নতুন বছরে সোনার দাম ২ শতাংশ কমবে!

অনলাইন ডেস্ক

নতুন বছরে সোনার দাম ২ শতাংশ কমবে!

রেকর্ড বৃদ্ধির পর আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম একটু একটু করে কমছে। দুই মাস ধরে কমছে। বিশ্বব্যাংকের পর্যবেক্ষণ বলছে, ২০২১ সালে সোনার দাম ২ শতাংশ কমবে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, নতুন বছরে দেশের বাজারেও দাম কমে আসবে। তবে ভ্যাটের চাপ ও আমদানির ক্ষেত্রে বিএসটিআইয়ের হস্তক্ষেপ দেশের বাজারকে চাপে ফেলেছে। এই চাপ সমন্বয় করতে পারলে দেশের বাজারকে সহনশীল পর্যায়ে নামানো সম্ভব হবে।

ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারিকে বিয়ের মৌসুম ধরেন সোনার ব্যবসায়ীরা। গত বছর এই মৌসুমে যে পরিমাণ বিক্রি হয়েছিল, এখন তার চেয়ে ৪০ শতাংশ কম বিক্রি হচ্ছে বলে দাবি তাঁদের। তবে কয়েক মাস আগের তুলনায় বেড়েছে। তাঁরা বলছেন, আগে অনেক বিক্রেতা ভ্যাট ছাড়াই সোনা বিক্রি করতেন। 

সরকারের রাজস্ব আয়ে টান পড়ায় এখন কঠোর মনিটরিংয়ের মধ্যে এসেছে ভ্যাট আদায়। মার্কেটগুলোতে রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তাদের উপস্থিতি বেড়েছে। বিষয়টি বেচা-বিক্রিতে কিছুটা প্রভাব ফেলছে। তবে দাম কমে এলে ক্রেতাদের কাছ থেকে ভ্যাট আদায় সহজ হবে।

বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) সহসভাপতি ও সানন্দা জুয়েলার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রঞ্জিত ঘোষ বলেন, ‘এখন বিয়ের মৌসুম হওয়ায় বিক্রি আগের তুলনায় বেড়েছে। তবে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় কম। কারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতা কমেছে, বিপরীতে দাম বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমছে।

আগামী বছর আরো কমবে বলেই মনে হচ্ছে। কারণ দাম বেড়েছিল করোনার কারণে সরবরাহ ঘাটতি ও মজুদপ্রবণতায়। ভ্যাকসিন আসায় এবং যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী ঝামেলা শেষ হওয়ায় সোনার বাজার স্বাভাবিক হবে। আন্তর্জাতিক বাজারে কমলে দেশের বাজারেও কমবে। তবে আমদানির ক্ষেত্রে বিএসটিআইয়ের অনুমোদনের একটি নিয়ম চালু করা হয়েছে। তাই আপাতত আমদানি বন্ধ রয়েছে।’

ইন্ডিজদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলে থাকছেন যারা !

সৌরভের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে 

বুড়িগঙ্গার তীর থেকে নিখোঁজ ট্রাক চালকের লাশ উদ্ধার

আজ ঢাকায় ফিরছেন সাকিব

বিশ্বব্যাংকের পণ্যমূল্য তথ্য মতে, গত বছরের অক্টোবর-ডিসেম্বরে আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার গড় দাম ছিল আউন্সপ্রতি এক হাজার ৪৮২ ডলার। চলতি বছরের জানুয়ারি-মার্চ সময়ে বেড়ে দাঁড়ায় এক হাজার ৫৮৩ ডলারে। সেপ্টেম্বর নাগাদ আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দাম বেড়ে ইতিহাসের সর্বোচ্চ গড় দাম আউন্সপ্রতি এক হাজার ৯২২ ডলারে দাঁড়ায়। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয়ে দেশেও সোনার দাম বাড়ছিল। গত আগস্টে দেশে ভরি ৭৭ হাজার টাকা ছাড়িয়ে যায়, যা ইতিহাসে সর্বোচ্চ।

নভেম্বরের মাঝামাঝিতে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ে অনেক অনিশ্চয়তার অবসান হয়। সোনার দামও কমতে থাকে। করোনার ভ্যাকসিন আসায় বাজার আরেকটু স্বাভাবিক হয়।

বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, ‘যেকোনো অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা ও মন্দার সময় মূলত সোনার চাহিদা বাড়ে। এ কারণেই চলতি বছরে করোনাভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকেই বিনিয়োগকারীরা সোনা কেনায় ঝুঁকতে শুরু করেন। এতে দাম রেকর্ড পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। মূলত এই সময়ে ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার দেশগুলোতে সোনার মজুদ শুরু হয়। 

এসব দেশের বিনিয়োগকারীরা মহামারির মধ্যেও রেকর্ড পরিমাণ দাম পেতে মজুদে জোর দেন। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন ঘিরে সোনার বাজার অস্থির হয়ে উঠেছিল। জো বাইডেন জয়ী হওয়ায় সর্বত্র একটা স্থিতিশীল পরিবেশ ফিরে এসেছে। এর প্রভাবেই কমে আসছে দাম। আমরাও সেই দামের সঙ্গে সমন্বয় করে কমাচ্ছি।’ বর্তমানে বিশ্ববাজারে সোনার দাম প্রতি আউন্স এক হাজার ৮৭৫ ডলার।

দেশে সবচেয়ে ভালো মানের সোনার ভরি এখনো ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকা, যা বছরের শুরুতে ছিল ৫৮ হাজার টাকা। ২১ ক্যারেটের সোনা বিক্রি হচ্ছে ৬৯ হাজার ৫১৭ টাকায়। ১৮ ক্যারেটের বিক্রি হচ্ছে ৬০ হাজার ৭৬৯ টাকায়। গয়নার সঙ্গে ক্রেতাকে দিতে হয় ৫ শতাংশ ভ্যাট ও ভরিপ্রতি মজুরি।

news24bd.tv / কামরুল

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এশিয়ার সেরা ধনী মুকেশ আম্বানি

অনলাইন ডেস্ক

এশিয়ার সেরা ধনী মুকেশ আম্বানি

আবারও এশিয়ার শীর্ষ ধনীর তালিকায় প্রথম অবস্থানে উঠে এসেছেন ভারতের ধনকুবের মুকেশ আম্বানি। চীনের ব্যবসায়ী ঝং শানশানকে হারিয়ে শীর্ষ ধনীর মুকুট ছিনিয়ে নেন আম্বানি। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার্স ইনডেক্সের হিসাবে এ তথ্য উঠে এসেছে।

ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, আম্বানির সম্পদের পরিমান বর্তমানে ৮০ বিলিয়ন ডলার। যাকে তিনি পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান দখল করেছেন চীনের সেই ধনকুবের ঝং শানশানের সম্পদের পরিমান ৭৬ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার। চলতি সপ্তাহে তার বোতলজাত পানির কোম্পানি ২২ শতাংশ ঊর্ধ্বমুখী রেকর্ড করে। তবে গত সপ্তাহে শীর্ষ অবস্থান থেকে তার ২২ বিলিয়ন ডলারের অধিক অবনমন হয়।


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


 

গত দুই বছর আলিবাবা গ্রুপ হোল্ডিংস লিমিটেডের জ্যাকমাকে টপকে শীর্ষ ধনীর স্থান দখল করে রাখেন। এরপর গত বছরের ডিসেম্বরে জং শানশানের কাছে তিনি শীর্ষ পদ হারান। ঝং এশিয়ার শীর্ষ ধনীর পদ দখলের পাশাপাশি ২০২১ সালের প্রথমদিকে বিশ্বের ষষ্ঠ ধনী ব্যক্তিতে পরিণত হন। এমনকি ওয়ারেন বাফেটকেও পেছনে ফেলেন তিনি।

তবে চলতি সপ্তাহে চীন এবং হংকংয়ের শেয়ারবাজার বিশ্বের অন্যতম পতনের তালিকায় পড়ে। এতে ঝংয়ের কোম্পানি নংফু চলতি বছরের মুনাফা হারিয়ে ফেলে। আবার তার আকেটি কোম্পানি ওয়ানতাইও ডুবে যায় লসের তালিকায়। যেখানে আম্বানির প্রায় প্রতিটি ব্যবসায়ী ইউনিট মুনাফা করে।

সম্প্রতি শুধু যে আম্বানি এবং ঝং ধনীর তালিকায় অদলবদল হয়েছেন তাই নয়। টেসলার প্রধান ইলন মাস্ক জানুয়ারির শুরুর দিকে বিশ্বের সেরা ধনীর তালিকায় এক নম্বরে উঠে আসেন। অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোসকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থানে উঠে আসেন তিনি।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

একই জমিতে তিন ফসল উৎপাদন করে দৃষ্টান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

নওগাঁর বদলগাছীতে একই জমিতে এক সাথে তিন ফসল উৎপাদন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন শামীম হোসেন নামে এক কৃষক। শামীম জানান, সিম ও  পটল বিক্রি করে এরই মধ্যে ১৪  লাখ টাকা আয় করেছেন তিনি। আর উৎপাদিত আদা বিক্রি হবে আরো ১২  লাখ টাকা। তার এই সফলতা দেখে তিন ফসলী চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন অনেকে । 

নওগাঁর বদলগাছীর বিলাসবাড়ি ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামের কৃষক শামীম হোসেন। নিজের তিন বিঘা জমিতে একই সাথে সিম, পটল ও আদার চাষ করেছেন তিনি। পুরো জমিতে জানালা দিয়ে ওপরে পটল ও সিম  আর  নিচে আদা রোপন করেছেন তিনি।

শামীম হোসেন জানান, তিন ফসল উৎপাদনে তার খরচ হয়েছে প্রায় ১ লাখ টাকা। এরই মধ্যে  প্রায় ১৪ লাখ টাকার সিম ও পটল বিক্রি করেছেন তিনি। আর এই তিন বিঘা জমি থেকে ২৪০ মন আদা উৎপাদনের আশাও করছেন তিনি।  


নাইজেরিয়ায় হোস্টেল থেকে কয়েকশ ছাত্রীকে অপহরণ

কুয়েটে শর্টপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু

অস্ত্রের মুখে ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণের পর দফায় দফায় ধর্ষণ

মেয়েকে তুলে নিয়ে মাকে রাত কাটানোর প্রস্তাব অপহরণকারীর


তার এই সফলতা দেখে একই জমিতে একাধিক ফসল চাষে আগ্রহী হয়ে উঠৈছেন অনেকে।

কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, শামীমের মত তিন ফসল যারা উৎপাদন করতে চায় তাদের সব ধরণের সহায়তা করা হবে ।  

এক জমিতে তিন ফসল উৎপাদন করে কৃষকরা স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করছেন বলেও  মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ব্যবসায়ীদের বৈঠকের পর নতুন করে চালের দাম বৃদ্ধি

অনলাইন ডেস্ক

ব্যবসায়ীদের বৈঠকের পর নতুন করে চালের দাম বৃদ্ধি

গত সম্পাহ যে চাল ৫৮ টাকা ছিল আজকে ৬০ টাকা। বাজারে চালের দাম কোনভাবেই কমছে না। চালের দাম কমাতে বৈঠক করার পর উল্টো চালের দাম বাড়লো। রাজধানীর বাবুবাজার-বাদামতলী চালের আড়তসহ খুচরা বাজারে আরও চালের দাম বেড়েছে।

চালের দাম কমাতে গত সপ্তাহে চাল আমদানি ও বাজারদর নিয়ে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদারের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের বৈঠকের পর নতুন করে কেজিতে দুই থেকে তিন টাকা বেড়েছে। অন্য চালও আগের মতো চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে।

চাল ব্যবসায়ীদের মতে, বাজারে চালের আমদানি কম। কারণ আগামী দুই মাসের মধ্যেই কৃষক বোর ধান কাটবে। এজন্য চালের আমদানি কম। ফলে সরু চালের দাম বেড়েছে।


কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মৃত্যুতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

বগুড়ায় সকাল ও দুপুরের সড়ক দুর্ঘটনায় ঝরল ৬ প্রাণ

যা দেখে নাসিরকে ভালোবেসেছিলেন তামিমা


রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) তথ্য অনুযায়ী, সরু চালের দাম কেজিতে ২ টাকা বেড়ে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের তথ্য মতে, সরু চালের মধ্যে মিনিকেট এখন ৬২ থেকে ৬৬ টাকা ও নাজিরশাইল ৬২ থেকে ৭০ টাকা। মৌসুমের শেষ সময়ে গত দু'সপ্তাহ ধরে নাজিরশাইল চাল কেজিতে ৪ টাকা বেড়েছে। এ ছাড়া মাঝারি চাল ৫০ থেকে ৫৬ ও মোটা চাল ৪৪ থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রোববার দেশের যেখানে ব্যাংক বন্ধ থাকবে

অনলাইন ডেস্ক

রোববার দেশের যেখানে ব্যাংক বন্ধ থাকবে

পৌরসভা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন উপলক্ষে রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দেশের ২৮ জেলার ৩৫টি উপজেলায় সংশ্লিষ্ট ৩৬টি নির্বাচনী এলাকার ব্যাংকগুলোর সব শাখা বন্ধ থাকবে।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ থেকে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে। 

এতে বলা হয়, রোববার ২০টি জেলার ২৯টি উপজেলায় ৩০টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 


অভাব দুর হবে, বাড়বে ধন-সম্পদ যে আমলে

সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত

করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণে বাধা নেই ইসলামে

নামাজে মনোযোগী হওয়ার কৌশল


 

এর মধ্যে রয়েছে- রংপুরের কাউনিয়ার হারাগাছ পৌরসভা, জয়পুরহাট সদর পৌরসভা, বগুড়া সদর পৌরসভা, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল পৌরসভা, রাজশাহীর চারঘাট পৌরসভা ও দুর্গাপুর পৌরসভা, ঝিনাইদহের মহেশপুর পৌরসভা ও কালীগঞ্জ পৌরসভা, যশোরের কেশবপুর পৌরসভা, ভোলা পৌরসভা। জামালপুরের সদর, দেয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর ও মাদারগঞ্জ পৌরসভা। মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভা, কিশোরগঞ্জের ভৈরব, মানিকগঞ্জের সিংগাইর, মাদরীপুরের সদর পৌরসভা ও শিবচর পৌরসভা, হবিগঞ্জ পৌরসভা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা, চাদপুরের মতলব পৌরসভা ও শহরাস্তি পৌরসভা, লক্ষীপুরের রায়পুর পৌরসভা, গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভা, নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভা। একই দিন চট্টগ্রামের মীরসরাই পৌরসভা, বারইয়ারহাট পৌরসভা ও রাঙ্গুনিয়ার সদর পৌরসভার নির্বাচন হবে। 

একই দিনে চারটি জেলার চারটি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে- ঝিনাইদহের শৈলকুপা, ফরিদপুরের মধুখালী, রাজশাহীর পবা ও কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা। ওইদিন দুটি জেলার ২টি উপজেলার ২টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এগুলো হচ্ছে- পটুয়াখালীর কলাপড়া উপজেলার ডলবুগঞ্জ ও ফরিদপুর সদর উপজেলার গেরদা ইউনিয়ন। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

করোনার মধ্যেও ভারতে বিলিয়নিয়ারের সংখ্যা বেড়েছে

অনলাইন ডেস্ক

করোনার মধ্যেও ভারতে বিলিয়নিয়ারের সংখ্যা বেড়েছে

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের মধ্যেও ভারতে বেড়েছে শতকোটিপতির সংখ্যা। দেশটিতে ২০১৯ সাল শেষে শতকোটিপতির সংখ্যা ছিল ১০৪। অন্যদিকে ২০২০ সাল শেষে যা হয়েছে ১১৩ জন।

এ তথ্য উঠে এসেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক গবেষণা সংস্থা নাইট ফ্রাংকের ‘দ্য ওয়েলথ রিপোর্ট-২০২১’ অনুযায়ী। আসছে ২ মার্চ নাইট ফ্রাংক পুরো প্রতিবেদন প্রকাশ করবে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২৫ সাল নাগাদ ভারতে শতকোটিপতির সংখ্যা ৪৩ শতাংশ বাড়বে। ১৬২ জনে পৌঁছাবে।


সেই দুই ভাইয়ের সাড়ে ৫ হাজার বিঘা জমি, ৫৫টি বাস ক্রোকের নির্দেশ

দেশে করোনার সর্বশেষ মৃত্যু-শনাক্তের তথ্য

টিকা নেয়ার ১২ দিন পর ত্রাণ সচিবের করোনা শনাক্ত

চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে রাস্তায় পড়ে মারা গেলো মেয়েটি


ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, করোনার কারণে দেশটিতে ২০২০ সালে মোট সম্পদের পরিমাণ যাদের ১০ লাখ ডলারের ওপরে এবং ৩ কোটি ডলারের বেশি এমন ধনীর সংখ্যা কমেছে। মোট সম্পদের পরিমাণ ১০ লাখ ডলারের বেশি হলে তাদের হাই নেট ওয়ার্থ ইনডিভিজুয়্যালস (এইচএনডব্লিউআই) বলে।

যাদের ৩ কোটি ডলারের ওপরে তাদের আলট্রা হাই নেট ওয়ার্থ ইনডিভিজুয়্যালস (ইউএইচএনডব্লিউআই) বলে। ২০১৯ সালের চেয়ে ২০২০ সালে এইচএনডব্লিউআই কমেছে সাড়ে ৩ লাখ। ইউএইচএনডব্লিউআই কমেছে ৬ হাজার ৮৮৪ জন।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর