শেখ হাসিনার সাহস ও সততার জোর এখানেই
শেখ হাসিনার সাহস ও সততার জোর এখানেই

শেখ হাসিনার সাহস ও সততার জোর এখানেই

Other

শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে কলিজা লাগে। সৎ সাহস লাগে। ক্ষমতা হস্তান্তর করতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এইবার ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকরা যা করলেন তা খুবই লজ্জাজনক।

চারজনকে জীবনও দিতে হলো।

শুধু এবার নয়, ডোনাল্ড ট্রাম্প যেদিন ক্ষমতা গ্রহণ করেন সেদিনও ওয়াশিংটন ডিসিতে লঙ্কাকাণ্ড হয়েছিল। হিলারি ক্লিনটন সমর্থকরা ব্যাপক ভাঙচুর ও নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছিল সেদিন।

এইবার আসেন বাংলাদেশ প্রসঙ্গে আসি। এরশাদ বিরোধী ৯০-এর গণ আন্দোলনের কথা সবাই জানি। ওই আন্দোলনে এবং ক্ষমতা বদলে কত মানুষকে প্রাণ দিতে হয়েছে। ১৯৯৬ সালে বিএনপি সরকার ক্ষমতা না ছাড়ার জন্য হেন কোনো অপকর্ম নাই যে করেনি। দেশব্যপী অসহযোগ আন্দোলন করতে হয়েছে বেগম জিয়ার আঁকড়ে থাকা ক্ষমতা ছাড়ার জন্য। ২০০৬ সালে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য বিএনপি-জামায়াত সরকার এতটাই অসাংবিধানিক কাজকর্ম করেছে যে ১/১১ এর মতো ঘটনা ঘটেছে।

তাস খেলে বরখাস্ত হলেন ৯ পুলিশ সদস্য

সেই কবরটির একপাশে লেখা ইয়াসিন, অন্যপাশে মিম হা মিম

অপরদিকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০১ সালে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিল যা ছিল শান্তিপূর্ণ। হস্তান্তরের রেকর্ড। কেউ বলতে পারবেন না সে সময় কোনো টু শব্দটি হয়েছে। এখানেই শেখ হাসিনার সাহস ও সততার জোর।

আশরাফুল আলম খোকন, প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি

news24bd.tvতৌহিদ

;