দুপুরে রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

অনলাইন ডেস্ক

দুপুরে রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণকাজে গ্যাস পাইপলাইন স্থানান্তরের জন্য সোমবার (৪ জানুয়ারি) রাজধানীর বেশকিছু এলাকায় বন্ধ থাকবে গ্যাস সরাবরাহ।

রোববার (৩ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।


আরও পড়ুন: সরকার কারা ডুবায় কীভাবে ডুবায়

মরদেহ পোড়ানোকালে হঠাৎ ভেঙ্গে পড়ল ছাদ, নিহত ১৯

আরও পড়ুন: ধর্ষকের গোপনাঙ্গ কাটার আইন চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে তিনি

ওরা আমার বুক, গোপনাঙ্গ পুড়িয়ে দিয়েছে : সৌদি ফেরত তরুণী


ঘোষণা অনুযায়ী, সোমবার (৪ জানুয়ারি) দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত রাজধানীর নাখালপাড়া এলাকার সমগ্র, পূর্ব নাখালপাড়া এবং নাখালপাড়া লেভেল ক্রসিং সংলগ্ন পশ্চিম নাখালপাড়া সংলগ্ন এলাকায় সব ধরনের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কিউলেক্স মশার উপদ্রপে অতিষ্ঠ নগরবাসী

প্লাবন রহমান

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে মশা নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। বুধবার দুপুরে রাজধানীর পান্থকুঞ্জ এসটিএস উদ্বোধন শেষে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এসময় উপস্থিত স্থাণীয় সরকার মন্ত্রী বলেন-কিউলেক্স মশা খুব বিপজ্জনক নয়। এজন্য এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

রাজধানীতে প্রতিবছরই মশার উপদ্রব থাকলেও-এবার তা সব মাত্রাকে ছাড়িয়েছে। মশার দাপটে কোথাও বসাই যেন কঠিন।


সবইতো চলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন ঈদের পরে খুলবে: নুর

আইন চলে ক্ষমতাসীনদের ইচ্ছেমত: ভিপি নুর

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

৭৫০ মে.টন কয়লা নিয়ে জাহাজ ডুবি, শুরু হয়নি উদ্ধার কাজ


বাসা, অফিস, রাস্তাঘাট সবখানেই মশার উপদ্রবে অতিষ্ট নগরবাসী। অনেকদিন ধরে মশায় নগরবাসী কোনঠাসা হলেও-কার্যত কোন পদক্ষেপ নেই সিটি কর্পোরেশনের। আর এজন্য মশার কামড় খেয়েই জীবন-জীবিকা চলছে অসহায় নগরবাসীর।

এবার আশার কথা শোনাচ্ছেন ঢাকা দক্ষিণের মেয়র। বললেন- ডেঙ্গু অনেকটা নিয়ন্ত্রন করা গেলেও-পরিকল্পনায় ঘাটতির কারণে কিউলেক্স মশাকে দমন করা যায়নি। তবে- কৌশল বদলে কিউলেক্স মশাকে নিয়ন্ত্রন করতে অন্তত দুসপ্তাহ নগরবাসীকে ধৈয্য ধরার অনুরোধ জানান মেয়র।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর পান্থপথের পান্থকুঞ্জ বক্স কালভার্ট ও পান্থকুঞ্জ অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্র-সেকেন্ডারি ট্রানস্ফার স্টেশনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব বলেন দক্ষিণের মেয়র।

এসময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন- খাল পরিষ্কার পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসায় মশাও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। তবে দুই সিটি কর্পোরেশন যথাসাধ্য চেষ্টা চালাচ্ছে।

সিটি কর্পোরেশন গেল দু্ই মাসে প্রায় ২০ কিলোমিটার খাল থেকে প্রায় ২ লাখ মেট্রিক টন বর্জ্য-পলি অপসারণ করে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়

অনলাইন ডেস্ক

৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়

রাজধানীর টঙ্গী এলাকায় বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) নয় ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখা হবে। পাইপলাইন স্থানান্তরের কাজের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বুধবার (৩ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিতাস জানায়।

বলা হয়, টঙ্গী-জয়দেবপুর রেল লাইনের বনমালা এলাকায় গ্যাস পাইপ লাইন ও ভাল্পপিট স্থানান্তর কাজের টাই-ইন এর জন্য আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) সকাল ৯টা হতে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মোট ৯ ঘণ্টা টঙ্গীর দত্তপাড়া, বনমালা ও আশেপাশের এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।


সবইতো চলছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন ঈদের পরে খুলবে: নুর

আইন চলে ক্ষমতাসীনদের ইচ্ছেমত: ভিপি নুর

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

৭৫০ মে.টন কয়লা নিয়ে জাহাজ ডুবি, শুরু হয়নি উদ্ধার কাজ


এসব এলাকার সব ধরনের গ্রাহক অর্থাৎ আবাসিক, বাণিজ্যিক, শিল্প ও সিএনজি শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এসময় পার্শ্ববর্তী এলাকায় গ্যাসের চাপ কম থাকতে পারে বলে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ জানায়।

এ ব্যাপারে দুঃখ প্রকাশ করেছে তিতাস।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সুনামগঞ্জের ছাতক-দোয়ারাবাজার সড়কে

অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে বেইলী ব্রিজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে বেইলী ব্রিজ ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

সুনামগঞ্জের ছাতক-দোয়ারাবাজার সড়কে অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে সড়ক ও জনপথ বিভাগের বেইলী ব্রিজ ভেঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। শনিবার দুপুরে দোয়ারাবাজার উপজেলা সদরের নইনগাঁও গ্রামের মাঝে নোয়াজের খালের ১০০ ফুট বেইলী ব্রিজে এই ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয়রা জানান, দোয়ারাবাজার উপজেলা সদরের নোয়াজের খালের বেইলী ব্রিজটি দীর্ঘদিন ধরেই ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। সওজ এর পক্ষ থেকে এই ব্রিজে তিন টনের বেশি মালামাল পরিবহন নিষেধ রয়েছে এবং এই ব্রিজের পাশেই নতুন একটি ব্রিজ নির্মাণাধীন রয়েছে। 


৭৬ জন সৌদি নাগরিকের উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

গাড়িতে অগ্নিকান্ড, রেকর্ড সংখ্যক গাড়ি উঠিয়ে নিচ্ছে হুন্দাই

সানি লিওনের জায়গা নিলেন আবিরা! (ভিডিও)

অন্য পুরুষের সাথে সম্পর্ক নিয়ে সন্দেহ, স্ত্রীকে খুন


আজ শনিবার দুপুরে পাথর বোঝাই ওই ট্রাকটি সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ থেকে দোয়ারাবাজার হয়ে ছাতকে যাচ্ছিল। কিন্তু ট্রাকে অতিরিক্ত পাথর বোঝাই থাকায় ব্রিজটি ভেঙ্গে খালে পড়ে গেছে।

এ সময় ট্রাকের চালক ও দুইজন সহকারি সামান্য আহত হয়েছে। তারা স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। গুরুত্বপূর্ন বেইলী ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ায় ছাতক-দোয়ারাবাজার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ব্রিজের দুই দিকে যানবাহন আটকা পড়েছে। 

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের ছাতক-দোয়ারাবাজার এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এসএম সাইফুল ইসলাম জানান, নইনগাঁও বেইলী ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ। অতিরিক্ত পাথর বোঝাই ট্রাকের চাপে ভেঙ্গে গেছে। 

তিন টনের বেশি যানবাহন চলাচলে নিষেধ থাকলেও রাতের আধারে অন্তত ৪০ টন ওজনের পাথর বোঝাই ট্রাক উঠায় সেটি ভেঙ্গে পড়েছে। ব্রিজটি দ্রুত মেরামত করে যোগাযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে লোক পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ঢল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায়

অনলাইন ডেস্ক

কর্মস্থলে ফেরা মানুষের ঢল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায়

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ৩ দিন ছুটি শেষে কর্মস্থল ফেরা মানুষের ঢল নেমেছে। এতে দৌলতদিয়ায় ৩ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে। দ্বিগুণ ভাড়াসহ নানা ভোগান্তির অভিযোগ যাত্রীদের।

আজ সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) ভোর থেকে লঞ্চ ও ফেরিতে কর্মস্থলে ফেরা মানুষের চাপ বাড়তে থাকে। তিল ধারণের জায়গা নেই লঞ্চ ও ফেরিতে। ভিড় রয়েছে ফেরিঘাটে। নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে অনেক যানবাহন।


ঘুমের চাইতে নামাজ উত্তম

মেয়েটা সিগারেট খাচ্ছে আর ড্রাইভ করছে পাশে বয় ফ্রেন্ড!

তামিমাকে আমি আর ফেরত নিতে চাই না: রাকিব

তৃতীয় সন্তানের বাবা হচ্ছেন সাকিব


ঘাট কর্তৃপক্ষ জানায়, কর্মস্থল ফেরা মানুষের চাপ বেড়ে কয়েক গুণ। পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ১৬টি ফেরি ও ২২টি লঞ্চ চলাচল করছে। 

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের এ জি এম মো. জিল্লুর রহমান জানান, আমাদের যানবাহনের সঙ্গে সঙ্গে দুর্ভোগের কথা মাথায় রেখে যাত্রীও পার করা হচ্ছে। 

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরা উপকূলে জোয়ার ভাটায় হাবুডুবু খাচ্ছে ৫০ হাজার মানুষ

শাকিলা ইসলাম জুঁই, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা উপকূলে জোয়ার ভাটায় হাবুডুবু খাচ্ছে ৫০ হাজার মানুষ

গত ২০ মে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড় আম্পান। ওই সময় ঝড় ও জলোচ্ছ্বাসের আঘাতে পাউবো’র বেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে পানিতে তলিয়ে যায় উপজেলার বেশ কিছু এলাকা। যার একটি হচ্ছে প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়ন।

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের পর সাড়ে ৮মাস পার হলেও বাঁধ নির্মাণ শেষ না হওয়ায় উপজেলার প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়নের মানুষ তাদের দুর্ভোগ কাটিয়ে উঠতে পারেনি। উপজেলা প্রশাসনের তথ্যানুযায়ী ১০ হাজার পরিবারের ৫০ হাজার মানুষ এখনও পানিবন্দী অবস্থায় নিয়মিত জোয়ার-ভাটার মধ্যে বসবাস করছে।

সাতক্ষীরা শহর থেকে ৫৫ কিলোমিটার দূরে আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের প্রতাপনগর, কুড়িকাউনিয়া, হরিশখালী, চাকলা, শ্রীপুরসহ বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে ও মানুষজনের সঙ্গে কথা বলে দেখা গেছে, ঘরবাড়ি, গাছগাছালি, রাস্তাঘাট, ফসলের মাঠ, চিংড়িঘের, পুকুর, পানির আধার সবকিছুই নিশ্চিহ্ন করে উপকূলবাসীকে নিঃস্ব করে দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। আম্পানের আঘাতে খোলপেটুয়া নদী ও কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয় গ্রামের পর গ্রাম। গাছপালা, ঘরবাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে দুমড়েমুচড়ে পড়ে। ফসলের খেত আর মাছের ঘের ভেসে যায়। বিধ্বত্ত জনপদে পরিণত হয় প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়নের ৩৯টি গ্রাম। দুই ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার পরিবারের ৫০ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আম্পানের সারে ৮মাস পার হলেও এখনো তাদের দুর্ভোগ কাটিয়ে উঠতে পারেনি।

আরও পড়ুন: 


সাকিবের ছুটি মঞ্জুর

‘ইরানকে নিয়ে ৪২ বছর ধরে জুয়া খেলেছ আমেরিকা’

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, একাদশে পরিবর্তন

সব হত্যার দ্রুত বিচার হোক: দীপনের বাবা


নাকনা গ্রামের সিমা আক্তার জানান, দির্ঘদিন আমরা বিলের ভেতর পড়ে আছি আমাদের কেউ খোঁজও নেয় না । প্রায় ছেলে মেয়েরা অসুস্থ হয়ে পরছে। বাড়ি থেকে ভেলায় করে মেইন সড়কে আসতে হয়। এতো কষ্ট নিতে পারছি না।

কুড়িকাউনিয়া রবিউল ইসলাম জানান, আমাদের আর এখানে থাকার কোনো ইচ্ছা নেই, আম্পান আমাদের সব শেষ করে দিয়েছে। ঘরের ভেতর জোয়ার ভাটার পানি ওঠানামা করছে কোনো আশায় আমরা এখানে পড়ে থাকব?

শ্রীপুর গ্রামের রবিউল মোড়ল বলেন, ২০০৯ সালের ২৫ মে আইলার আঘাতে ভেঙে তছনছ হয়ে যায় আমাদের ঘরবাড়ি। আইলায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ভেসে যায় গ্রামের পর গ্রাম। তখনো আমরা এত পানি দেখিনি।

শ্রীউলার মোকছেদ আলি জানান, বর্তমানে আমাদের থাকার জায়গা নেই, টোঁং বেধে কষ্ট করে সেখানে থাকি ছেলেপুলে নিয়ে, ঘরে খাবার নেই, খাওয়ার পানি ,স্যানিটেশন ব্যবস্থা একেবারেই নেই।

প্রতাপনগরে দায়িত্বরত পাউবো’র (এসও) আলমগীর হোসেন জানান, বর্তমানে,কুড়িকাহনিয়া,চাকলা ও হরিশখালী এ তিনটা পয়েন্ট দিয়ে জোয়ার ভাটা পানি উঠা নামা করছে। আগামী ৫দিনের ভেতর কুড়িকাহনিয়া আটকাতে পারবো। চাকলা কয়েকদিন লাগবে। আগামী এ মাসের ভেতর সব বাঁধ আটকানো সম্ভব হবে বলে আশা করছি।

প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন জানান, আম্পান আমাদের সব শেষ করে দিয়েছে । আমাদের কষ্টের কোন সীমা নেই। আম্পানের পরবর্তী বাঁধ বাধার পর দুইবার ভেঙ্গে পুরো ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে । এতে ঘরবাড়ি, মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে । বর্তমান ৩টা পয়েন্ট দিয়ে জোয়ার ভাটা চলছে। প্রতাপনগরের অবস্থা ২০ মে’র মত হয়েছে। একটা মানুষ মারা গেলে ও তার কবরটা পানির ভেতর দিতে হচ্ছে। প্রতাপনগরের মানুষের দুর্ভোগের কোনো শেষ নেই।

শ্রীউলা উপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল জানান,সাড়ে ৮মাস পরও আমার ইউনিয়নের অনেক মানুয় পানির ভেতর বসবাস করেছে। মানুষের ঘরে খাবার নেই, খাওয়ার পানি নেই। স্যানিটেশন ব্যবস্থা ভেঙ্গে পরেছে। হাজরাখালি ও
কোলা বেড়ী বাঁধ আটকানো হলেও মানুষের দুর্ভোগ এখনো কমনি।

আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মীর আলিফ রেজা বলেন, বেড়িবাঁধগুলোর সংস্কারকাজ দরুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সংস্কারের ফলে ভাঙা বেড়িবাঁধগুলো আগের মতো দৃশ্যমান হচ্ছে। বাঁধের কাজ শুরু হওয়ায় এলাকাবাসী তাঁদের বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর