গোসলের দৃশ্য প্রকাশের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ

মাদারীপুর প্রতিনিধি

গোসলের দৃশ্য প্রকাশের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ

মাদারীপুর সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রীর গোসলের দৃশ্যধারন করে ব্লাকমেইল করার অভিযোগ উঠেছে। 

এই ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা হলেও পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেনি বলেও অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী নারী। 

স্থানীয় ও মামলার সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামের এক গৃহবধুর গোসলের দৃশ্যধারণ করে মো.দীন ইসলাম রাঢ়ী (৩৭) নামে এক যুবক। সেই দৃশ্য স্বামীর কাছে ও ফেসবুকে প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গত বছরের ১৩ নভেম্বর ওই নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এরপর ওই নারীকে বিভিন্ন সময় একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করে মো. দীন ইসলাম। একপর্যায় ওই নারী আত্মহত্যারও চেষ্টা করে। পরে এই ঘটনায় গত বছর ১৭ নভেম্বর মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী নারী। আদালত মামলাটি তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়।

চীনে সোনার খনিতে ২২ শ্রমিক আটকা

ভাইরাসের উৎস সন্ধানে চীনে যাবে ডব্লিউএইচওর তদন্তকারী দল

এফবিআই'এর কাছে মুসলিমদের তথ্য বিক্রি করেছে মুসলিম অ্যাপ

ভুক্তভোগী নারী বলেন, গোসলের ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে আমাকে ব্লাকমেইল করে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে। সেই ভিডিও আমার স্বামীর কাছে পাঠিয়ে আমার সুখের সংসার ধ্বংস করে দিয়েছে দীন ইসলাম।  একারনে আমি আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছিলাম। আমার চার বছরের সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে বেঁচে আছি।

 ভুক্তভোগী নারী মা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমরা গরীব মানুষ তাই পুলিশও আসামী গ্রেপ্তার করেনি। ওর জন্য আমার মেয়ে সংসার ভেঙ্গেছে। আমরা চাই দীন ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।

এব্যপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্মকর্তা ইন্সপেক্টর নাসির উদ্দিন বলেন, ‘মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে তাই তদন্তাধীন বিষয় বিস্তারিত কিছু বলতে চাই না। তবে শিঘ্রই আদালতে চার্জসীট দাখিল করা হবে।’

 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ডালপুরি-শিঙাড়ার চুলা ভাঙ্গা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০

অনলাইন ডেস্ক

ডালপুরি-শিঙাড়ার চুলা ভাঙ্গা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০

ডালপুরি-শিঙাড়া ভাজার চুলা ভেঙে দেয়ার জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে  ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের শিহিপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও নগরকান্দা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার শিহিপুর গ্রামের ইউসুফ মাতুব্বরের সমর্থক খোকন মাতুব্বরের ডালপুরি-শিঙাড়া ভাজার চুলা ভেঙে দেয় প্রতিপক্ষ কোহিনুর মাতুব্বরের সমর্থক বাসার মাতুব্বর। 


নাসির প্রেমিক না আমার বন্ধু : মডেল মিম

আমার বয়ফ্রেন্ড নিয়ে আমিও মজায় আছি : নাসিরের সাবেক প্রেমিকা

বাংলাদেশে সেরা লাইকি

আমাকে নিয়ে আর খেলতে দিবো না : মিলা


 

এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উভয়পক্ষের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় সংঘর্ষকারীরা ১০-১৫ বাড়িঘর ভাঙচুর করে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। 

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত গোলদার বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতসহ ৯দফা দাবিতে বরিশালে ক্যাবের মানববন্ধন

রাহাত খান, বরিশাল

নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতসহ ৯দফা দাবিতে বরিশালে ক্যাবের মানববন্ধন

সবার জন্য ট্রান্স ফ্যাট মুক্ত নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত আইন প্রনয়ন সহ ৯ দফা দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন করেছে কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। সংগঠনের বরিশাল জেলা শাখার ব্যানারে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হলের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 


জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষার নতুন সূচি ঘোষণা

লেবানন বিএনপির ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত

বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় কেটে ফেলা হল কিষানীর তিন হাজার গাছ

তামিমার পাসপোর্ট আসল কিনা মুখ খুললেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা


জেলা ক্যাব সভাপতি অ্যাডভোকেট হিরন কুমার দাশ মিঠুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) সভাপতি অধ্যাপকা শাহ সাজেদা, জেলা জাসদ সভাপতি আব্দুল হাই মাহাবুব, বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা রান এর নির্বাহী পরিচালক রফিকুল আলম, মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাব সভাপতি কাজী আবুল কালাম আজাদ, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের নেতা অ্যাডভোকেট এ,কে আজাদ এবং কাজী মিজানুর রহমান ফিরোজ প্রমুখ। 

বক্তারা ট্রান্স ফ্যাট মুক্ত নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে আইন প্রনয়ন সহ ৯ দফা দাবি জানান। 

 news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

শিক্ষার্থীদের শাহবাগ অবরোধের চেষ্টা, আটক ১০

অনলাইন ডেস্ক

শিক্ষার্থীদের শাহবাগ অবরোধের চেষ্টা, আটক ১০

পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ঢাকার শাহবাগ মোড় অবরোধ করতে এলে পুলিশ সে চেষ্টা ভেস্তে দেয়। একই সাথে ১০ জন শিক্ষার্থীকে 'জিজ্ঞাসাবাদের জন্য' পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের রমনা জোনের উপকমিশনার সাজ্জাদুর রহমান।

শাহবাগে জড়ো হতে না পেরে এক পর্যায়ে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সরে গিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

পরে বেলা ২টার দিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি দিয়ে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ছাড়েন।

আটকদের বিষয়ে প্রশ্ন করলে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “তাদেরকে আটক করা হয়নি। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেওয়া হয়েছে। তারা পুলিশ হেফাজতে আছে। তারা আসলেই শিক্ষার্থী কি-না সন্দেহ রয়েছে। যাচাই বাছাই করে কোনো সমস্যা না পেলে আমরা তাদের ছেড়ে দেব।"


ভূতের আছর থেকে বাঁচতে পৈশাচিক কান্ড

হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝুলানো হল নিথর দেহ

টিকা নেয়ার ১২ দিন পর করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

যমজ ভাই অস্ত্রোপচার করে পরিণত হলেন যমজ বোনে


আগের দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে নীলক্ষেত ও সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড় অবরোধ করে বিকাল পর্যন্ত বিক্ষোভ দেখায়। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের পরীক্ষা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু

অনলাইন ডেস্ক

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা)। ৯ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত জামুকার ৭২তম সভার কার্যবিবরণী থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

জামুকার সদস্য ও সাংসদ মোশাররফ হোসেনকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন সাংসদ শাজাহান খান ও মো. রশিদুল আলম। তারাও জামুকার সদস্য।

সংবিধান লঙ্ঘন, সংবিধানের মূলনীতি বাতিল, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের মদদ দেওয়া ও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রক্ষা, বিভিন্ন সময় আত্মস্বীকৃত খুনিদের সঙ্গে গোপনে যোগাযোগ, আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে জিয়াউর রহমানের সম্পৃক্ততামূলক বক্তব্য উল্লেখ থাকা, তাঁদের দেশত্যাগে সহায়তা ও গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়ন এবং মুক্তিযোদ্ধা হয়েও স্বাধীনতাবিরোধী লোকজন নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠন ইত্যাদি কারণে জামুকা জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।


হাতে নেই ছবি, তবুও বিলাসবহুল জীবনযাপন?

হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝুলানো হল নিথর দেহ

টিকা নেয়ার ১২ দিন পর করোনায় আক্রান্ত ত্রাণ সচিব

যমজ ভাই অস্ত্রোপচার করে পরিণত হলেন যমজ বোনে


সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেক্টর কমান্ডার ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার জিয়াউর রহমানকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ‘বীর উত্তম’ খেতাব দেয়।

এদিকে, স্বাধীনতার প্রায় ৫০ বছর পর জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় খেতাব হঠাৎ করে বাতিলের সিদ্ধান্তকে রাজনৈতিক ও উদ্দেশ্যমূলক বলছে বিএনপি। জামুকার এখতিয়ার নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তারা।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার সুষ্ঠু বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার পরিবার।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহতের বড় ভাই নূর উদ্দিন। এ সময়, তার বাবা নুরুল হুদা, মা মমতাজ বেগমসহ পরিবারের সদস্য ও আত্মীয় স্বজন ও জেলায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 


যে শর্ত মানলে ইরানের পরমাণু স্থাপনা পরিদর্শনের সুযোগ পাবে আইএইএ

যে সূরা নিয়মিত পাঠ করলে কখনই দরিদ্রতা স্পর্শ করবে না

বঙ্গবন্ধুর খুনিকে ফেরত চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে আবারও অনুরোধ

নিউজিল্যান্ডে পৌঁছেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল


তারা বলেন, নিহত মুজাক্কির সাংবাদিকতা পেশার পাশাপাশি সামাজিক ও মানবিক বিভিন্ন কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন। অসুস্থ্য ও মুমূর্ষ রোগীদের পাশে দাঁড়াতেন। তিনি রোগীদের প্রয়োজনে এ নেগেটিভ গ্রুপের রক্ত ২৬ জনকে দিয়েছেন। 

করোনাকালীন নিজ এলাকার অসহায় ও গরীব মানুষের দ্বারে দ্বারে খাবার এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন। ঈদে দুঃস্থ ও এতিমদের গোপনে সহযোগিতা করতেন। পরিবারের পক্ষ থেকে মুজাক্কির হত্যার সঠিক বিচার দাবী করেছেন। 

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য

পরবর্তী খবর