এবার বড় ভাই কাদেরকে বউ-টউ সামলানোর পরামর্শ কাদের মির্জার
এবার বড় ভাই কাদেরকে বউ-টউ সামলানোর পরামর্শ কাদের মির্জার

(বাঁ-দিক থেকে) ওবায়দুল কাদের, আবদুল কাদের মির্জা

এবার বড় ভাই কাদেরকে বউ-টউ সামলানোর পরামর্শ কাদের মির্জার

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচন, ভোট ও দলের রাজনীতি নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে আলোচনা-সমালোচনায় রয়েছেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার মেয়র প্রার্থী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা।

এবার বড় ভাই কাদেরকে বউ-টউ সামলানোর পরামর্শ দিলেন তিনি।  

তিনি বলেছেন, ‘তার (ওবায়দুল কাদের) ওপরও আমার ক্ষোভ আছে। এখানে জিততে হলে তার আমাদের লাগবে।

সামনে জিততে হলে ওনাকেও সতর্ক হতে হবে। এত সহজ নয়, কঠিন ব্যাপার। বউটউ সামলাতে হবে। আর ওনার সঙ্গে যারা হাঁটেন, তারা কার থেকে মাসোহারা পান, তার খোঁজখবর নিতে হবে। ’

আজ সকালে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী পথসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

বক্তব্যের শুরুতেই তিনি বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের আমার সঙ্গে নেই। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ আমার সঙ্গে নেই। নোয়াখালী ও ফেনীর আওয়ামী লীগ আমার বিরুদ্ধে অস্ত্রশস্ত্র পাঠিয়েছে। ডিসি, এসপি, নির্বাচন অফিসার আমার সঙ্গে নেই। আপনারা কেউ আমার সঙ্গে থাকবেন? থাকলে আমি কথা বলব। ’

যুব মহিলা লীগের পরিচয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করা হয়েছে, এমন অভিযোগ করে বসুরহাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘মুঠোফোনে আমাকে যুব মহিলা লীগের পরিচয় দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেছে। প্রশাসনকে জানিয়েছি, তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তাহলে এই মহিলার হাত অনেক শক্তিশালী, না হয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি কেন?’

তিনি বলেন, ‘আমি একটি জায়গায় দুর্বল। ওবায়দুল কাদের সাহেব অসুস্থ। তিনি মারা যাবেন, এটা বললে আমি দুর্বল হয়ে যাই। তারও বুঝতে হবে, তিনি জাতীয় নেতা। আওয়ামী লীগের দুইবারের সাধারণ সম্পাদক। আমি নোয়াখালীর, ফেনীর অপরাজনীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব, দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করব, গ্যাসের অধিকারের জন্য প্রতিবাদ করব। প্রতিবাদ করলে তখন বলে, আমি নাকি পাগল। ’

তুরাগ পাড়ে হবে নতুন সিটি: এলজিআরডি মন্ত্রী

কেজিএফ : চ্যাপ্টার টু’র টিজার লিক অনলাইনে!

বোনকে ধর্ষণচেষ্টা, মা-বাবার হাতে ছেলে খুন

সাঈদ খোকনের বক্তব্যে ‘ব্যক্তিগত আক্রোশের’ : মেয়র তাপস

এর আগে গতকাল শনিবার বসুরহাট পৌরসভার উপজেলা পরিষদের সামনে নির্বাচনী পথসভায় তিনি বলেছিলেন,  ‘ওবায়দুল কাদের সাহেব আমার ওপর রাগ করবে, তাতে আমার কিছু আসে যায় না। ’

আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা। গত ৩১ ডিসেম্বর থেকে হঠাৎ বিভিন্ন সভায় তার বক্তব্য নিয়ে দেশের রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। এসব বক্তব্যে সুষ্ঠু নির্বাচন ও জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি যথাযথভাবে করার দাবি জানান তিনি। দলের বিভিন্ন পর্যায়ের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধেও সরব হন। এসব দাবিতে ৩ জানুয়ারি সমর্থকদের নিয়ে বসুরহাটের জিরো পয়েন্ট এলাকা অবরোধ করেন কাদের মির্জা। টায়ার জ্বালিয়ে হাতে ঝাড়ু নিয়ে বিক্ষোভ দেখান তার সমর্থকেরা। সেই সময় কাদের মির্জা দাবি করে জানান, অসুস্থতা থেকে সুস্থ হয়ে তিনি সবসময় সত্য বলার পণ করেছেন।

news24bd.tv নাজিম

;