আমাদের সমাজে ভূমিষ্ঠ হন তাদের পারিবারিক, সামাজিক এমনকি রাষ্ট্রীয়ভাবে বঞ্চনা ও অবহেলার স্বীকার হবার অনাকাঙ্ক্ষিত বাস্তবতাটি আমাদের চিরচেনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার এই অবহেলিত নাগরিকদের মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় নানা উদ্যোগ নিয়েছেন। ভোটার তালিকায় তারা এখন নারী বা পুরুষ হিসেবে নয় সরাসরি হিজড়া পরিচয়েও নিজেদের নাম নিবন্ধন করার অধিকার পেয়েছেন। বিপুল সংখ্যক হিজড়াকে সরকার ভাতাও দিচ্ছে। তবে আমরা মনে করি ট্রান্সজেন্ডারদের ধারাবাহিক ও স্থায়ী উন্নয়নের ধারা নিশ্চিত করতে সবার মানসিকতার পরিবর্তন অত্যন্ত জরুরি।

বেসরকারি এই টেলিভিশন চ্যানেলের জনসংযোগ কর্মকর্তা দুলাল খান গণমাধ্যমকে বলেন, বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর এই বছর, স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে আমাদের চ্যানেলের সংবাদে এবং নাটকে দুইজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে যুক্ত  করেছি। দেশের মানুষ এই প্রথম কোনও পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে খবর পাঠ করতে দেখবেন একজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে, যা স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশে আগে কখনো ঘটেনি। এই ট্রান্সজেন্ডার নারীর নাম তাসনুভা আনান শিশির। আসছে ৮ই মার্চ’২১ সোমবার আন্তর্জাতিক নারী দিবসে শিশির বৈশাখী টেলিভিশনে তাঁর প্রথম সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপন করবেন। এরমধ্য দিয়ে দেশে এক নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপনে বৈশাখী টেলিভিশনের ঐতিহাসিক উদ্যোগের সহযাত্রী হবেন তিনি। 

তিনি বলেন, একইভাবে আমরা আমাদের বিনোদন বিভাগের নিয়মিত নাটকের মূল চরিত্রগুলোর একটিতে যুক্ত করেছি আরেকজন ট্রান্সজেন্ডার নারীকে। যার নাম নুসরাত মৌ। যাকে পর্দায় প্রথম দেখা যাবে একইদিন আন্তর্জাতিক নারী দিবসে, ধারাবাহিক নাটক “চাপাবাজ”-এর একটি পর্বে। যা প্রচারিত হবে ৮ মার্চ রাত ৯টা ২০ মিনিটে।


আবাসিক হোটেলে অনৈতিক কর্মকাণ্ড, ধরা ২০ নারী

চুমু দিয়ে নারীদের সব রোগ সারিয়ে দেন ‘চুমুবাবা’

বুবলিকে ধাক্কা দেওয়া গাড়িটি ছিল ব্ল্যাক পেপারে মোড়ানো, ছিল না নম্বর প্লেট

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ


তাসনুভা আনা দেশের শীর্ষ স্থানীয় একটি গণমাধ্যমকে বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশের জেন্ডার ডিসক্রিমিনেশন বা চিরাচরিত প্রথা ভাঙতে পারছি এটা আমার জন্য একটা বড় প্রাপ্তি। আমি বিশ্বাস করি, চাইলে যে কেউ নিজের যোগ্যতাবলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যেতে পারে। বৈশাখী টেলিভিশনের এই উদ্যোগ দেশের অন্যান্য সেক্টরে দারুণভাবে ভাবিত করবে, বৈশাখী টেলিভিশন দেশের মানুষকে চিন্তার জায়গা করে। সবাই ট্রান্সজেন্ডারদের নিয়ে ভাববে। আর আমার অনুভূতির কথা যদি বলেন, এটা আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। বৈশাখী টেলিভিশনের প্রতি আমি খুব গভীরভাবে কৃতজ্ঞ।

আগামী ৮ মার্চ থেকে তাসনুভা আনান নিয়মিত সংবাদ পাঠ করবেন বলে জানিয়েছেন দুলাল খান। 

প্রসঙ্গত, ট্রান্সজেন্ডার-এর বাংলা অর্থ রূপান্তরিত লিঙ্গ। ট্রান্সজেন্ডার বলতে মূলত বোঝায়, যাদের এমন একটি নিজস্ব যৌন পরিচয় বা যৌন অভিব্যক্তি রয়েছে, যা তাদের জন্মগত যৌনতা থেকে ভিন্ন। বর্তমান বিশ্বের অনেক ট্রান্সজেন্ডার ব্যক্তি ডাক্তারি চিকিৎসার সাহায্যে নিজেদের যৌন পরিচয় পরিবর্তন করেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নোয়াখালীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আল মাহমুদসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সামনে জেলা ও উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা এ মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করে। 

গত ২৫ই ফেব্রুয়ারি স্থানীয় জাহানারা হাসপাতালে এক নারীর ভুল চিকিৎসার সংবাদ প্রচারের জের ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হাসাপাতালের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম নিজ ফেইসবুক আইডি থেকে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ পোষ্ট করে। 


জিয়ার অবদান অস্বীকার করার অর্থই হল স্বাধীনতাকে অস্বীকার: ফখরুল

সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে রাজনীতিতে সুযোগ দিয়েছিলেন জিয়া: কাদের

বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের রিটেইলার মিট প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত

খুলনায় বিএনপির অফিস ঘিরে রেখেছে পুলিশ, তীব্র উত্তেজনা


এরপরে আরও একটি ফেইক ফেইসবুক পেজ থেকে একইভাবে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মানহানিকর পোষ্ট করে। এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় ২ সাংবাদিক বাদী হয়ে আলাদাভাবে ২টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

 এইদিকে সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে থানার এজহারভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী জানে আলম বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ পোষ্ট দিয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদের জড়িয়ে মুক্ত সাংবাদিকতাকে বাধা গ্রস্থ করার জন্য অপপ্রচার করে আসছে বিভিন্ন কুচক্রি মহল।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কমেন্টের কারণ নিয়ে যা বললেন কবীর চৌধুরী তন্ময়

নিজস্ব প্রতিবেদক

কমেন্টের কারণ নিয়ে যা বললেন কবীর চৌধুরী তন্ময়

হঠাৎ করেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল আলোচনা একজন ব্যক্তি। জাতীয় অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলির সকল রাজনৈতিক নিউজের মন্তব্যর ঘরে দেখা যাচ্ছে একজনকে কমেন্ট করতে। যে কমেন্টে আবার পড়ছে হাজার হাজার লাইক।  ট্রল হচ্ছে তার এই কমেন্ট নিয়ে। কিন্তু  নিরবতা ভেঙ্গে কমেন্টকারি সেই কবীর চৌধুরী তন্ময় এবার জানিয়েছেন কমেন্ট করার কারণ। এ বিষয়ে বিস্তারিত এ মাসে জানাবেন বলেও জানান তন্ময়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে তন্ময় এক স্ট্যাটাসে জানান,

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন থাকাটা (অতি) জরুরী। বাতিলের পক্ষে আমি নই। আমাদের একটি বিশেষ কাজের অংশ থেকে আমাদের কিছু তিক্ত অভিজ্ঞতা আমরা খুব শীঘ্রই তুলে ধরবো। আমাদের যাচাই বাচাই চলছে। কিছু তথ্য প্রমাণ আপনাদের সামনে তুলে ধরবো। শ্রেণি, পেশা, বয়স, রাজনৈতিক দর্শন এবং নিছক মজার জায়গা থেকে একটিগোষ্ঠী বা মহল কি করতে পারে-আশাকরি অনেকেরই কিছু না কিছু অভিজ্ঞতা আছে।  তবে একটা কাজ করা যেতে পারে যেমন, দেশের বিজ্ঞ সাংবাদিক, অনলাইন অ্যাক্টিভস্ট, ব্লগারদের নিয়ে দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে অপপ্রয়োগের বিষয়গুলো চিহ্নিত করা এবং গ্রেফতার ও জামিনের বিষয়গুলো নিয়ে এই আইনের ধারাগুলোতে কি সংযোজন বা সংশোধন করা যায়-আলোচনা হতে পারে।

এদিকে এই স্ট্যাটাস সিদ্ধার্থ দে নামক একজন মন্তব্য করেন, দাদা সব ঠিক আছে, তবে আপনি ভেরিফাইড আইডি থেকে জাতীয় নিউজফিডগুলোতে যে ধরনের মন্তব্য করেন সেটা দেখে আমি হতবাক..

তার প্রতি উত্তরে তন্ময় মন্তব্য করেন, এগুলোর বিস্তারিত তথ্য প্রমাণসহ জানতে পারবেন এ মাসেই।

কে এই কবীর চৌধুরী তন্ময় :
বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ) এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি  তিনি। ইতিহাস-ঐতিহ্য আর শিল্প-সংস্কৃতির কুমিল্লা শহরের ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের পাশে অবস্থিত চম্পক নগরে ১৯৮২ সালের ২০ জুলাই জন্ম গ্রহণ করেন। কবীর চৌধুরী তন্ময় মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগ গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনে স্বক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। বিভিন্ন ব্লগে লেখালেখি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রগতিশীল বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে মাঠে-ময়দানে দেখা যায়। সাংবাদিকতার পাশাপাশি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে তিনি নিয়মিত কলাম লিখছেন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয় নিয়ে গবেষণা করছেন। লিখেছেন বেশ কয়েকটি বইও। তিনি জাতীয় দৈনিক ও অনলাইনগুলোতে নিয়মিত কলাম লিখছেন। 


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


বাবা এম এ খালেক চৌধুরী মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেন। বড় কাকা সুজত আলী চৌধুরী স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে শহীদ হন, যাঁর মরদেহ তিঁনি ও তার পরিবার আজও খুঁজে পায়নি।

খুব ছোটকাল থেকেই সামাজিক সংগঠক, পাঠাগার স্থাপন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে প্রগতিশীল মিছিলে নিজেকে স্বক্রীয় রাখেন। কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগের (কবির-মিঠু/লিয়াকত-বাবু) মাধ্যমে ছাত্র রাজনীতি শুরু করেন। তথাকথিত তত্ত্ববধায়ক সরকার ছাত্রলীগের রাজনীতি নিষিদ্ধের ষড়যন্ত্র করলে তখন ছাত্ররাজনীতি টিকিয়ে রাখার জন্য জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ দিয়ে ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে মাঠের রাজনীতিতেও স্বক্রীয় ভূমিকা পালন করেন।

২০১৩ সালে গণজাগরণ মঞ্চের প্রগতিশীল ও জাতি পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ, মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এবং স্বাধীনতার পক্ষে একঝাঁক ব্লগার, লেখক, গবেষক, সাংবাদিক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্টদের নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ)-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য- সম্মিলিত সংগ্রাম পরিষদ (৬৫টি সংগঠন নিয়ে সন্ত্রাস-জঙ্গি নির্মূল কমিটি) এর সমন্বয়ক, কুমিল্লা নাগরিক ঐক্য পরিষদ-এর সভাপতি, আলোকিত প্রতিবন্ধি-কেন্দ্রীয় কমিটি’র উপদেষ্টা, বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি-কেন্দ্রীয় কমিটি’র উপদেষ্টা, এফবিসিসিআই’র (জেনারেল বডি) সদস্য, সস্প্রীতি বাংলাদেশ-এর সদস্য, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি’র সদস্য, বাংলাদেশ-ভারত সৈত্রী সমিতি’র আজীবন সদস্য-সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতি সংগঠনের সাথে জড়িত আছেন।

স্ত্রী নাজমা আক্তার রোজী অবসরে গবেষণা, লেখালেখি করলেও পেশা ব্যবসা। স্কুলে পড়ুয়া একমাত্র কণ্যা তাশফিয়া কবীর তাসনীম নিয়ে তার পারিবারিক বলয়। বর্তমানে ঢাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর