সড়কের পাশে ময়লা ফেলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

শেখ শফিউদ্দিন জিন্নাহ্, গাজীপুর:

সড়কের পাশে ময়লা ফেলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা-কালিয়াকৈর আঞ্চলিক সড়কে পাথারপাড়া এলাকায় সড়কের দু’পাশে বাসা, বাড়ি, কারখানার বর্জ্য ফেলে দুর্গন্ধ সৃষ্টির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে নদী পরিব্রাজক দল শ্রীপুর উপজেলা শাখা। 

প্রতিবাদ সমাবেশে খুব দ্রুত ময়লার ভাগাড়টি সরিয়ে অন্যত্র নেয়ার দাবি জানান সংগঠনের নেতাসহ স্থানীয় গণ্যমান্য বক্তারা।

সোমবার সকালে পাথারপাড়া এলাকায় এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বক্তারা বলেন, সড়কের দু’পাশে মিল-কারখানা, কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে সড়কটির দু'পাশে বিভিন্ন স্থানে ময়লা ফেলে সড়কটি যেন আবর্জনা ফেলার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। এতে পরিবেশ দূষিত হওয়ার পাশাপাশি আবর্জনার দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে পথচারীসহ স্থানীয়রা। খুব দ্রুত ময়লার ভাগাড়টি সরিয়ে অন্যত্র নেয়ার দাবি জানান বক্তারা।

নদী পরিব্রাজক দল শ্রীপুর উপজেলা শাখার সভাপতি সাঈদ চোধুরীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, পিয়ার আলী কলেজের সহযোগী অধ্যাপক আহাম্মাদুল কবীর, সহকারী অধ্যাপক সাজেদুল ইসলাম সুরুজ, শিক্ষক জয়নুল আবেদীন স্বপন, পর্যটক শফি কামাল, জোবায়ের আহমেদ, কলিম উদ্দিন, আবুল কালাম আজাদসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ মানববন্ধনে অংশ নেন।


এবার ‘ওলে ওলে’ গান নিয়ে হাজির হিরো আলম (ভিডিও)

সৌদি আরবে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত

এবার চালকবিহীন যুদ্ধ হেলিকপ্টার তৈরি করল তুরস্ক

সাংবাদিকদের জন্য ইউএসএআইডির সিরিজ কর্মশালা


নিউজ টোয়েন্টিফোর / কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাত্র ১১ দিনে শিশু নুপূর হত্যার রহস্য উদঘাটন করলো পিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক


মাত্র ১১ দিনে শিশু নুপূর হত্যার রহস্য উদঘাটন করলো পিবিআই

কার্টুন দেখতে মোবাইল চাওয়ায় নিজের আট বছরের মেয়েকে গলাটিপে হত্যা করেন তার বাবা। পরে ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে লাশটি ঝুলিয়ে রাখা হয়। ১০ মাস আগে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।

মাত্র ১১ দিনের তদন্তে হত্যার রহস্য উদ্‌ঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। শনিবার রংপুরের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানায়।

এ ঘটনায় নিহত শিশুটির বাবা নুর মোহাম্মদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি।

পিবিআইয়ের তথ্যমতে, নীলফামারীর সৈয়দপুরের রসুলপুর রেল কোয়ার্টারে পাঁচ–ছয় বছর থেকে পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন নুর মোহাম্মদ। ২০২০ সালের ৩ এপ্রিল জুমার নামাজ শেষে স্ত্রী ও দুই সন্তান নূপুর (৮) ও আবু সোহানকে (৭) নিয়ে বাড়িতে টিভি দেখছিলেন নূর মোহাম্মদ। দুই সন্তানের ঝগড়ার একপর্যায়ে বড় মেয়ে নূপুর কার্টুন দেখতে বাবার মোবাইলটি বারবার চাইলে তা না দেওয়ায় বাবাকে গালি দেয় মেয়ে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নিজের মেয়ের গলা চেপে ধরেন নূর মোহাম্মদ। একপর্যায়ে শ্বাসরোধে নূপুর মারা যায়। ঘটনাটি আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিতে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে তার লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল। এ ঘটনায় ওই দিন সৈয়দপুর থানা-পুলিশ অপমৃত্যু মামলা করে ও লাশের ময়নাতদন্ত করে।


কারওয়ান বাজারের হাসিনা মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে

দিনেদুপুরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ

মৌমিতাকে ধর্ষণের আলামত মেলেনি: ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক

দেখে মনে হয়েছে বিসিএস-এর প্রশ্নপত্রের করোনা হয়েছে


পরে ঘটনাটি তদন্তের দায়িত্ব পায় রংপুর পিবিআই। পিবিআই পুলিশ সুপার জাকির হোসেনের নেতৃত্বে তদন্ত কর্মকর্তা নুরে আলম সিদ্দিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করেন। এ ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নূর মোহাম্মদকে আটক করেন। নীলফামারীর সৈয়দপুর আমলি আদালত-২ এ ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে মেয়ে হত্যার ঘটনা স্বীকার করেন তিনি। পরে নূর মোহাম্মদকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে নীলফামারী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

রংপুর পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার এ বি এম জাকির হোসেন বলেন, ঘটনার ১০ মাস পর মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হলে মাত্র ১১ দিনের মাথায় আমরা মূল রহস্য উদ্‌ঘাটনে সক্ষম হয়েছি।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মৌমিতাকে ধর্ষণের আলামত মেলেনি: ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর ধানমন্ডিতে নিহত বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী মৌমিতাকে ধর্ষণের কোনো আলামত পায়নি ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। তবে বাড়ির সাত তলার ছাদ থেকে পড়ার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছে তিনি। এদিকে মৌমিতাকে হত্যা করা হয়েছে কিনা সে বিষয়ে তদন্ত করছে পুলিশ । 

ঢাকা মেডিকেলের মর্গে সন্তান হারানোর বাবার আর্তনাদ। আদরের বুকের ধন ফিরবে না কখনো। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ধানমন্ডির নিজ ভাড়া বাসার ছাদে উঠেছিল মৌমিতা। 
এরপর সন্ধ্যায় তার মরাদেহ পরে থাকে ভবনের পেছনে। পড়ে যাওয়ার সেই চিত্র দেখেছিলেন গ্রীন রোড সরকারি স্টাফ কোয়ার্টারের নিরাপত্তা কর্মী।

বাড়ির সাততলার ছাদে প্রায় দিন‌ই ক্রিকেট খেলতো ভবনের মালিকের ছেলে ফারজাদ ও তার কয়েকজন বন্ধু। পরিবারের অভিযোগ ফারজাদ ও তার বন্ধু আদনান তরুণীকে উত্যক্ত করতো। তাদের পরিবারকে অভিযোগ দিয়ে কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।

এদিকে মৌমিতাকে ধর্ষণের কোনো আলামত পায়নি ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক। তবে বাড়ির সাত তলার ছাদ থেকে পড়ার কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন তিনি।

পুলিশ বলছে, ঘটনাস্থল থেকে সিসিটিভির ফুটেজ ও আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। হত্যা কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এ ঘটনায় পুলিশ আদনানকে হেফাজতে নিয়েছে। নিহত মৌমিতা মালয়েশিয়ার এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের তৃতীয় সেমিস্টারের পড়তো। ব্যবসায়ী বাবার তিন কন্যার মেঝো সে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

মাদারীপুরে ৬ ডাকাত আটক

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরে ৬ ডাকাত আটক

মাদারীপুরের শিবচরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ডাকাত চক্রের ৬ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় ডাকাতদের কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে পুলিশের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে জেলার শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের জমিরউদ্দিন মুন্সির কান্দি গ্রামের একটি মেহগনি বাগানে। 

পুলিশের উপস্থিতি টের পাওয়ার সাথে সাথে ডাকাতরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয়। 

আটককৃতরা হলেন আরিফ হাওলাদার (২৫), ওয়াসিম সরকার মহসিন (৩৪), মো. শাহিন (২৫), মো. সেলিম বেপারী (৫৫), এমদাদুল বেপারী (৩৭) ও জালাল খাকে (৫২)। 

এ সময় পুলিশের কাছে ডাকাতরা জানায় তাদের সাথে দলের সর্দার সোবাহান (৩৫) ও সবুজসহ (৩০) আরো ৫/৬ জনের একটি দল পালিয়ে গিয়েছে। 

পুলিশ আটককৃত ডাকাতদের কাছ থেকে ৫ টি রাম দা, একটি লোহার পাইপ, ২টি ধারালো চাকু, একটি টর্চ লাইট, একটি লোহার হেক্স ব্লেড, একটি সেলাই রেঞ্জ, একটি স্ক্রু ড্রাইভার ও ৩টি মোবাইল সেট উদ্ধার করে। 


চরমোনাই মাহফিল থেকে ফেরার পথে দুই নৌকা ডুবি

চুয়াডাঙ্গায় নারীর রহস্যজন মৃত্যু, শাশুড়ি আটক

অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে বেইলী ব্রিজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক নিয়ে সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন


শিবচর থানার ওসি মিরাজুল ইসলাম বলেন, আটককৃত ডাকাতরা ওই মেহগনি বাগানে সমবেত হয়ে ডাকাতির প্রস্ততি নিচ্ছিল। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদের সর্দারসহ বেশ কয়েকজন ডাকাত পালিয়ে গেলেও আমরা ৬ ডাকাতকে আটক করেছি। তাদের কাছ থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ডাকাতির কাছে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নাটোরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর

নাটোরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় বিলকিস খাতুন (২২) নামের এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূ বিলকিস খাতুন উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের সেলিম উদ্দিনের স্ত্রী। তার দুই বছরের একটি ছেলে রয়েছে।


দুই পৌরসভায় নির্বাচন কাল, কেন্দ্রে পৌঁছেছে ভোটের সরঞ্জাম

হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে আতঙ্কিত বুবলীর থানায় জিডি

চুয়াডাঙ্গায় প্রতিপক্ষের হামলায় ট্রাকচালক গুলিবিদ্ধ

পিতার স্পর্শকাতর স্থান চেপে ধরল ছেলে, বাবার মৃত্যু


বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি নাজমুল হক জানান, মরদেহটির ময়নাতদন্তের জন্য  নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট হাতে আসলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দুই পৌরসভায় নির্বাচন কাল, কেন্দ্রে পৌঁছেছে ভোটের সরঞ্জাম

বেলাল রিজভী, মাদারীপুর

দুই পৌরসভায় নির্বাচন কাল, কেন্দ্রে পৌঁছেছে ভোটের সরঞ্জাম

মাদারীপুর পৌরসভা ও শিবচর পৌরসভায় নির্বাচন কাল। আর এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এরই মধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে 
পৌঁছেছে ভোটের সরঞ্জাম। অন্যদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল জোরদার হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও নেয়া হয়েছে কঠোর নজরদারি।

মাদারীপুর পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ২১টি ভোট কেন্দ্রের জন্যে ১৫০টি বুথের জন্যে ২২৫টি ইভিএম সেট নেয়া হয়েছে। শিবচর পৌরসভার ৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ইভিএমে। প্রতিটি কেন্দ্রে ভ্রাম্যমান আদালতে ১ জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে।  প্রতিটি ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১০ জন পুলিশ, সাধারণ কেন্দ্রের জন্যে ৯ জন পুলিশ, ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রের জন্যে আনসার সদস্য ১২ জন, সাধারণ কেন্দ্রের জন্যে আনছার সদস্য ১০, বিজিপি ৩ প্লাটুন, র‌্যাবের ৩টি টিম, স্টাকিং ফোর্সসহ তিন স্তুরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। 


কেউ অসুস্থ হয়ে মারা গেলে কি করার আছে?: প্রধানমন্ত্রী

মিছিল থেকে গ্রেপ্তার সাতজনের বিরুদ্ধে পুলিশের ‘হত্যাচেষ্টা’ মামলা

জিয়ার অবদান অস্বীকার করার অর্থই হল স্বাধীনতাকে অস্বীকার: ফখরুল

সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীকে রাজনীতিতে সুযোগ দিয়েছিলেন জিয়া: কাদের


নির্বাচন অফিস জানায়, মাদারীপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৫১ হাজার ৪৭৮ জন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৯ জন এবং কাউন্সিলর পদে ৩৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’ প্রার্থীর পাশাপাশি রয়েছেন ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন ও জাতীয় পার্টি প্রার্থী। 

এছাড়া শিবচর পৌরসভায় মেয়র নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আওলাদ হোসেন খান একক প্রার্থী হিসেবে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। শিবচর পৌরসভায় মোট ভোটার ১৭ হাজার ৯৭৮ জন। এবং কাউন্সিলর প্রার্থী ৩১ জন সংরক্ষিত কাউন্সিলর ৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করবেন।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর