বিশ্বের সবচেয়ে স্মার্ট মাস্ক

অনলাইন ডেস্ক

প্রিন্ট করুন printer
বিশ্বের সবচেয়ে স্মার্ট মাস্ক

করোনা আসার পর থেকে মানুষ মাস্ক পরতে বাধ্য হয়েছে। নানা রকমের মাস্কে ছেয়ে গেছে বাজার। সিঙ্গাপুর ভিত্তিক গেমিং কম্পানি রেজার সম্প্রতি নতুন এক ধরণের মাস্ক তৈরি করেছে। বিশ্বের সবচেয়ে স্মার্ট মাস্ক তৈরি করেছে বলে দাবি কম্পানিটির। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয় এ তথ্য। 

মাস্কটি তৈরি সম্পূর্ণ করতে মাইক্রোফোনের সহযোগীতাও নেয়া হয়েছে। এই মাস্কে ভেতরের গরম হাওয়া বের হওয়ার ভেনটিলেশন আছে। আবার বাইরের ঠান্ডা হাওয়া ভেতরে যেতে পারে।  

প্রযুক্তি কনভেনশন সিইএসের ধারণা, এই ধরণের মাস্ক ব্যবহারকারীর ভয়েজকে প্রশস্ত করবে। যা ছদ্মবেশি বক্তৃতা রোধ করবে।

রেজার বলেছে, এই মাস্ক এন-৯৫ সার্জিক্যাল মাস্কের সমমানের। যদিও বিবিসি এই মাস্ক নিয়ে কোন রিভিউ করেনি এখনো। এই মাস্ক তৈরিতে স্বচ্ছ প্লাস্টিকের ব্যবহার করা হয়েছে। যেন ব্যবহারকারীর মুখমন্ডল পরিস্কার দেখা যায়। 
 
স্বচ্ছ মাস্ক তৈরি করাই এই কম্পানির জন্য একটা উদ্ভাবন। তার উপর আবার এই মাস্কে আছে হালকা লাইটের ব্যবস্থা। তার মানে হল আপনি মাস্ক পরিহিত অবস্থায় অন্ধকারে থাকলে অটোমেটিকভাবেই লাইট জ্বলে উঠবে। রেজার দাবি করেছে লাইট জ্বললেও কথা বলতে কোন সমস্যা হবে না। 


আরও পড়ুন: রংপুরে বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে বাসের সুপারভাইজার নিহত


এটা ব্যবহার করা আরামদায়ক কিনা তা নিয়ে বিবিসির প্রযুক্তি টিম এখনো দেখেননি। 

রেজার দাবি করেছে, মুখের চারপাশে সিলিকনের ফিটিং এই মাস্ক আরামদায়ক। এটা ব্যবহারকারীকে মুখে হাত দেওয়া হতে বিরত রাখবে। এই মাস্কের আরেকটি সুবিধা হল এর বাতাস বের হওয়ার বড় লুপ। যা ব্যবহারকারীর কানে চাপ প্রয়োগ করবে না। 

রেজার জানিয়েছে এই মাস্কটি এখনই বিক্রির জন্য নয়, মাত্র একটা ধারণা দেওয়ার জন্য। 

সূত্র: বিবিসি

news24bd.tv আয়শা

মন্তব্য