‘ফল পাল্টাতে চাপ’ দেওয়া ট্রাম্পের ফোনালাপ ফাঁস

অনলাইন ডেস্ক

‘ফল পাল্টাতে চাপ’ দেওয়া ট্রাম্পের ফোনালাপ ফাঁস

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শেষ হয়েছে দুই মাস হয়ে গেছে। এখনও পরাজয় মেনে নেননি বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। উল্টো ট্রাম্প নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার জন্য জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের সেক্রেটারি অব স্টেটকে চাপ দিয়েছেন। এ জন্য তাকে প্রয়োজনীয় ভোট সংগ্রহে টেলিফোনে সরাসরি নির্দেশ দেন ট্রাম্প।

২ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জর্জিয়ার সেক্রেটারি অব স্টেট ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে ফোন করেন। দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের দীর্ঘ ফোনালাপের অডিও রবিবার প্রথম প্রকাশ করে। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। 

ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ট্রাম্প প্রথমে ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে নানাভাবে বোঝানোর চেষ্টা করেন। তার প্রশংসায় নানা কথা বলেন। তার ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করার জন্য বলেন। এতেও কাজ না হলে অপরাধের ভুয়া অভিযোগে ফাঁসানোর হুমকি দেন। একপর্যায়ে ট্রাম্প বলে বসেন, ব্র্যাড রাফেনসপারজার খুব বড় ঝুঁকি নিচ্ছেন।

এ ঘটনায় দেশজুড়ে আলোচনা শুরু হয়; প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নির্বাচনের ফল পাল্টাতে আর কত নিচে নামবেন, আর কত–কী করবেন, এ নিয়ে মার্কিন মিডিয়া সরগরম হয়ে উঠেছে। যদিও তার এসব উল্টা-পাল্ট কর্মকাণ্ড বন্ধ করার জন্যও কেউ এগিয়ে আসছে না।

ফাঁস হওয়া ফোনালাপের সূত্র ধরে দেখা যায়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সেক্রেটারি অব স্টেটকে ১১ হাজারের বেশি ভোট কোনোভাবে খুঁজে বের করার জন্য বারবার বলছেন বলে ফোনালাপে শোনা যায়। সেখানে ট্রাম্প জর্জিয়ার জনগণ ক্ষুব্ধ, আমেরিকার লোকজনও ক্ষুব্ধ বলে উল্লেখ করেন। ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে টেলিফোনে ট্রাম্প বলছিলেন যে আবার গণনা করে ‘ভোট পাওয়া গেছে’ বলার মধ্যে কোনো ‘ভুল নেই’।

ট্রাম্প বলছিলেন, ‘আমি এই একটা জিনিসই চাইছি—কোনোভাবে ১১ হাজার ৭৮০ ভোট খুঁজে বের করা।’ ট্রাম্পের এই চাওয়ার কারণ হলো- এর মাধ্যমে জো বাইডেনের চেয়ে তার এক ভোট বেশি হয়ে যাবে এবং জর্জিয়ার নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করেছেন, তা প্রমাণিত হবে। এমনিতেই নির্বাচনে তিনি জয়লাভ করেছেন বলে উল্লেখ করেন।

ট্রাম্পের কথার পরিপ্রেক্ষিতে ব্র্যাড রাফেনসপারজারকে বলতে শোনা যায়, তিনি (ট্রাম্প) ভুল তথ্যের ওপর ভিত্তি করে কথা বলছেন। রাজ্যের ভোট ঠিকই একাধিকবার গণনা করা হয়েছে। এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথায় নতুন ভোট খোঁজে পাওয়ার কাজ যে তিনি করবেন না, এমন কথা বিনয়ের সঙ্গে বলেন ব্র্যাড রাফেনসপারজার।

ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম থেকে বেপরোয়া ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনে পরাজয় মানেননি। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে কোনো জাতীয় নির্বাচনের পর যেমন সব কাণ্ড ঘটেনি, তা–ই ঘটিয়েছে তিনি। একের পর এক মামলা করেছেন। অর্ধশতাধিক মামলার একটাও কেউ আমলে নেয়নি। 

সুপ্রিম কোর্টও ট্রাম্পের নির্বাচনে কারচুপির ভুয়া দাবি শুনানিতেই রাজি হননি। এখন ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ইলেক্টোরাল ভোট গণনা নিয়ে আপত্তি ওঠানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন ট্রাম্প। নিজের সমর্থক আইনপ্রণেতাদের চাপ দিচ্ছেন।


আরও পড়ুন: সরকার কারা ডুবায় কীভাবে ডুবায়

মরদেহ পোড়ানোকালে হঠাৎ ভেঙ্গে পড়ল ছাদ, নিহত ১৯

আরও পড়ুন: ধর্ষকের গোপনাঙ্গ কাটার আইন চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে তিনি

ওরা আমার বুক, গোপনাঙ্গ পুড়িয়ে দিয়েছে : সৌদি ফেরত তরুণী


দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে প্রকাশিত ফোনালাপের অডিও এমন একটি প্রমাণ, যার মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দেশের সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর ব্যক্তি হয়ে অধস্তন রাজ্য কর্মচারীদের ভোটের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছেন। এর আগে জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের গভর্নর ব্রায়ান কেম্পকে এমন চাপ দিয়েছেন।

রাজ্যের রিপাবলিকান গভর্নর এবং সেক্রেটারি অব স্টেট—দুজনই রিপাবলিকান। তারা প্রেসিডেন্টের সরাসরি চাপ সত্ত্বেও নিজেদের নৈতিক অবস্থান থেকে সরে দাঁড়াননি। একই কাজ করেছেন পেনসিলভানিয়া, অ্যারিজোনাসহ বেশ কিছু রাজ্যের কর্মকর্তারা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চাপ, হুমকি ও প্রলোভনের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন রাজ্যপর্যায়ের এসব কর্মকর্তা।

গতকাল ট্রাম্পের পক্ষ থেকে এক টুইটবার্তা দেওয়া হয়। সেখানে ব্র্যাড রাফেনসপারজারর সঙ্গে কথা বলার বিষয়টি জানান ট্রাম্প। কিন্তু ট্রাম্পের ভাষ্য, ব্র্যাড রাফেনসপারজার নির্বাচনসংক্রান্ত জালিয়াতি নিয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি। তবে ব্র্যাড রাফেনসপারজার ফিরতি টুইটবার্তায় বলেছেন, ‘শ্রদ্ধার সঙ্গে বলতে হচ্ছে মি, প্রেসিডেন্ট, আপনি যা বলছেন, তা ঠিক নয়। সত্য বেরিয়ে আসবে।’

এদিকে টেড ক্রুজসহ ১১ জন প্রভাবশালী সিনেটর অন্য আইনপ্রণেতাদের নিয়ে ৬ জানুয়ারি কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে ঝামেলা পাকানোর সব প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন। 

সিনেটর ক্রুজসহ অন্যরা দাবি জানাচ্ছেন, নির্বাচনে জালিয়াতি হয়েছে কি না, তা একটি কমিশন গঠন করে তদন্ত করা হোক। সে পর্যন্ত ইলেক্টোরাল ভোটের ফলাফল স্থগিত থাকবে। ভোটে অনিয়ম পাওয়া গেলে রাজ্য আইনপ্রণেতাদের ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন তারা।

সিনেটে ডেমোক্র্যাট পার্টির নেতা চার্লস শুমার গতকাল বিকেলে বলেছেন, সিনেটর টেড ক্রুজ এখন ভোট কারচুপি নিয়ে তদন্ত করতে ইচ্ছুক। ওয়াশিংটন পোস্টের একটি লিংক সংযুক্ত করে টুইটবার্তায় চাক শুমার বলেছেন, সিনেটর টেড ক্রুজ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ব্যাপারে তদন্ত শুরু করে কাজটির সূচনা করতে পারেন।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভারতে ডাকাতির অভিযোগে কথিত তিন বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ডাকাতির অভিযোগে কথিত তিন বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

ভারতের দিল্লিতে ডাকাতির অভিযোগে কথিত তিন বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মোহাম্মদ খায়রুল ওরফে আরমান (৪৬), মোহাম্মদ সাদিক শেখ (২৯) ও মন্টু মোল্লা (৩০)। এ খবর দিয়েছে ভারতের সরকারি বার্তা সংস্থা পিটিআই।

এতে আরও বলা হয়, গাজিয়াবাদের কাভি নগরে একটি ডাকাতি ও দিল্লি-এনসিআরে বাড়িতে ঢুকে জোরপূর্বক অপরাধের ১৮টি অভিযোগ আছে তাদের বিরুদ্ধে। এসব অপরাধ করে তারা বাংলাদেশে ফেরত আসে। 

পরে আবার তারা ভারতে ফিরে যায় বলে বলা হয়েছে রিপোর্টে। পুলিশের তথ্যমতে, গত ২৮ শে ফেব্রুয়ারি কাভি নগরে একটি বাড়ির জানালার গ্রিল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে চার ব্যক্তি।


দেব-মিমি-নুসরাত যে কারণে প্রার্থীদের তালিকায় নেই

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা

রণবীরের সঙ্গে ক্যাটরিনার খোলামেলা ছবি বিশ্বাস হয়নি সালমানের

এখন আর বিবাহবিচ্ছেদ চান না নওয়াজের স্ত্রী, নরম করলেন গলার সুর!


তারা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ওই বাড়ির সব মূল্যবান সম্পদ লুটপাট করে। পুলিশ তদন্তে নামে। তারা এক পর্যায়ে দেখতে পায় একটি গ্যাংয়ের নেতৃত্ব দিচ্ছে খায়রুল। ভারতে অনেক অপরাধের সঙ্গে সে ও তার গ্রুপ যুক্ত। এ অবস্থায় খায়রুলের গতিবিধি সম্পর্কে তথ্য পায় পুলিশ। বলা হয়, তার গ্যাং অবস্থান করছে লাদো সারাই এলাকায়। এ খবর পাওয়ার পর ফাঁদ পাতে পুলিশ।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেব-মিমি-নুসরাত যে কারণে প্রার্থীদের তালিকায় নেই

অনলাইন ডেস্ক

দেব-মিমি-নুসরাত যে কারণে প্রার্থীদের তালিকায় নেই

বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তাল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ তো লেগেই আছে। এদিকে নির্বাচনের আলোচনায় বাড়তি ঘি ঢেলেতে তৃণমূলে একঝাঁক তারকার যোগ দেয়া। তারকাদের রাজনীতিতে যোগ দেয়ার খবরে আলোচনা থামছেই না। তবে শুধু যে তৃণমূলেই তা নয় বিজেপিতেও আছে তারকাদের মেলা।

গত শুক্রবার দুপুরে কলকাতার কালীঘাটের বাড়ি থেকে বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ২৯১ জনের তালিকায় দেব, মিমি চক্রবর্তী ও নুসরাত জাহানের নাম না থাকায় আলোচনা আরো দীর্ঘায়িত হচ্ছে। কেউ বলছেন প্রার্থীতা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে তাদের।

তবে যারা ভাবছে তাদের বাদ দেয়া হয়েছে তারা ভুল ধারণা নিয়ে বসে আছেন। কেননা ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর আসন থেকে মিমি চক্রবর্তী, বসিরহাট আসন থেকে নুসরাত জাহান এবং ঘাটাল থেকে দেব সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। যারা দেশটির কেন্দ্রীয় সাংসদ তাদের বিধানসভায় আসনের কোন প্রয়োজন আছে কি?

আরও পড়ুন:


ওমান সাগরে তৈরি হবে ইরানের সর্ববৃহৎ সমুদ্রবন্দর

নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ হবে তাই ঘুম হয়নি শ্রাবন্তীর

ট্রাকচাপায় চবি আইন বিভাগের প্রথম ব্যাচের ছাত্রের মৃত্যু

শতকোটি টাকার মানহানির মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন শমী কায়সার


নতুন করে তৃণমূলে অনেক তারকা যোগ দিয়েছেন। কিন্তু সবাইকে প্রার্থী করেননি মমতা। এবার যারা প্রার্থী তালিকায় জায়গা পাননি তাদের জন্য ভবিষ্যতে বিধান পরিষদে জায়গা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন শাসক দলের এই নেত্রী।

টালিউড তারকাদের মধ্যে এবার মমতার টিকিট পেয়েছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক, সোহম চক্রবর্তী, অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সায়নী ঘোষ, কৌশানি মুখোপাধ্যায়, লাভলি মৈত্র, জুন মালিয়া, কীর্তন শিল্পী অদিতি মুন্সি প্রমুখ।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ওমান সাগরে তৈরি হবে ইরানের সর্ববৃহৎ সমুদ্রবন্দর

অনলাইন ডেস্ক

ওমান সাগরে তৈরি হবে ইরানের সর্ববৃহৎ সমুদ্রবন্দর

ওমান সাগরে নির্মাণ করা হবে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্ববৃহৎ সমুদ্রবন্দর। ইরানের বন্দর ও মেরিটাইম অর্গানাইজেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মাদ রাস্তাদ গতকাল শনিবার একথা জানিয়েছেন।

তিনি জানান, তিন ধাপে বন্দর নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করা হবে এবং এ বন্দরের ধারণক্ষমতা হবে ১০ থেকে ২০ কোটি টন। তিনি বলেন, এটি হবে ইরানের সবচেয়ে বড় বাণিজ্যিক বন্দর।

মোহাম্মাদ রাস্তাদ জানান, হরমুজগান প্রদেশের জাস্ক কাউন্টির মোবারাক পর্বত এলাকার কাছে ওমান সাগরে এই বন্দর নির্মাণ করা হবে।

আরও পড়ুন:


নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ হবে তাই ঘুম হয়নি শ্রাবন্তীর

ট্রাকচাপায় চবি আইন বিভাগের প্রথম ব্যাচের ছাত্রের মৃত্যু

শতকোটি টাকার মানহানির মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন শমী কায়সার

ভুয়া চিকিৎসা ও অর্থ আত্মসাত: যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশির ১৫ বছরের জেল


তিনি বলেন, বন্দরের উন্নয়ন এবং বাণিজ্যিক বন্দর প্রতিষ্ঠা করা ইরানের কাছে এ মুহূর্তে সবচেয়ে বড় গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। তিনি বলেন, ওমান সাগরে বন্দর নির্মাণের এই পদক্ষেপ ইরানের বন্দর ও মেরিটাইম অর্গানাইজেশনের পক্ষ থেকে একটি কৌশলগত পদক্ষেপ।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

পুলিশ কর্মকর্তাদের ফেরত চেয়ে ভারতের কাছে চিঠি দিল মিয়ানমার

অনলাইন ডেস্ক

পুলিশ কর্মকর্তাদের ফেরত চেয়ে ভারতের কাছে চিঠি দিল মিয়ানমার

সীমান্ত পার হয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়া মিয়ানমারের পুলিশ কর্মকর্তাদের ফেরত চেয়ে ভারতের কাছে চিঠি দিয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। মিয়ানামারের কিছু পুলিশ কর্মকর্তা তাদের পরিবার নিয়ে পালিয়ে ভারতে যান। তারা জান্তা সরকারের নির্দেশ পালনে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। 

ভারতীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি মিয়ানমারের কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে প্রবেশ করেছে। এক চিঠিতে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে’ ওই সব পুলিশ কর্মকর্তাদের ফেরত পাঠাতে বলেছে মিয়ানমার।  

গত মাসে সামরিকবাহিনীর ক্ষমতা দখলের পর থেকে মিয়ানমারে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হয়। বিবিসির খবরে বলা হয়, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছে মিয়ানমারের নিরাপত্তাবাহিনী। নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ৫৫ জন নিহত হয়েছেন।


নামাজের গুরুত্বপূর্ণ সুন্নাত সমূহ

সূরা মুহাম্মদের বিষয়বস্তু ও মূল বক্তব্য

আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ

একদিন পরই সুর পাল্টালেন এমপি একরাম


স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার মিয়ানমারের অন্যতম বড় শহর ইয়াঙ্গুনে ব্যাপক বিক্ষোভ করে আন্দোলনকারীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস, রাবার বুলেট ও স্ট্যান গ্রেনেড ছোড়ে। তবে প্রাথমিকভাবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। 

ভারতের মিজোরাম রাজ্যের ডেপুটি কমিশনার মারিয়া সিটি জুয়ালি আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, ভারতে আসা পুলিশ কর্মকর্তাদের ফেরত চেয়ে মিয়ানমারের ফালাম জেলা থেকে তাঁকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমারের কাছে তথ্য আছে যে, তাদের দেশের অন্তত ৮ জন পুলিশ কর্মকর্তা সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে প্রবেশ করেছেন।

চিঠিতে বলা হয়, ‘দুই প্রতিবেশী দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে, ওই ৮ জন পুলিশ কর্মকর্তা যারা ভারতের সীমানায় প্রবেশ করেছে; তাঁদের আটক করে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করতে আপনাদের অনুরোধ করা হলো।’

এখন দিল্লীর আদেশের অপেক্ষায় আছেন জুয়ালি। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে পুলিশ কর্মকর্তা এবং তাদের পরিবার মিলিয়ে মোট ৩০ জনের মত মিয়ানমারের নাগরিক এখন ভারতে অবস্থান করছে। তারা ভারতে আশ্রয়ের আবেদন করেছে। 

গতকালও ভারতের সীমান্তের কাছাকাছি কয়েক হাজার মানুষ অপেক্ষা করেছে। যদিও ভারত সরকারের এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য এখনো পাওয়া যায়নি। 

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ইরানের রেলপথ যাবে ভূমধ্যসাগর পর্যন্ত

অনলাইন ডেস্ক

ইরানের রেলপথ যাবে ভূমধ্যসাগর পর্যন্ত

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট ইসহাক জাহাঙ্গিরি বলেছেন, ভবিষ্যতে তার দেশের রেললাইন ভূমধ্যসাগরের সঙ্গে সংযুক্ত হবে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ইরানের সঙ্গে প্রায় সারা বিশ্বের রেললাইন সংযুক্ত রয়েছে।  

ইসহাক জাহাঙ্গিরি বলেন, ইরাকের বসরা থেকে শালামচে পার্যন্ত রেল লাইন চালু করার পর সিরিয়ার রেল লাইন পুনঃনির্মাণ করা হবে এবং এর মাধ্যমে ভূমধ্যসাগরের সঙ্গে যুক্ত হবে ইরানের রেল লাইন।

আরও পড়ুন:


ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : ইন্দিরা থেকে শেখ হাসিনা

নামাজের গুরুত্বপূর্ণ সুন্নাত সমূহ

সূরা মুহাম্মদের বিষয়বস্তু ও মূল বক্তব্য

আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ


যেসব প্রতিবেশী দেশ সমুদ্রবন্দরের অভাবে আন্তর্জাতিক পানিসীমায় প্রবেশ করতে পারে না সেইসব দেশ আমদানি-রপ্তানির কাজে ইরানের সক্ষমতা কাজে লাগাতে পারে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর